সাংবাদিক ও সংস্কৃতিজন মীর মুজতবা আলীর জন্মদিন আজ সাংবাদিক ও সংস্কৃতিজন মীর মুজতবা আলীর জন্মদিন আজ - ajkerparibartan.com
সাংবাদিক ও সংস্কৃতিজন মীর মুজতবা আলীর জন্মদিন আজ

4:05 pm , December 31, 2022

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ আজ রোববার নগরীর সাংস্কৃতিক অঙ্গনের একজন পরিপূর্ণ ধ্রুপদী ধারার সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব মীর মুজতবা আলীর জন্মদিন। দিবসটি উপলক্ষে জন্মোৎসব পালন করবে দেশের অন্যতম প্রাচীনতম নাট্য গ্রুপ খেয়ালী গ্রুপ থিয়েটার। থিয়েটার মিলনায়তনে কেক কাটা, আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন খেয়ালীর সভাপতি নজরুল ইসলাম চুন্নু।
মীর মুজতবা আলী বরগুনা জেলার বামনা উপজেলার চালতাবুনিয়া গ্রামে পয়লা জানুয়ারি ১৯৩৪ সালে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৫০ সালে কিশোর মীর মুজতবা আলীর পিতা বরিশালে আসেন। এসময় বরিশালে দাঙ্গা হয়। দাঙ্গায় বরিশাল শহর বিপর্যস্ত হয়। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি অক্ষুণ্ণ রাখার লক্ষ্যে, শহীদ পিনাকী বসু এবং ভাষা সৈনিক মোশাররফ হোসেন নান্নুর উদ্যোগে বগুরা রোডে আবৃত্তি ও সঙ্গীতানুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এ অনুষ্ঠানে আবৃত্তি করে মীর মুজতবা আলী সবার দৃষ্টি কেড়ে নেন। পরবর্তীতে শিল্পী সংসদে আবদুল মালেক খানের সংস্পর্শে এসে তিনি নাট্য ও আবৃত্তি শিল্পের গভীরে প্রবেশ করে শিল্পের ধ্রুপদী ধারাকে আত্মস্থ করতে সক্ষম হন। ১৯৭৪ সালে তিনি খেয়ালীতে যোগদান করেন। খেয়ালীতে অভিনয় দিয়ে তার যাত্রা শুরু হলেও ১৯৮০ সালে তিনি খেয়ালীর নাট্য নির্দেশক হিসাবে আবির্ভূত হন। তার নির্দেশনায় খেয়ালী এমন কিছু ধ্রুপদী ও উচ্চমানের নাটক মঞ্চস্থ করে যা বরিশালের নাট্যাঙ্গনকে উচ্চমানে নিয়ে গেছে। বরিশালে তিনিই প্রথম রবীন্দ্র নাটক মঞ্চস্থ করেন।
সাংবাদিক হিসাবে মীর মুজতবা আলী একজন ক্ষুরধার লেখক ছিলেন। তিনি পত্রিকায় সম্পাদকীয় ও নিবন্ধ লিখতেন। কলম লেখক ও রাজনৈতিক বিশ্লেষক হিসাবেও তার খ্যাতি ছিল। তিনি দৈনিক গণবাংলা ও দৈনিক জনপদের বরিশাল প্রতিনিধি হিসাবে ছিলেন। বরিশাল থেকে প্রকাশিত মুক্তিযুদ্ধের পত্রিকা বিপ্লবী বাংলাদেশ, দৈনিক দক্ষিনাঞ্চল ও দৈনিক আজকের বার্তার সহকারী সম্পাদক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছেন। মীর মুজতবা আলী আপাদমস্তক ছিলেন একজন সংস্কৃতজ্ঞ ও গুনি মানুষ। ২০০৩ সালে বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশন নাট্যব্যক্তিত্ব হিসাবে, বরিশাল সাংস্কৃতিক সংগঠন সংস্কৃতি পরিষদ গিয়াসউদ্দিন পদক প্রদান করে এবং ২০১৫ সালে খেয়ালী গ্রুপ থিয়েটার আকবর হোসেন পদক প্রদান করে তার কর্মের প্রতি সম্মাননা প্রদর্শন করে। তার মৃত্যুর পর খেয়ালী গ্রুপ থিয়েটার, খেয়ালী পরিচালিত আবৃত্তি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের নাম পরিবর্তন করে ‘মীর মুজতবা আলী সাংস্কৃতিক শিক্ষা কেন্দ্র’ নামকরণ করেছে। সবাইকে কাঁদিয়ে এই গুণী মানুষটি ২০১৬ সালের ৮ই জুন মৃত্যুবরণ করেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT