ইসলামী আন্দোলনের স্মারকলিপি পেশ ইসলামী আন্দোলনের স্মারকলিপি পেশ - ajkerparibartan.com
ইসলামী আন্দোলনের স্মারকলিপি পেশ

2:54 pm , December 4, 2022

পাবলিক পরীক্ষাসহ শিক্ষার সর্বস্তরে ধর্মশিক্ষা বাধ্যতামূলক করা ও ডারউইনের বিবর্তবাদ সকল সিলেবাস থেকে বাদ দেয়ার দাবিতে বরিশাল জেলা প্রশাসকের নিকট স্মারকলিপি প্রদান করে ইসলামী আন্দোলনের মহানগর শাখা। রোববার সকালে মহানগরের সেক্রেটারী মাওলানা সৈয়দ নাসির আহমেদ কাওছারের নেতৃত্বে স্মারক লিপি দেয়া হয়। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন ইসলামী আন্দোলনের মহানগরের জয়েন্ট সেক্রেটারী মাওলানা মুহাম্মাদ আবুল খায়ের আশ্রাফী, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা নাসির উদ্দীন নাইস,দাওয়াহ ও প্রচার সম্পাদক এনামুল হক শামীম রাঢ়ী, দফতর সম্পাদক মুহাম্মাদ মাহবুব রব্বানী,অর্থ ও প্রকাশনা সম্পাদক এইচ এম হাসানুজ্জামান মিরাজ প্রমুখ।
ইসলামী আন্দোলন দাবিসমূহ হলো-শিক্ষা কারিকুলাম প্রণয়নে অভিজ্ঞ, দ্বীনদার আলেমদের সম্পৃক্ত করা। আলিয়া মাদরাসা শিক্ষার কারিকুলাম, শিক্ষানীতি-২০১০ অনুযায়ী মাদরাসা সংশ্লিষ্ট আলেম, দ্বীনদার শিক্ষকদের দ্বারা পুণঃমার্জন করা। বাংলা, ইংরেজি, সমাজবিজ্ঞান ও ইতিহাস বই হতে বিতর্কিত ও ইসলামী আকিদা বিরোধী প্রবন্ধসমুহ বাদ দেওয়া। ডারউইনের অপ্রমাণিত, ভ্রান্ত ও বিতর্কিত বিবর্তনবাদ প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক কারিকুলাম হতে বাদ দেয়া। নৈতিকতা সমৃদ্ধ জনশক্তি তৈরির লক্ষ্যে সকল ধর্মাবলম্বী শিক্ষার্থীদের জন্য নিজ নিজ ধর্মীয় শিক্ষার ব্যবস্থা করা। ইসলাম ধর্ম শিক্ষার প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরে আল কোরআন শিক্ষাকে অন্তর্ভুক্ত করা। শিক্ষার সর্বস্তরে ইসলাম শিক্ষাকে বাধ্যতামূলক ও আবশ্যিক করা। শ্রেণিকক্ষে অন্যান্য আবশ্যিক বিষয়ের মতই ইসলাম শিক্ষাকে মূল্যায়ন করা এবং বোর্ড পরীক্ষায় ইসলাম শিক্ষাকে অন্তর্ভুক্ত করা। স্কুল ও মাদরাসার সকল পাঠ্যপুস্তক অপ্রয়োজনীয় ও অশ্লীল চিত্রমুক্ত রাখা। শিক্ষাব্যবস্থা নয় বরং এদেশবাসীর ধর্মীয় চেতনার অনুকূল শিক্ষা ব্যবস্থা বাস্তবায়ন করা।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT