ভান্ডারিয়ায় ঈদের শেষ মুহুর্তে ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড় ভান্ডারিয়ায় ঈদের শেষ মুহুর্তে ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড় - ajkerparibartan.com
ভান্ডারিয়ায় ঈদের শেষ মুহুর্তে ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড়

3:33 pm , April 30, 2022

ভা-ারিয়া প্রতিবেদক ॥ ভা-ারিয়ায় ঈদের কেনা কাটায় ব্যস্ত সময় পার করছে ক্রেতা বিক্রেতারা। ঐতিহ্যবাহী ভা-ারিয়া বাজারে এ উপজেলা ছাড়াও পাশ্ববর্তী বিভিন্ন উপজেলার বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ তাদের পরিবারের সদস্যদের জন্য সাধ্যানুযায়ী কেনা কাটা করে থাকেন। শনিবারসহ বেশ কয়েকদিন বাজার ঘুরে হোসেন প্লাজা, আদি বস্ত্রালয়, দিংকর টেইলার্স এন্ড গার্মেন্টস, বিসমিল্লাহ গার্মেন্টস, শুসিল কসমেটিক্স, তালুকদার, মুক্তা গার্মেন্টস সহ বাজারের বিভিন্ন শপিংমল, বিপনি বিতান এবং ফুটপাতের দোকান গুলোতে ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। আলাপ কালে হোসেন প্লাজার ব্যবসায় সোহেল সিকদার, রুবেল খান, সানু আকন সহ বেশ কয়েক দোকানি জানান, মফস্বল এলাকায় চলন্ত সিড়ি, লিফট থাকায় এ উপজেলা ছাড়াও পাশ্ববর্তী বিভিন্ন উপজেলার সম্ভ্রান্ত ও অভিজাত পরিবার ছাড়াও বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ এখানে স্বস্তিতে সুলভ মূল্যে কেনা কাটা করতে পাড়ায় প্রতিদিন সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত এবং সন্ধ্যা থেকে অধিক রাত পর্যন্ত চলে কেনা বেচা। বাজারের আদি ব্যবসায়ী দিপংকর মিস্ত্রি জানান, করোনার কারনে গত দুই বছর বেচা কেনা ভালো ছিল না। এ বছর এ উপজেলার সব দোকানেই রাত পর্যন্ত ভালো বেচা কেনা হয়। এ বছর জারা, সাহারা, কাচা বাদাম সহ বিভিন্ন ধরনের রকমারি পোষাক পাওয়া যায়। দাম এবং চাহিদার মধ্যে বিস্তর ফারাক না থাকায় ভালো বেচা কেনা হয়। এদিকে ঈদের আর মাত্র এক দিন বাকি থাকায় ঈদে প্রথম হলো পোষাক। তাই শ্রেণি ভেধে সব পরিবারের শেষ মুহুর্তে কসমেটিক্স ,গহনা কেনায় ব্যস্ত সময় পার করছে নারীরা। এবং পুরুষ টুপি ,আতর সহ ঈদের দিনের নাস্তার বিভিন্ন জিনিসপত্র ক্রয় করছে বলে জানান ব্যবসায়ীরা। অন্যদিকে দুই বছর পর পরিবারের সকলের সাথে একত্রে ঈদ উদ্যাপন করতে কর্মস্থল থেকে আগে ভাগেই গ্রামে আসতে শুরু করছে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার কর্মজীবীরা। তার প্রভাব পড়ছে স্থানীয় দোকান ,সপিংমল ,বিপনি বিতান গুলোতে। ভা-ারিয়া থানর ওসি মো. মাসুমুর রহমান বিশ্বাস জানান, দুই বছর পরে এত আনন্দঘন পরিবেশে পরিবারের সাথে ঈদ করতে পাড়ায় বিভিসন্ন কর্মস্থল থেকে তারা অনেকটা আগেই বাড়ি আসতে শুরু করছে। তাই তারা যেন শান্তিপূর্ণ ভাবে স্বস্তিতে কেনা কাটা করতে পারে এ জন্য বাজার এবং ঘরমুখো মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে লঞ্চঘাট,বাসস্ট্যান্ডে অতিরিক্ত পুলিশ তোমায়েন করা হয়েছে। ওই কর্মকর্তা আরো জানান, যদিও এ উপজেলায় সবাই শান্তিপূর্ণ সহাবস্থানে বসবাস করে আসছে । তবুও যদি বাহিরের কোন লোক এ সম্প্র্রিতি নষ্টের চেষ্টা করে সে জন্য একটু সতর্ক থাকা।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT