এক সপ্তাহে বিভাগে ৪ শতাধিক মানুষ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত এক সপ্তাহে বিভাগে ৪ শতাধিক মানুষ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত - ajkerparibartan.com
এক সপ্তাহে বিভাগে ৪ শতাধিক মানুষ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত

3:13 pm , October 31, 2022

হেলাল উদ্দিন ॥ বরিশালে ধীরে ধীরে আতংক ছড়াচ্ছে ডেঙ্গু জ¦র। করোনার দাপট এখন তলানীতে গেলেও ভয়াভহ হয়ে উঠছে ডেঙ্গু।  শহর থেকে গ্রামে বিরাজ করছে চরম ডেঙ্গু আতংক। আতংকের অনেকটা যুক্তিযুক্ত কারনও রয়েছে। শেষ এক সপ্তাহে বরিশাল বিভাগে ৪ শতাধিক লোক ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছে। পক্ষান্তরে গত এক সপ্তাহে এই বিভাগে আতংক সৃষ্টিকারী করোনায় আক্রান্ত হয়েছে মাত্র ৯ জন। স্বাস্থ্য বিভাগও স্বীকার করেছে বিষয়টি। সংস্থাটির দায়িত্বরতরা বলছেন বর্তমানে করোনা নয়, ডেঙ্গু তাদের টেনশনের কারন। বিভাগে মহামারি আকারে না ছড়িয়ে পরলেও চিকিৎসার সকল প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছেন তারা।
বরিশাল স্বাস্থ্য বিভাগের দেওয়া তথ্য মতে গত এক সপ্তাহে অর্থ্যাৎ ২৫ অক্টোবর থেকে ৩১ নভেম্বর পর্যন্ত প্রায় ৪ শতাধিক লোক বিভাগে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছে।  এর মধ্যে ২৯ অক্টোবর মৌসুমের সর্বোচ্চ আক্রান্তের ঘটনা ঘটেছে। এই দিন বিভাগে ৯১ জন মানুষ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছে। এর পর ২৭ অক্টোবর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৭৬ জন এবং সোমবার তৃতীয় সর্বোচ্চ ৭৫ জন জন আক্রান্ত হয়েছে।
পরিসংখ্যান বলছে বিভাগের ৬ জেলার মধ্যে পিরোজপুর জেলায় ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা বেশী। এ জেলায় ১ জানুয়ারী থেকে গতকাল পর্যন্ত ৩০৫ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছেন। এছাড়া বরগুনা জেলায় আক্রান্ত হয়েছে ২৭০ জন।
এদিকে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত সব চেয়ে বেশী রোগী অবস্থান করছেন বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। এই হাসপাতালে গতকাল সকাল পর্যন্ত ভর্তি তথা চিকিৎসাধীন ছিলো ৬৭ জন রোগী। এছাড়া এই হাসপাতাল থেকে এখন পর্যন্ত ৬৫৮ জন ডেঙ্গু রোগী চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ্য হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। বিভাগে এখন পর্যন্ত ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ৫ জনের মৃত্যু ঘটেছে। তবে এদের সবার মৃত্যু হয়েছে গত মৌসুমে। বরিশাল বিভাগীয় স্বাস্থ্য উপ পরিচালক ডাঃ শ্যামল কৃষ্ণ মন্ডল বলেন, যখন যে রোগটির প্রাদুর্ভাব বেশী থাকে আমরা সেটি নিয়ে দুঃচিন্তাগ্রস্ত থাকি। যেহেতু বর্তমানে করোনার সংক্রমন নেই তাই সেটি নিয়ে আমরা এখন ভাবছি না। ডেঙ্গু পরিস্থিতিটা এখন আমাদের ভাবাচ্ছে। তিনি বলেন, আমরা স্বাস্থ্য বিভাগ ডেঙ্গু রোগীর চিকিৎসার জন্য সার্বিক প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছি। প্রত্যেক জেলা উপজেলায় ডেঙ্গু রোগীর চিকিৎসা নিশ্চিত করেছি। তারপরও কোন রোগী সংকটাপন্ন হয়ে পরলে তাকে দ্রুত শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরণের জন্য চিকিৎসকদের নির্দেশনা প্রদান করেছি।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT