গৌরনদীতে পুত্রের মৃত্যুর শোক সইতে না পেরে পিতার মৃত্যু গৌরনদীতে পুত্রের মৃত্যুর শোক সইতে না পেরে পিতার মৃত্যু - ajkerparibartan.com
গৌরনদীতে পুত্রের মৃত্যুর শোক সইতে না পেরে পিতার মৃত্যু

3:59 pm , December 30, 2022

গৌরনদী প্রতিবেদক ॥ বরিশালের গৌরনদীতে দুবাই প্রবাসী পুত্র শাহিন সরদারের (৫০) মৃত্যুর শোক সইতে না পেরে  পিতা আকুবালী সরদার (৭০) স্ট্রোক করে মারা গেছে। বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পিতা (আকুবালী) মারা যায়।  পিতা ও পুত্রের মৃত্যুতে আত্মীয়-স্বব্জনদের কান্নায়  ও আহাজারিতে আকাশ বাতাস ভারি হয়ে উঠে এবং এলাকাবাসীর মধ্যে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। প্রবাসী শাহিনের লাশ দেশে ফিরে আনার জন্য প্রধানমন্ত্রীসহ সরকারের সংশ্লিষ্ট  দপ্তরের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন স্বজনরা।
পারিবারিক সূত্রে জানাগেছে, গত ১৬ বছর পূর্বে চাকরির জন্য উপজেলার বার্থী ইউনিয়নের বাঙ্গিলা গ্রামের আকুবালী সরদারের (৭০) ছেলে শাহিন সরদার (৫০)  দুবাই প্রবাসে যায়।  ২/৩ বছর পরপর সে (শাহিন)  ছুটি নিয়ে দুবাই থেকে দেশের (বাংলাদেশ) বাড়িতে ফিরে আসতেন।  সর্বশেষ ছুটি শেষে ২০২০ সালের এপ্রিল মাসে  সে (শাহিন) বাড়ি থেকে পুনর্রায় দুবাই যান।  দুবাই প্রবাসী শাহিন সরদার  স্ট্রোক করে গত ২২ ডিসেম্বর রাতে প্রবাসে (দুবাই) বসে মারা যায়। মৃত্যুকালে তিনি (শাহিন) স্ত্রী চম্পা বেগম (৪০), কন্যা রুবিনা আক্তার (১৭).  ছেলে আহাত সরদার (৭), বাবা আকুবালী সরদার (৭০), মা রুনি বেগম (৬৭)কে রেখে যান।
আকুবালীর মামাতো ভাই রুহুল আমিন সরদার জানান,  গত ২২ ডিসেম্বর রাতে  দুবাই প্রবাসী পুত্র শাহিনের মৃত্যুর সংবাদ শাহিনের সহকর্মীদের মাধ্যমে পেয়ে বাবা-মাসহ পরিবারের সদস্য ও আত্মীয়-স্বব্জনদের কান্নায় ও আহাজারিতে  আকাশ বাতাস ভারি হয়ে উঠে।   শাহিনের বাবা ও মা, স্ত্রী, ছেলে, মেয়ে বারবার মূর্ছা যায়।  প্রবাসী পুত্রের মৃত্যুর শোক সইতে না পেরে গত ২৮ ডিসেম্বর সকালে শাহিনের বাবা আকুবালী মূর্ছা গিয়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। তাৎক্ষনিক  তাকে প্রথমে  গৌরনদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও দুপুরে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে (আকুবালী)  ২৮ ডিসেম্বর রাতে মারা যায়।
শাহিনের স্ত্রী চম্পা বেগম কান্নাজনিত কন্ঠে জানায়, ২২ ডিসেম্বর দুপুর দেড়টার দিাকে   স্বামীর সঙ্গে সর্বশেষ  মোবাইল ফোনে তার কথা হয়।  তখন স্বামী তাকে জানায়, বুকের ভেতর ডান পাশে একটু ব্যাথা করে। রাতে খবর পায়  স্ট্রোক করে তার প্রবাসী স্বামী মারা গেছে। স্বামীর লাশ দেশে ফিরে আনার জন্য প্রধানমন্ত্রীসহ সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তরের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন তিনি।
বার্থী ইউপি চেয়রম্যান আব্দুর রাজ্জাক হাওলাদার জানান, দুবাই প্রবাসী পুত্রের মৃত্যুর শোক সইতে না পেয়ে বৃদ্ধ পিতা আকুবালী সরদার স্ট্রোক করে মারা গেছেন। গতকাল শুক্রবার বাদজুমা  মরহুমের (আকুবালী) জানাজা শেষে বাঙ্গিলা গ্রামের তার লাশ পারিবারিক গোরস্থানে দাফন করা হয়েছে।  প্রবাসী পুত্র শাহিন সরদারের লাশ এখনও দুবাই থেকে দেশে ফিরে আসেনি।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT