বামনায় জমি বিরোধে মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ বামনায় জমি বিরোধে মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ - ajkerparibartan.com
বামনায় জমি বিরোধে মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ

3:30 pm , May 28, 2022

এম সাইফুল ইসলাম, বরগুনা ॥ বামনা উপজেলার উত্তর কাকচিড়া গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে মিথ্যা পুকুরের মাছ ও গাছ থেকে নারিকেল চুরির মামলা দিয়ে নিরীহ লোকদের হয়রানি করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। জানা যায়, উত্তর কাকচিড়া গ্রামের মৃত গোঞ্জে আলী প্যাদার ছেলে মোঃ শাহ আলম(৫৫) এর সাথে একই গ্রামের মৃত মোহাম্মদ হাওলাদারের ছেলে মোঃ ছালাম হাওলাদার (৪৫) এর দীর্ঘ দিন থেকে বাড়ির জমি বন্টনের বিরোধ চলছিল। শাহ আলমের পুকুরের মাছ ও নারিকেল গাছ থেকে নারিকেল চুরির দায়ে বামনা বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে চলতি বছরের ১৮ এপ্রিল সোমবার তিনি বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করে। মামলায় মোঃ সালাম হাওলাদারসহ তার আত্মীয়-স্বজন ও দরিদ্র পাড়া প্রতিবেশী মোট ৩ জনকে আসামি করা হয়। এছাড়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। আসামিদের অধিকাংশই দরিদ্র। থানা পুলিশের ভয়ে তারা স্বাভাবিকভাকে কাজকর্ম করতে পারছে না। মামলার আসামি সুলতান হাওলাদার জানান, মামলার বাদী শাহ আলম হাওলাদার বিভিন্ন সময় আমার পরিবারের সদস্যদের উপর হামলার চালায়। তার বিরুদ্ধে ২০১১ সালে বামনা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করি। এছাড়াও ফৌজদারী কার্যবিধি আইনের১০৭/১১৪/১১৭ (গ) ধারামতে বরগুনা বিজ্ঞ ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করি। উক্ত মামলার বর্ণনায় বলা হয় বিবাদীরা নিজেরা নিজেরা জখমও করিয়া অথবা বিবাদীরা মেয়ে মানুষ দিয়া নারী-শিশু মামলা দিয়ে জেল খাটাইবে। ধীরে ধীরে আরও বলে তারা আমার বাড়িঘর জ্বালিয়ে দিবে এবং আমার মেয়েকে স্কুলে যাওয়া আসার পথে থেকে কিডন্যাপ করিবে। এই মামলায় সকল বিবাদীরা আদালতে মুচলেকা দিয়ে আসে। সম্প্রতি একটি (পরিত্যক্ত) নর্দমাকে পুকুর বানিয়ে মাছ চুরির অভিযোগে আদালতে মিথ্যা মামলা দায়ের করেছেন। সত্যিকার অর্থে এই নর্দমায় ( পুকুর) বিগত ২০ বছরেও কোন মাছ চাষ করে নেই। পরিত্যক্ত নর্দমা টি জোয়ার ভাটার খালের সাথে সংযুক্ত আছে।পরিত্যক্ত পুকুরে মাছ না থাকার পরেও মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করেছেন যা ইতিমধ্যে স্থানীয় ইউপি সদস্য ও ইউপি চেয়ারম্যান অবগত আছেন। মাছ চুরির কোন ঘটনা ঘটে নাই। অপরদিকে মামলার বাদী শাহ আলম হাওলাদার বলেন, মামলায় যে বিষয়গুলো উল্লেখ করা হয়েছে এগুলো সত্য ঘটনা। এখানে মিথ্যার কিছু নাই। বামনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ বশির আলম বাংলানিউজকে জানান, এ বিষয়ে থানায় কেউ অভিযোগ করেননি। কেউ যদি লিখিত অভিযোগ করে আমরা তদন্তসাপেক্ষে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT