নগরীতে নাস্তার ১০ টাকা কম দেয়া নিয়ে তুলকালাম কান্ড ॥ পুলিশসহ আহত ১০ নগরীতে নাস্তার ১০ টাকা কম দেয়া নিয়ে তুলকালাম কান্ড ॥ পুলিশসহ আহত ১০ - ajkerparibartan.com
নগরীতে নাস্তার ১০ টাকা কম দেয়া নিয়ে তুলকালাম কান্ড ॥ পুলিশসহ আহত ১০

3:33 pm , January 10, 2023

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ নাস্তার ১০ টাকা কম দেয়াকে কেন্দ্র করে ক্রেতাকে মারধর করায় নগরীর নৌ-বন্দরের সামনে ঘোষ মিষ্টান্ন নামের দোকানে ভাংচুর করেছে বিক্ষুদ্ধ জনতা। ভাংচুরকারীরা এ সময় ধর্ম অবমাননার অভিযোগ এনে নৌ-বন্দরের সামনের সড়ক অবরোধ ও কোতয়ালী মডেল থানা ঘেরাও করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে গিয়ে এক উপ-পরিদর্শক (এসআই) আহত হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত এ ঘটনায় দুই দোকানের দুই কর্মচারীকে আটক করা হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছেন। আটককৃতরা হলো দোকান কর্মচারী ভবতোষ সাহা ও শ্যামল বিশ্বাস। আহত এসআই হলো সেলিম সরদার। কোতয়ালী মডেল থানার এসআই আরাফাত রহমান বলেন, সকালে হাজী মোহাম্মদ মহসীন হকার্স (ডিসি) মার্কেটের কর্মচারী সৌরভ ঢালী ঘোষ মিষ্টান্ন ভান্ডারে নাস্তা করে। নাস্তার বিল ১০ টাকা কম দেয়া নিয়ে কর্মচারীদের কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে দুই গ্রুপের মধ্যে মারামারি হয়। এই ঘটনার পরপরই স্থানীয় জনতা ধর্ম অবমাননার অভিযোগ এনে ঘোষ মিষ্টান্ন ভান্ডারে ভাংচুর করেছে। এ সময় পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করলে এসআই সেলিম আহত হয়েছেন।
এসআই আরো জানান, পরে দোকান কর্মচারীরা লঞ্চ ঘাট সড়ক অবরোধ করে। পরবর্তীতে মিছিল নিয়ে তারা কোতয়ালী মডেল থানা ঘেরাও করে। ঘটনার বিচার দাবীতে তাদের বিক্ষোভ বিকাল ৩টা পর্যন্ত স্থায়ী ছিলো।
কোতয়ালী মডেল থানার পরিদর্শক (অপারেশন) বিপ্লব কুমার মিস্ত্রি বলেন, ঘটনার আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার পর বিক্ষুদ্ধরা শান্ত হয়েছে। এ ঘটনায় মারধরের শিকার সৌরভ ঢালীর বাবা বাদী হয়ে মামলা করবে। মামলায় দুই জনকে গ্রেপ্তার দেখানো হবে বলে জানিয়েছেন পরিদর্শক বিপ্লব।
ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী আবুল কালাম জানান, সৌরভ ঢালী বরিশাল হাজী মোহাম্মদ মহসীন হকার্স মার্কেটের একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের কর্মচারী। তিনি মঙ্গলবার সকালে মার্কেট সংলগ্ন ঘোষ মিষ্টান্ন ভান্ডারে নাস্তা করেন। বিল পরিশোধের সময় ১০ টাকা বেশী চাওয়া নিয়ে কর্মচারীদের মধ্যে ঝগড়া হয়। এক পর্যায়ে কর্মচারীরা সৌরভ ঢালীকে বেদম মারধর করে। এতে সৌরভ রক্তাক্ত জখম হয়। ধস্তাধস্তিতে তার দাড়ি ছিড়ে চামড়া থেকে রক্ত বের হয়। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে মহসিন মার্কেট থেকে কিছু ব্যবসায়ী ও কর্মচারী সংঘবদ্ধ হয়ে ঘোষ মিষ্টান্ন ভান্ডারে হামলা করেন। পর্যায়ক্রমে স্থানীয় আরও অনেকে এতে যোগ দেন। তারা ঘোষ মিষ্টান্ন ভান্ডার তছনছ করেন।
খবর পেয়ে কোতোয়ালী থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। তারা পরিস্থিতি সামাল দিতে একজনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসার সময় ক্ষুদ্ধ জনতা পুলিশকে বাঁধা দেয়। আটক কর্মচারীকে তাদের হাতে তুলে দেয়ার দাবীতে বিক্ষোভ শুরু করেন। পরিস্থিতি সামাল দিতে পুলিশ লাঠিচার্জ করে। এসময় বিক্ষোভকারীরাও পুলিশের ওপর হামলার চেষ্টা চালায়। এতে বিক্ষোভকারী হেলাল (৪৫), মিজানুর রহমান (৩০) ও জামাল উদ্দিনসহ আরও কয়েকজন আহত হয়।
বিক্ষোভকারীরা কোতয়ালী থানার প্রধান ফটক আটকে দেয়ায় থানা সংলগ্ন সড়কে অবস্থান নিয়ে যানবহন চলাচল বন্ধ করে দেন বিক্ষোভকারীরা। বিকাল ৩টার দিকে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনার (দক্ষিণ) ফজলুল করীম ঘটনাস্থলে আসেন। তিনি এ ঘটনার জন্য দায়ীদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির আশ্বাস দেন।
বিক্ষোভে নেতৃত্বদানীকারীরে অন্যতম মোখলেসুর রহমান জানান, পুলিশ কর্মকর্তারা বিচারের আশ্বাস দেয়ায় তারা বিক্ষোভ স্থগিত করেছেন।
লঞ্চ ঘাটের হাজী মোহাম্মদ মহসীন (ডিসি) মার্কেটের কর্মচারী সৌরভ ঢালী জানান, প্রতিদিনই ঘোষ মিষ্টান্ন ভান্ডারে নাস্তা করেন তিনি। একই খাবারে আগে ৩০ টাকা বিল হিসেবে মঙ্গলবার দেন। কিন্তু কর্মচারীরা ৪০ টাকা বিল দাবী করে। এ নিয়ে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে উপর হামলা করে। কর্মচারীরা তার দাড়ি ছিড়ে ফেলে বলে জানান সৌরভ।
স্থানীয় এক দোকানী বলেন, সৌরভ প্রতিদিন ঘোষ মিষ্টান্ন ভান্ডারে নাস্তা করে। তার সাথে টাকা না থাকায় ১০ টাকা কম দিয়েছে। কিন্তু কর্মচারীরা টাকা না দিয়ে বের হতে দিবে না। এ নিয়ে মারামারি হয়েছে। এক পর্যায়ে কর্মচারীরা সৌরভের এক মুঠো দাড়ি ছিড়ে ফেলেছে। তাই সবাই ক্ষুদ্ধ হয়েছে।
সরেজমিনে দেখা গিয়েছে দোকানের সামনে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। দোকানের সামনের অংশ ভাংচুর করা। ভিতরে সবকিছু এলোমেলো। পুলিশ ভিতরে কাউকে প্রবেশ করতে দিচ্ছে না।
ঘোষ মিষ্টান্ন ভান্ডারের ম্যানেজার ভবতোষ ভানু সংবাদিকদের বলেন, নাস্তার বিল ৪০ টাকা তালিকায় লেখা আছে। কিন্তু সৌরভ ৩০ টাকা বিল দিতে চায়। এই নিয়ে ওই ছেলে কর্মচারীদের সাথে খারাপ ব্যবহার করে। এই নিয়ে মারামারি হয়েছে, তবে তার দাড়ি ছেড়ার মত কোনো ঘটনা ঘটেনি। দোষ থেকে বাঁচতে এমন বিষয় ছড়ানো হয়েছে। আর এই বিষয়টা ছড়িয়ে দোকান ভাঙচুর করা হয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT