১ লাখ ৯০ হাজার টাকা কুড়িয়ে পেয়ে ফেরত দিলেন দিনমজুর ১ লাখ ৯০ হাজার টাকা কুড়িয়ে পেয়ে ফেরত দিলেন দিনমজুর - ajkerparibartan.com
১ লাখ ৯০ হাজার টাকা কুড়িয়ে পেয়ে ফেরত দিলেন দিনমজুর

3:28 pm , August 10, 2022

নিজস্ব পতিবেদক ॥ সড়কে কুড়িয়ে পাওয়া ১ লাখ ৯০ হাজার টাকা একজন কাউন্সিলের মাধ্যমে হারানো ব্যক্তির নিকট ফিরিয়ে দিয়েছেন একজন দিন মজুর। তবে তিনি তার পরিচয় গোপন রেখেছেন। আর হারানো টাকা ফেরত পেয়ে ওই দিন মজুরকে পুরস্কৃত করতে চাচ্ছেন ব্যবসায়ী শংকর কুমার সাহা। তিনি বরিশাল নগরীর ভাটিখানার বাসিন্দা এবং বিসিক শিল্প নগরীর একজন ব্যবসায়ী। ব্যবসায়ী শংকর বলেন, তিন দিন পূর্বে একটি দোকানে তাগেদা দিয়ে ওই টাকা ব্যাগে ভরে মোটরসাইকেলযোগে বিসিক শিল্প নগরীতে যাচ্ছিলেন। তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে যাওয়ার পর তিনি দেখতে পান তার মোটরসাইকেলের হ্যান্ডেলে ঝুলানো ব্যাগটি আর নেই। সাথে সাথে যে পথ ধরে এসেছেন সেই পথে পথে খোঁজ করেন। এমনকিও পথে যেসব দোকানে সিসি ক্যামেরা ছিল তাও দেখেছেন। কিন্তু কোনভাবেই টাকার হদিস মিলছিল না। সর্বশেষ তিনি নগরীতে মাইকিং করান। সেখানে উল্লেখ করা হয় ওই টাকা যে ফেরত দেবে তাকে পুরস্কৃত করা হবে। কিন্তু তাতেও কোন কাজ হচ্ছিল না। তিনি টাকা পাওয়ার আশা ছেড়েই দিয়েছিলেন। এর মধ্যে গত মঙ্গলবার দুপুরে তার কাছে মোবাইল করেন নগরীর ২নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মর্তুজা আবেদীন। তিনি তাকে টাকা হারানোর বিষয়টি জিজ্ঞাসা করেন। এরপর তাকে বিকাল ৫টায় তার বাসভবনে আসতে বলেন। বাসভবনের আসার সাথে সাথে টাকার ব্যাগটি ধরিয়ে দেন কাউন্সিলর। কিন্তু যে ব্যাগটি পেয়েছে তাকে দেখার ইচ্ছা ছিল ব্যবসায়ী শংকরের। কিন্তু সেই ব্যক্তিটি দেখা করেননি। এমনকি কাউন্সিলরও তার পরিচয় গোপন রেখেছেন। তবে তাকে পুরস্কৃত করতে চান ব্যবসায়ী শংকর। এ ব্যাপারে কাউন্সিলর মর্তুজা আবেদীন বলেন, ওই দিনমজুর টাকা নিয়ে এসে হারানো ব্যক্তিকে দেয়ার অনুরোধ জানান। তখন পরীক্ষা করার জন্য বলি ওই টাকা তুই নিয়ে যা, দেয়া লাগবে না। তখন উত্তর আসে মরতে হবে না। এরপর বলি তাহলে আমি রেখে দেই, তখন উত্তর আসে আপনি এ কাজ করবেন বলেই তো আপনার কাছে দিয়ে গেলাম। যার টাকা তাকে ফিরিয়ে দিয়েন। আমার কথা কিছু বলার দরকার নেই। এ সময় বেশ কয়েকবার অনুরোধ করে বললাম কস্টে চলিস সে যদি কিছু দিতে চায়। না তাও আমি নেবো না। আপনি আমার পরিচয় কোনভাবেই দেবেন না। এ জন্য কাউন্সিলর ওই ব্যক্তির পরিচয় গোপনই রেখেছেন। এমনকি ব্যবসায়ী শংকরের কাছেও তার পরিচয় দেননি।
কাউন্সিলর মর্তুজা আরো বলেন, আসলে এখনো ভালো মানুষ আছে। কাজ পেলে পরিবারের সদস্যদের মুখে খাবার জোটে। কাজ না পেলে খাবার জোটে না। এ অবস্থার মধ্যে এতগুলো টাকা সড়কে কুড়িয়ে পেয়ে তা আবার ফিরিয়ে দেয়ার মানুষ খুব কমই আছে। তবে তাদের মধ্যে একজন হচ্ছে ওই দিনমজুর। কাউন্সিলর মর্তুজা আবেদন বলেন, টাকাটা যেদিন হারিয়েছে সেদিনই পেয়েছেন দিনমজুর। তবে হারানো ব্যক্তিকে খুুজে না পেয়ে তার কাছে রেখে দেন। আজ তিনি মাইকিং শুনে ওই টাকা দিয়ে ওই ব্যক্তির নিকট ফিরিয়ে দিতে বলেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT