বাকেরগঞ্জে ব্যবসায়ীর হাতের রগ কর্তন বাকেরগঞ্জে ব্যবসায়ীর হাতের রগ কর্তন - ajkerparibartan.com
বাকেরগঞ্জে ব্যবসায়ীর হাতের রগ কর্তন

3:06 pm , June 25, 2022

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বাকেরগঞ্জের চরাদী ইউনিয়নের বলইকাঠীতে ইকবাল হোসেন সেন্টু মল্লিক নামে এক ব্যবসায়ীর হাতের রগ কেটে দিয়েছে সন্ত্রাসীরা। এর পরে তাকে লোহার রড ও লাঠি দিয়ে পিটিয়ে মৃত ভেবে ফেলে রাখে। স্থানীয়রা উদ্ধার করে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে অবস্থা আরো অবনতি হলে গুরুতর আহত সেন্টুকে ঢাকায় চিকিৎসা গ্রহণের পরামর্শ দেন শেবাচিমের কর্তব্যরত চিকিৎসক। বিকেলে বিমান যোগে মুমুর্ষ অবস্থায় সেন্টু মল্লিককে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নিয়ে যান স্বজনরা। শনিবার সকাল ৯টার দিকে বলইকাঠী মল্লিক বাড়ির পার্শ্বে এই হামলার ঘটনা ঘটে। সেন্টু মল্লিক বলইকাঠী এলাকার বীর মুক্তিযোদ্ধা মৃত ইউনুছ মল্লিকের ছেলে।
আহতর স্বজনরা জানান, সকালে সেন্টু মল্লিক তার জমির কাছে যায়। এ সময় পূর্ব বিরোধের জেরে পরিকল্পিত ভাবে ধারালো অস্ত্র ও দেশীয় অস্ত্র দিয়ে হামলা চালায় সন্ত্রাসীরা। পরিকল্পিত এই হামলায় ধারালো অস্ত্র সহ অংশ নেয় বলইকাঠী ইয়াছিন হাওলাদের পুত্র মোজাম্মেল ও জলিল, খোকন ডাকাতের স্ত্রী শাহানাজ বেগম, ইব্রাহীম হাওলাদারে পুত্র মিজান, আমীর আলীর পুত্র শিপলু, এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী বিপুল, রায়হান, কাশেম, বিউটি সহ বেশ কয়েকজন। তারা ব্যবসায়ী সেন্টুকে মৃত ভেবে ফেলে রেখে যায়। হত্যার উদ্দেশ্যেই পূর্ব পরিকল্পিতভাবে এই হামলা চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ করেন স্বজনরা।
চরাদী ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডে ইউপি সদস্য একে আজাদ চুন্নু বলেন, আমি হামলার খবর পেয়ে গিয়ে দেখি সেন্টু মল্লিক গুরুতর আহত। উদ্ধার করে তাকে শেবাচিম হাসপাতালে নিয়ে হয়। তার বাম হাতের রগ কেটে গেছে। চিকিৎসকদের পরামর্শে বিকেলে বিমান যোগে তাকে ঢাকা পাঠানো হয়েছে।
এ ব্যাপারে বাকেরগঞ্জ থানার ওসি আলাউদ্দিন মিলন বলেন, আমরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। তবে এখন পর্যন্ত কারো কাছ থেকে কোন লিখিত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT