সাগরে যাচ্ছে জেলেরা সাগরে যাচ্ছে জেলেরা - ajkerparibartan.com
সাগরে যাচ্ছে জেলেরা

3:46 pm , October 28, 2022

আরিফ সুমন, কুয়াকাটা ॥ মা ইলিশ রক্ষায় ২২ দিনের শিকারে নিষেধাজ্ঞা শেষে বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরতে রওনা দিয়েছে উপকূলীয় জেলেরা। কলাপাড়া উপজেলার মহিপুর-আলিপুর মৎস্য বন্দর ও বিভিন্ন জায়গা থেকে শুক্রবার মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত বেশকিছু মাছ ধরার ট্রলার গভীর সাগরের উদ্দেশে রওনা দিয়েছে। তবে বরফের কারণে এখনও অনেক ট্রলার বন্দরগুলোতে অবস্থান করছে। দেশের অন্যতম মৎস্য বন্দর আলীপুরের জেলে মনির মাঝি বলেন, সরকার ঘোষিত ২২ দিনের নিষেধাজ্ঞা পালন করেছি। এরই মধ্যে ইলিশ মাছ ধরার সব প্রস্তুতি শেষ করেছি। নিষেধাজ্ঞা শেষ হওয়ায় অপেক্ষায় আছি। আবহাওয়া অনুকলে থাকলে মধ্য রাতে মাছ শিকারে যাবো। মহিপুর মৎস্য বন্দরের একাধিক জেলের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, এ বছর ইলিশের ভরা মৌসুমে মাছ না পাইলেও শেষ মুর্হুতে অনেক মাছ পেয়েছি। আরো বলেন, কারণ নিষেধাজ্ঞা মেনে কিনারায় আসার পথে জেলেরা মন কে মন মাছ পেয়েছে। নিষেধাজ্ঞা উঠে গেলে প্রচুর পরিমাণ মাছ হবে বলে ধারণা ছিলো তাদের। তাই আরাম আয়েশ বাদ দিয়ে অনেক মাছ ধরার স্বপ্ন বুকে নিয়ে জাল বুনেছি। সময় শেষে রাত থেকে ধরবো মাছ। আলীপুর-কুয়াকাটা মৎস্য ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আনছার উদ্দিন মোল্লা জানান, মহিপুর-আলিপুর থেকে শত শত ট্রলার ইলিশ আহরণের জন্য গভীর সাগরের উদ্দেশে যায়। টানা ২২ দিনের নিষেধাজ্ঞা শেষে সকাল থেকে ট্রলার বা ফিসিং বোটগুলো বরফ নিয়ে সমুদ্রে যাচ্ছে। ভোরেও কিছু ট্রলার গিয়েছে, তবে বরফের কারণে নিষেধাজ্ঞার সময় শেষ হওয়ার পরপরই তেমন কোনো বোটই সাগরে যেতে পারেনি। ২/১ দিন বাদে বোটগুলো ফিরে আসলে সাগরে ইলিশের উপস্থিতি সম্পর্কে জানা যাবে বলে জানিয়ে তিনি বলেন, বিকেলে স্থানীয় নদীর কিছু মাছ উঠতে পারে আলিপুর ও মহিপুর বাজারে। তবে বাজার জমতে ২/১ দিন অপেক্ষা করতে হবে।এ বিষয়ে কলাপাড়া উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা অপু সাহা বলেছেন, এবার ২২দিন অবরোধ আমাদের অনেকটা সহযোগিতা করছে জেলেরা। সকাল থেকে দেখছি জেলেরা ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছে, গভীর সমুদ্রে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে। এবার সরকারি তরফ থেকে জেলেদের সহযোগিতা করা হয়েছে, তিনি আরো বলেন, আমরা দিন-রাত মা ইলিশ রক্ষায় কাজ করেছি। আশা করছি, আমরা এ বছর শতভাগ সফল হয়েছি। কারণ হিসেবে তিনি উল্লেখ করেন, অবরোধ চলাকালীন সময় প্রচুর পরিমাণে বৃষ্টিসহ বজ্রপাতও ও বন্যা হয়েছে। বৃষ্টির সঙ্গে বজ্রপাত হলে সব ডিমওয়ালা মা মাছ দ্রুত ডিম ছেড়ে দেয়। এতে সমুদ্রে প্রচুর পরিমাণ ইলিশ মাছ ধরা পড়বে জেলেদের জালে।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT