হিজলায় চোর যেখানে এসআই মনির সেখানে হিজলায় চোর যেখানে এসআই মনির সেখানে - ajkerparibartan.com
হিজলায় চোর যেখানে এসআই মনির সেখানে

3:06 pm , November 13, 2022

হিজলা প্রতিবেদক ॥ হিজলা উপজেলায় প্রায় দিনই ঘটছে চুরির ঘটনা। ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে টিনের চাল কেটে, ভ্যান ও অটোরিকশার ব্যাটারী চুরি হচ্ছে প্রতিনিয়ত। কিন্তু এসব ঘটনা প্রতিরোধে তেমন কোন ভূমিকা পুলিশের নেই। অভিযোগ রয়েছে সেখানেই চুরির ঘটনা কিংবা চোর আটক হয় সেখানে ছুটে যান থানার এসআই মনিরুজ্জামান। দীর্ঘদিন ধরে এ থানায় থাকায় প্রভাব বিস্তার করা এ দারোগা আটক চোরদের কৌশলে রক্ষা করে নেন। এমনকি গণধোলাইয়ের শিকার চোরদের দিয়ে মামলা দেয়ার ভয়ভীতি দেখায় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
রোববার সকাল ৮ টায় উপজেলার বড়জালিয়া ইউনিয়নের হাসপাতাল মোড়ে রাসেলের গ্যারেজে ৭ টি ব্যাটারী বিক্রি করতে আসে চোর চক্র। তখন ব্যাটারীর মালিক কাজিরহাট থানার বিদ্যানন্দপুর ইউনিয়নের চর মাদবরা গ্রামের ইসমাইল হাওলাদারের ছেলে সুলতান হাওলাদার ও চর খাজুরিয়া গ্রামের সেকান্দার হাওলাদারের ছেলে রিয়াজ হাওলাদার খবর পেয়ে সেখানে আসে। তারা এসে চুরি হওয়া তাদের ৭ টি ব্যাটারী শনাক্ত করেন। হিজলা থানার এসআই মনিরুজ্জামান খবর পেয়ে সেখানে যায়। এসআই মনিরুজ্জামান চোরকে বাঁচাতে বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে। চুরি প্রমানিত হয়নি জানিয়ে সংবাদকর্মীদের ছবি তুলতে বাধা দেন। এছাড়া ব্যাটারীর মালিকদের বলেন, ব্যাটারী চুরির ঘটনায় থানায় জিডি করছেন কিনা। এসআই মনির চোরদের পক্ষ নেওয়ায় স্থানীয়রা ডাকচিৎকার দিলে চোর থানায় নিয়ে যায়।
উপজেলার গুয়াবাড়িয়া ইউনিয়নের পূর্ব কোড়ালিয়ায় গত ৬ মাস পূর্বে স্থানীয়রা চোর ধরে থানায় ফোন দিলে ছুটে যায় এই মনির। তখন জনতার কাছ থেকে ছিনিয়ে এনে চোরের পরিবারের সাথে ১০ হাজার টাকায় রফাদফা করে চোরকে ছেড়ে দেয়।
গত দেড় মাস আগে উপজেলার আফসার উদ্দিন ফাজিল মাদরাসায় পানির কল চুরি করে স্থানীয় ৩ চোর। তখন মাদরাসার দপ্তরী তাদের আটক করে থানায় সংবাদ দেয়। এসআই মনির সেখানে গিয়ে কাউকে কিছু না বলে চোর নিয়ে যায়। পরে গভীর রাতে সেই চোর ছেড়ে দেওয়া হয়।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT