ভান্ডারিয়ায় ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা ভান্ডারিয়ায় ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা - ajkerparibartan.com
ভান্ডারিয়ায় ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা

3:09 pm , October 31, 2022

তরিকুল ইসলাম, ভান্ডারিয়া ও রিয়াদ মাহমুদ সিকদার, কাউখালী ॥ ভান্ডারিয়ায় সড়কে ব্যারিকেড দিয়ে ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দৃর্বৃত্তরা। সোমবার সকাল ১০ টার দিকে ভান্ডারিয়ার উত্তর ভিটাবাড়িয়া গ্রামের আজহারিয়া ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসার দুইশ গজ দূরে সড়কের একটি কালভার্টের কাছে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ইউপি সদস্য হলেন :  মামুন হাওলাদার (৪৫)। তিনি কাউখালী উপজেলার শিয়ালকাঠি ইউনিয়ন পরিষদের ৯নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য এবং উপজেলার জোলাগাতি গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য মিহাজ উদ্দিন হাওলাদারের  ছেলে। তিন সন্তানের জনক নিহত মামুন হাওলাদার। থানা  ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ইউপি সদস্য মামুন সকালের নাস্তা করে বাড়ি থেকে বের হয়ে ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেলে (পিরোজপুর-হ-১১-৭৮০৮)শিয়ালকাঠি নিজ ইউনিয়ন পরিষদের উদ্দেশ্যে রওনা দেন। পথে ভান্ডারিয়ার উত্তর ভিটাবাড়িয়া গ্রামের আজহারিয়া দাখিল মাদ্রাসার ২০০ গজ দূরে সড়কের একটি কালভার্টের কাছে সংঘবদ্ধ ৪/৫ জনের একদল দুর্বৃত্ত মোটরসাইকেলযোগে এসে রাস্তায় গাছ ফেলে রাখে। সেখানে ইউপি সদস্য মামুনের মোটসাইকেলের গতিরোধ করে। এ সময় দুর্বৃত্তরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে প্রথমে তার বাম পা বিচ্ছিন্ন করে। এরপর শরীরের বিভিন্ন স্থানে কুপিয়ে হত্যা নিশ্চিত করে। পরে দুর্বৃত্তরা তার বিচ্ছিন্ন বাম পা কালভার্টের নিচে ছুড়ে ফেলে দিয়ে লাশ সড়কে ফেলে নির্বিঘেœ পালিয়ে যায়।  এ সময় নিহত ইউপি সদস্যকে বহনকারী ভাড়ায়চালিত মোটরসাইকেল চালক ভিটাবাড়িয়া গ্রামের শহীদুল জোমাদ্দারের ছেলে সজল জোমাদ্দারকে মারধর করে আহত করে। গ্রামবাসি সড়কের ওপর  ইউপি সদস্যের রক্তাক্ত লাশ ও  অজ্ঞান অবস্থায় মোটরসাইকেল চালককে পড়ে থাকতে দেখে থানায় খবর দেয়। দুপুরে ভান্ডারিয়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে সড়ক থেকে লাশ ও কালভার্টের নিচে ডোবা থেকে বিছিন্ন পা উদ্ধার করে। নিহত ইউপি সদস্যের বড় ভাই আব্দুল খালেক হাওলাদার বলেন,আমার ভাইকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। সে টানা দুইবার ইউপি সদস্য নির্বাচিত হয়েছে। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন কেন্দ্রিক পুর্ব শত্রুতার জের ধরে পরিকল্পিতভাবে হত্যাকান্ড ঘটানো হয়েছে দাবি করেন তিনি। ভান্ডারিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মাসুমুর রহমান ঘটনা নিশ্চিত করে বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। এ হত্যাকান্ডের ঘটনায় পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। পিরোজপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মঠবাড়িয়া-ভান্ডারিয়া সার্কেল) মো. ইব্রাহিম দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে সাংবাদিকদের জানান, পুর্ব শত্রুতার জের ধরে সংঘবদ্ধ সন্ত্রাসীরা এ হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে। অজ্ঞাত দুর্বৃত্তদের খুঁজে দ্রুত গ্রেফতারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।ভান্ডারিয়ায় ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যাতরিকুল ইসলাম, ভান্ডারিয়া ও রিয়াদ মাহমুদ সিকদার, কাউখালী ॥ ভান্ডারিয়ায় সড়কে ব্যারিকেড দিয়ে ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দৃর্বৃত্তরা। সোমবার সকাল ১০ টার দিকে ভান্ডারিয়ার উত্তর ভিটাবাড়িয়া গ্রামের আজহারিয়া ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসার দুইশ গজ দূরে সড়কের একটি কালভার্টের কাছে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ইউপি সদস্য হলেন :  মামুন হাওলাদার (৪৫)। তিনি কাউখালী উপজেলার শিয়ালকাঠি ইউনিয়ন পরিষদের ৯নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য এবং উপজেলার জোলাগাতি গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য মিহাজ উদ্দিন হাওলাদারের  ছেলে। তিন সন্তানের জনক নিহত মামুন হাওলাদার।
থানা  ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ইউপি সদস্য মামুন সকালের নাস্তা করে বাড়ি থেকে বের হয়ে ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেলে (পিরোজপুর-হ-১১-৭৮০৮)শিয়ালকাঠি নিজ ইউনিয়ন পরিষদের উদ্দেশ্যে রওনা দেন। পথে ভান্ডারিয়ার উত্তর ভিটাবাড়িয়া গ্রামের আজহারিয়া দাখিল মাদ্রাসার ২০০ গজ দূরে সড়কের একটি কালভার্টের কাছে সংঘবদ্ধ ৪/৫ জনের একদল দুর্বৃত্ত মোটরসাইকেলযোগে এসে রাস্তায় গাছ ফেলে রাখে। সেখানে ইউপি সদস্য মামুনের মোটসাইকেলের গতিরোধ করে। এ সময় দুর্বৃত্তরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে প্রথমে তার বাম পা বিচ্ছিন্ন করে। এরপর শরীরের বিভিন্ন স্থানে কুপিয়ে হত্যা নিশ্চিত করে। পরে দুর্বৃত্তরা তার বিচ্ছিন্ন বাম পা কালভার্টের নিচে ছুড়ে ফেলে দিয়ে লাশ সড়কে ফেলে নির্বিঘেœ পালিয়ে যায়।  এ সময় নিহত ইউপি সদস্যকে বহনকারী ভাড়ায়চালিত মোটরসাইকেল চালক ভিটাবাড়িয়া গ্রামের শহীদুল জোমাদ্দারের ছেলে সজল জোমাদ্দারকে মারধর করে আহত করে।
গ্রামবাসি সড়কের ওপর  ইউপি সদস্যের রক্তাক্ত লাশ ও  অজ্ঞান অবস্থায় মোটরসাইকেল চালককে পড়ে থাকতে দেখে থানায় খবর দেয়। দুপুরে ভান্ডারিয়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে সড়ক থেকে লাশ ও কালভার্টের নিচে ডোবা থেকে বিছিন্ন পা উদ্ধার করে।
নিহত ইউপি সদস্যের বড় ভাই আব্দুল খালেক হাওলাদার বলেন,আমার ভাইকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। সে টানা দুইবার ইউপি সদস্য নির্বাচিত হয়েছে। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন কেন্দ্রিক পুর্ব শত্রুতার জের ধরে পরিকল্পিতভাবে হত্যাকান্ড ঘটানো হয়েছে দাবি করেন তিনি।
ভান্ডারিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মাসুমুর রহমান ঘটনা নিশ্চিত করে বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। এ হত্যাকান্ডের ঘটনায় পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।
পিরোজপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মঠবাড়িয়া-ভান্ডারিয়া সার্কেল) মো. ইব্রাহিম দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে সাংবাদিকদের জানান, পুর্ব শত্রুতার জের ধরে সংঘবদ্ধ সন্ত্রাসীরা এ হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে। অজ্ঞাত দুর্বৃত্তদের খুঁজে দ্রুত গ্রেফতারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT