ঈদুল আজহাকে ঘিরে মহাসড়কে বাড়তি নজরদারি গৌরনদী হাইওয়ে পুলিশের ঈদুল আজহাকে ঘিরে মহাসড়কে বাড়তি নজরদারি গৌরনদী হাইওয়ে পুলিশের - ajkerparibartan.com
ঈদুল আজহাকে ঘিরে মহাসড়কে বাড়তি নজরদারি গৌরনদী হাইওয়ে পুলিশের

3:18 pm , July 6, 2022

গৌরনদী প্রতিবেদক ॥ পবিত্র ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে বরিশাল-ঢাকা মহাসড়কে বাড়তি কড়া নজরদারি, চাঁদাবাজি প্রতিরোধ করা, আইন শৃঙ্খলা বজায় রাখা, যানজট নিরসনে কঠোর অবস্থানে রয়েছে বরিশালের গৌরনদী হাইওয়ে পুলিশ। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, আসন্ন ঈদ ঘিরে ঘরমুখী মানুষকে নিরাপদে বাড়ি ফেরার জন্য যেকোনো মূল্যে মহাসড়কে কড়া নজরদারি, যানজট মুক্ত রাখা, সড়ক দুর্ঘটনা প্রতিরোধে মহাসড়কে শৃঙ্খলা রক্ষা এবং চুরি, ছিনতাই রোধে নিয়মিত পুলিশ টহল কার্যক্রম জোরদার করা হয়েছে। এছাড়া উচ্চ আদালতের নির্দেশনা অমান্য করে কোনো তিন চাকার পরিবহন মহাসড়কে উঠে গেরে আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে এবং দুর্ঘটনা রোধে স্পিডগানের মাধ্যমে পদক্ষেপ গ্রহন করা হচ্ছে।
গৌরনদী হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ বেল্লাল হোসেন বলেন, পবিত্র ঈদুল আজহাকে কেন্দ্র করে কড়া নজরদারি, চাঁদাবাজি রোধে কঠোর অবস্থানে রয়েছে পুলিশ। সুনির্দিষ্ট অভিযোগ ছাড়া যানবাহন তল্লাশির নামে পুলিশি হয়রানি বন্ধর পশাপাশি মহাসড়কে চলাচলকারী কোনো গাড়ি তথ্য ছাড়া থামানো যাবে না।
ঈদে মানুষ যানজট মুক্ত মহাসড়ক দিয়ে যেন নিবিৃঘেœ বাড়ি ফিরতে পারে এবং পন্যবাহী গাড়ি থেকে চাঁদাবাজি বন্ধে কাজ করছে গৌরনদী হাইওয়ে থানা পুলিশ। আমরাও আমাদের পুলিশ সদস্যদের বলেছি চাঁদাবাজি ঠেকানোর পাশাপাশি পুলিশও যাতে অতীপ্রয়োজন ছাড়া পণ্যবাহী ট্রাক আটকে যেন চেক না করে। মহাসড়কে ডাকাতি প্রতিরোধ ও যানজট নিরসনে দিনরাত হাইওয়ে পুলিশ বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণের পাশাপাশি জনগণের জানমালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে।
তিনি আরও বলেন, যৌক্তিক কারণ ছাড়া ঈদের আগে তিন দিন, ঈদের পরে তিন দিন এই সাত দিন এক জেলা থেকে অন্য জেলায় মোটরসাইকের চলাচল করবে না এবং কোনও জরুরি কারণে এক জেলা থেকে অন্য জেলায় যেতে হলে তা পুলিশকে জানাতে হবে।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT