কাউন্সিলর মোশারেফ আলী খান বাদশার দাফন সম্পন্ন কাউন্সিলর মোশারেফ আলী খান বাদশার দাফন সম্পন্ন - ajkerparibartan.com
কাউন্সিলর মোশারেফ আলী খান বাদশার দাফন সম্পন্ন

3:28 pm , October 12, 2022

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোশারেফ আলী খান বাদশার দাফন সম্পন্ন হয়েছে। গতকাল বাদ আসর বরিশাল জিলা স্কুল মাঠে মরহুমের নামাজে জানাজা শেষে নগরীর মুসলিম গোরস্থানে দাফন করা হয়।
এর আগে বিকেল ৪ টা নাগাদ তার লাশবাহী গাড়ি বরিশালে পৌঁছায়। জনপ্রিয় এই জনপ্রতিনিধিকে শেষ বারের মত এক নজর দেখতে নগরীর বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ আগে থেকেই তার বাসভবন ও জানাজাস্থল জিলা স্কুল মাঠে ভীড় জমায়।
জানাজায় বরিশাল জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এ্যাড. একেএম জাহাঙ্গীর, বিসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ গোলাম ফারুক, বরিশাল সদর উপজেলা চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান রিন্টু, সরকারী বরিশাল কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ আব্বাস উদ্দিন, বিসিসির প্যানেল মেয়র গাজী নঈমুল হোসেন লিটু, এ্যাড. রফিকুল ইসলাম খোকন, কাউন্সিলর আকতারুজ্জামান হিরু, এটিএম শহীদুল্লাহ কবীর, ফরিদ উদ্দিন, কাউন্সিলর জিয়াউর রহমান বিপ্লব, জাকির হোসেন মোল্লা, মোঃ মজিবর রহমান, লিয়াকত হোসেন খান লাবু, মহানগর আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক হাসান মাহমুদ বাবু, জেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক মোয়াজ্জেম হোসেন চুন্নু, মহানগর বিএনপির আহবায়ক মোঃ মনিরুজ্জামান খান ফারুক, সদস্য সচিব মীর জাহিদুল কবীর জাহিদ, যুগ্ম আহবায়ক আলতাফ মাহমুদ শিকদার, যুগ্ম আহবায়ক মোঃ হাবিবুর রহমান টিপু, কেএম শহিদুল্লাহ, মহানগর বিএনপির সাবেক সাধারন সম্পাদক আসাদুজ্জামান খসরুসহ অন্যান্য গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।
এছাড়া বরিশালের বিভিন্ন রাজনৈতিক-সামাজিক,সাংস্কৃতিক সংগঠনের ব্যক্তিবর্গ, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, ব্যবসায়ী ও সর্ব স্তরের কয়েক হাজার মানুষ জানাজায় অংশ গ্রহন করেন। জানাজার পূর্বে মরহুমের বড় ছেলে রচি তার বাবার জন্য সকলের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেন।
প্রসঙ্গত, গত ৮ অক্টোবর নিউইয়র্কের একটি হাসপাতালে বাংলাদেশ সময় বিকেল ৩টায় হৃদ রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন কাউন্সিলর মোশারফ আলী খান বাদশা। প্রায় দেড় মাস ধরে তিনি নিউইয়র্কের একটি মেডিকেল সেন্টারে চিকিৎসাধীন ছিলেন। অবস্থার অবনতি হলে মৃত্যুর দুই দিন আগে তাকে লাইফ সাপোর্টে নেয়া হয়। শনিবার বিকেলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন, আগেই তার হার্টে ৫ টি রিং স্থাপন করা ছিলো। বরিশাল পৌরসভার কমিশনার নির্বাচিত হবার মধ্য দিয়ে সূচনা হয় তার জনপ্রতিনিধি অধ্যায়ের। ওই সময় তিনি ৯ নম্বর ওয়ার্ড থেকে কমিশনার নির্বাচিত হন। এরপর পৌরসভা সিটি করপোরেশনে রূপান্তরিত হলে ১৬ নং ওয়ার্ড থেকে একটানা ৩ বার কাউন্সিলর নির্বাচিত হন তিনি। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ৪ ছেলে ও ৩ মেয়ে নাতি-নাতনিসহ অসংখ্য আত্মীয় স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। আগামী শুক্রবার বাদ আসর নগরীর ব্রাউন কম্পাউন্ড জামে মসজিদে মরহুমের রুহের মাগফিরাত কামনায় দোয়া মিলাদ অনুষ্ঠিত হবে।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT