রাজধানীর দুই হত্যা মামলার ফাঁসির দন্ডিত আসামী গ্রেপ্তার রাজধানীর দুই হত্যা মামলার ফাঁসির দন্ডিত আসামী গ্রেপ্তার - ajkerparibartan.com
রাজধানীর দুই হত্যা মামলার ফাঁসির দন্ডিত আসামী গ্রেপ্তার

3:30 pm , May 18, 2022

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ রাজধানীর দুই হত্যা মামলার ফাঁসির দন্ডে দন্ডিত পলাতক আসামীকে বরিশালের উজিরপুর থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বুধবার বেলা ১১ টার দিকে আসামী কামাল হোসেন সিকদার ওরফে পাভেলকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে উজিরপুর মডেল থানার ওসি আলী আর্শেদ জানিয়েছেন। তিনি জানান, গ্রেফতারকৃত পাভেল উজিরপুরের ধামুরা এলাকার মৃত সিদ্দিকুর রহমান সিকদারের ছেলে। সে ঢাকার শীর্ষ সন্ত্রাসী ক্রসফায়ারে নিহত রোজেনের সহযোগি। মতিঝিল ও শ্যামপুর থানায় দায়ের হওয়া দুইটি হত্যা মামলার মৃত্যু দন্ডে দন্ডিত আসামী পাভেল।
এ ঘটনায় বিকেলে সংবাদ সম্মেলন করেছে বরিশাল জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়। সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইকবাল হোসাইন বলেন, পাভেল ঢাকার মতিঝিল ও শ্যামপুর এলাকার শীর্ষ সন্ত্রাসী ছিলো। কেউ তাকে চাঁদা না দিলে গুলি করে হত্যা করতো। এরই ধারাবাহিকতায় ২০০৮ সালের ১৩ আগষ্ট সকালে ঢাকার শ্যামপুরে তমা নামক হোটেলের মালিক ফরিদ সরদারকে এবং পরের বছর ২০০৯ সালের ৪ এপ্রিল দুপুরে ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার অফিসের প্রশাসনিক কর্মকর্তা আমিনুল খাদেমকে গুলি করে হত্যা করে। উভয় ঘটনায় মামলা দায়ের করা হলে উচ্চ আদালত তাকে মৃত্যুদন্ড প্রদান করে। সংবাদ সম্মেলনে আরো জানানো হয় পাভেল ঘটনার পর থেকেই পলাতক ছিলো। তিনি বিভিন্ন সময় দেশের বিভিন্ন স্থানে ছদ্মবেশে আতœগোপনে ছিলেন। তাকে গ্রেফতারের জন্য দেশের সব থানায় বার্তা দেওয়া হয়।
ওই বার্তা পেয়ে তার সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহের জন্য উজিরপুর থানা পুলিশ সোর্স নিয়োগ করে। সেই সোর্সের দেয়া তথ্য জানতে পারেন তার আপন চাচা ও শ্বশুর আবুল হোসেন সিকদারের জানাজায় অংশ গ্রহন করবে। এমন তথ্যের ভিত্তিতে ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে শোলক ইউনিয়নের ধামুরা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT