গৌরনদীতে ছাত্রলীগ নেতার পায়ের রগ কর্তন মামলার প্রধান আসামি গ্রেপ্তার গৌরনদীতে ছাত্রলীগ নেতার পায়ের রগ কর্তন মামলার প্রধান আসামি গ্রেপ্তার - ajkerparibartan.com
গৌরনদীতে ছাত্রলীগ নেতার পায়ের রগ কর্তন মামলার প্রধান আসামি গ্রেপ্তার

3:09 pm , May 8, 2022

গৌরনদী প্রতিবেদক ॥ এলাকায় আধিপত্য বিস্তারের বিরোধকে কেন্দ্র করে শনিবার রাতে বরিশালের গৌরনদীতে এক ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম করে বা পায়ের প্রধান রগ কর্তন করে বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ছাত্রলীগ নেতার বড় ভাই মোঃ রাব্বি সরদার বাদি হয়ে ১২ জন ছাত্রলীগ ও যুবলীগ নেতাকর্মীকে আসামি করে গতকাল রোববার গৌরনদী মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে। ওই দিন পুলিশ মামলার প্রধান আসামি ছাত্রলীগ নেতা সাইফুল ইসলামকে (২৫) গ্রেপ্তার আদালতে সোপর্দ করেছে। এদিকে ছাত্রলীগ নেতার রগ কর্তনের প্রতিবাদে বিক্ষুব্ধ সমর্থকরা এক এজাহার নামীয় আসামির বাড়িতে হামলা চালিয়ে বসতঘর ভাঙচুর ও তিন জনকে আহত করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রত্যক্ষদর্শী, স্থানীয় লোকজন, আহত ও পুলিশ জানান, এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে গৌরনদী উপজেলার চাঁদশী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সদস্য ও মাহিলাড়া ডিগ্রী কলেজের একাদশ শ্রেনীর ছাত্র মোঃ ফাহিম সরদারের (২১) সঙ্গে একই ইউনিয়নের ছাত্রলীগ কর্মী সাইফুল ইসলামের (২৫) দীর্ঘদিন যাবত বিরোধ চলে আসছিল। দুজনে এলাকায় দুটি গ্রুপ পরিচালনা করে যা নিয়ে একাধিকবার সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে। এজাহারে বাদি উল্লেখ করেন, শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে ছোট ভাই কলেজ ছাত্র মোঃ ফাহিম সরদার তার সহযোগী জাহিদুল ইসলাম (২৪), মেহেদী হাসান (২০) ও মারুফ সরদারকে (২০) নিয়ে টেক্সটাইল কলেজ এলাকা থেকে বাড়িতে যাওয়ার পথে দক্ষিন চাঁদশী কুমারভাঙ্গা সেতুর উপর পৌছলে প্রতিপক্ষ সাইফুল ইসলামের নেতৃত্বে নীল মনি মন্ডল (২০) ও সজীব মন্ডলসহ (২০) ৭/৮ জন সন্ত্রাসী লোহাররড, লাঠিসোটা ও দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে পথরোধ করে হামলা চালায়। হামলাকারীরা পিটিয়ে কুপিয়ে তিন জনকে আহত করেছে। এক পর্যায়ে ফহিমের শরীরের একাধিক স্থানে কুপিয়ে জখম করে বা পায়ের প্রধান রগ কর্তন করে বিচ্ছিন্ন করে দেয়। আহত ফাহিম সরদার অভিযোগ করে বলেন, হামলাকারীরা এলাকায় চাঁদাবাজি, ছিনতাই, মেয়েদের উত্যক্তসহ অনৈতিক কাজ করে আসছিল। আমি প্রতিবাদ করায় প্রতিপক্ষ সাইফুল ইসলামের নেতৃত্বে আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে পরিকল্পিতভাবে হামলা চালিয়ে মাথায় আঘাত করে কুপিয়ে রক্তাক্ত এবং পায়ের রগ কর্তন করেছে। গৌরনদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডাঃ দেওয়ান আব্দুস সালাম বলেন, রোগীর বা পায়ের প্রধান রগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে বিধায় প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে জরুরী ভিত্তিতে রাতেই বরিশাল শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। শের ই বাংলা মেডিলে কলেজের চিকিৎসক ডাঃ নাজমুল হোসেন জানান, রোগীর পায়ে অস্ত্র পাচার করার পরে পর্যবেক্ষনে রয়েছে। গৌরনদী উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক মোঃ লুৎফর রহমান বলেন, আমার জানামতে ওরা ছাত্রলীগের কেউ নয় এবং ব্যক্তিগতভাবে চিনি না। অভিযোগের ব্যপারে জানতে চাইলে থানা হাজতে সাইফুল ইসলাম বলেন, হামলার ঘটনায় আমি জড়িত নই। অভিযুক্ত নীল মনি মন্ডলের কাছে ফোন করলে তা বন্ধ পাওয়া যায়। তবে নীল মনি মন্ডলের বাবা বিনোদ মন্ডল ঘটনায় ছেলে জড়িত থাকার কথা অস্বীকার করে বলেন, ফাহিমকে কুপিয়ে জখম করার ঘটনার জের ধরে শনিবার রাতে স্থানীয় সাবেক ইউপি সদস্য লিটন সরদারের নেতৃত্বে ১৫/২০ সন্ত্রাসী বাড়িতে হামলা চালিয়ে বসত ঘর ভাঙচুর করে আমার স্ত্রী সু-প্রভা রানী মন্ডল (৩৮), কন্যা রাশ মনি মন্ডল (১৬) ও বড় ভাই শম্ভু মন্ডলকে (৬৫) পিটিয়ে আহত করেছে। লিটন সরদার এ অভিযোগ অস্বীকার করেছে। গৌরনদী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ আফজাল হোসেন বলেন, রগ কর্তনের ঘটনায় আহতের বড় ভাই মোঃ রাব্বি সরদার (২৭) বাদি হয়ে সাইফুল ইসলামে প্রধান ও ৪ জনের নাম উল্লেখসহ ১২ জনকে আসামি করে রোববার থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে। মামলার এজাহার নামীয় প্রধান আসামি সাইফুল ইসলামকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে রোববার বরিশাল চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেড আদালতে সোপর্দ করলে বিচারকে তাকে বরিশাল কেন্দ্রীয় কারাগারে প্রেরন করেছে।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT