প্রধানমন্ত্রীর আত্মীয় পরিচয়ে প্রতারণা, প্রতারক গ্রেপ্তার প্রধানমন্ত্রীর আত্মীয় পরিচয়ে প্রতারণা, প্রতারক গ্রেপ্তার - ajkerparibartan.com
প্রধানমন্ত্রীর আত্মীয় পরিচয়ে প্রতারণা, প্রতারক গ্রেপ্তার

3:27 pm , August 2, 2022

মো. জসিম জনি, লালমোহন ॥ প্রধানমন্ত্রীর গৃহহীন ও ভূমিহীন প্রকল্পের ঘর দেওয়ার কথা বলে প্রধানমন্ত্রীর এক আত্মীয়ের নাম ভাঙ্গিয়ে প্রতারণা করে টাকা হাতিয়ে নেওয়া এক প্রতারককে আটক করেছে ভোলার লালমোহন থানা পুলিশ। লালমোহন পৌরসভার ওয়েস্টার্ণপাড়া এলাকায় কথিত ওই প্রকল্পের অফিস থেকে মোহাম্মদ আলী সরকারকে আটক করা হয়। এসময় তার অফিসের ক্যাশিয়ার সুরেন্দ্র নাথ ঢালীকেও আটক করা হয়। অফিসের দেওয়ালে প্রধানন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে প্রতারক মোহাম্মদ আলী সরকার নিজের ছবি এডিট করে লাগিয়ে রাখা ছবিও উদ্ধার করা হয়। এছাড়া লক্ষ্মীপুর, নোয়াখালী, হাতিয়া ও চরফ্যাশনের বিভিন্ন ব্যক্তিদের সাথে একাধিক স্ট্যাম্পে ভুয়া চুক্তিনামাও উদ্ধার করা হয়। মোহাম্মদ আলী সরকার নিজেকে লক্ষ্মিপুর-২ আসনের আগামী নির্বাচনে নৌকার সম্ভাব্য প্রার্থী বলেও নিজেকে দাবী করে। আটককৃত মোহাম্মদ আলী সরকারের বাড়ি ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার জিন্নাগড় ইউনিয়নে এবং সুরেন্দ্র নাথ ঢালীর বাড়ি গোপালগঞ্জ জেলার কোটালীপাড়ায়। এঘটনায় লালমোহন থানায় মামলা দায়ের করেছে প্রতারণার শিকার আব্দুর রাজ্জাক নামে এক যুবক।
জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রীর আত্মীয় গোপালগঞ্জের “শেখ জাহিদ আহমেদ সাবু কন্সট্রাকশন এর” নামে গৃহহীন ও ভূমিহীনদের জন্য বিনামূল্যে ঘর দেওয়ার একটি ভূয়া প্রকল্প তৈরি করে প্রতারক মোহাম্মদ আলী সরকার। এক মাস আগে ওই প্রকল্পের অফিস নেয় লালমোহন ওয়েস্টার্ণপাড়ায়। সেখানে স্থানীয় লোকদের কাছে ঘর দেওয়ার কথা বলে ১ হাজার টাকা করে জমা নিতে শুরু করে। এছাড়া তার অফিসে চাকরী দেওয়ার কথা বলেও কয়েকজনের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা নেয়। এনিয়ে স্থানীয়দের সন্দেহ হলে থানা পুলিশকে খবর দেওয়। পরে সোমবার রাতে থানা পুলিশ অফিস থেকে তাকে আটক করে। তার কাছে নোয়াখালীর কথিত ‘এখনই সময় টিভি’ নামের একটি কার্ডও পাওয়া যায়।
মামলার বাদী চরফ্যাশন উপজেলার শশীভূষণ ইউনিয়নের মো. রফিকুল ইসলামের পুত্র আব্দুর রাজ্জাক জানান, তাকে চাকরী দেওয়ার কথা বলে এক লক্ষ টাকা নেয়। পরে লালমোহন অফিসে চাকরী করতে এলে তার সন্দেহ হয়।
লালমোহন থানার অফিসার ইনচার্জ মাকসুদুর রহমান মুরাদ জানান, প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত ঘর দিবে বলে মোহাম্মদ আলী সরকার মানুষের কাছ থেকে টাকা উত্তোলন করছে বলে অভিযোগ পাই আমরা। পরে আমরা তাকে আটক করে থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ করলে জানতে পারি শেখ সাবু কনষ্ট্রাকশন নামে একটি চুক্তিনামা দেখায়। কিন্তু সরকারের পক্ষ থেকে কোন অনুমোতি নেই। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সাথে ছবি এডিট করে সে বোঝাতো প্রধানমন্ত্রীর আত্মীয় স্বজনের সাথে তার ভালো সম্পর্ক। সে প্রতারণার মাধ্যমে মানুষের কাছ থেকে টাকা নিচ্ছে। সে নোয়াখালী, লক্ষ্মিপুর এসব জায়গায়ও একই ধরণের প্রতারণা করেছে বলে আমরা জানতে পারি। নোয়াখালীতে সে মাধব সরকার পরিচয় দিতো। তার এসব প্রতারণার কারণে আমরা তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিচ্ছি।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT