ভোলার দৌলতখানের আলোচিত মামলায় সাইবার আইনে যুবকের কারাদন্ড ভোলার দৌলতখানের আলোচিত মামলায় সাইবার আইনে যুবকের কারাদন্ড - ajkerparibartan.com
ভোলার দৌলতখানের আলোচিত মামলায় সাইবার আইনে যুবকের কারাদন্ড

3:48 pm , April 24, 2022

 

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বোরহানউদ্দিন উপজেলায় অন্যের ফেসবুক একাউন্ট হ্যাক করে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানা ও আইনশৃংখলার অবনতি ঘটানোর মামলার রায়ে অভিযুক্ত বাপন দাসকে ৮ বছরের কারাদ- ও ৩ লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ২ বছরের কারাদন্ড দেয়া হয়।
এছাড়া আরো দু’টি ধারায় আসামী বাপনকে ২ বছরের কারাদ- ও ১ লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে ৬ মাসের এবং ৪ বছরের সশ্রম কারাদ- ও ১ লাখ টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে ৬ মাসের কারাদ- দেয়া হয়। রোববার দুপুরে বরিশাল সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক গোলাম ফারুক আসামীর উপস্থিতিতে এই রায় ঘোষনা করেন। আদালতের স্পেশাল পাবলিক প্রসিকিউর ইসতাক আহমেদ রুবেল জানিয়েছেন,২০১৯ সালের ১৮ অক্টোবর বিপ্লব চন্দ্র শুভ নামে একটি ফেসবুক আইডি থেকে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের অভিযোগ ওঠে। এই ঘটনায় ওই দিনই বিপ্লব চন্দ্র তার ফেসবুক আইডি হ্যাক হয়েছে বলে বোরহানউদ্দিন থানায় জিডি করেন। এ ঘটনায় বিপ্লব চন্দ্র, মোঃ ইমন, মোঃ রাফসান নামে ৩ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তবে তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় ওই ৩ জনকে অব্যাহতি দেয়া হয়। তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় ২০২০ সালের ২৬ জানুয়ারি এই ঘটনার সাথে জড়িত থাকায় বাপন দাস নামে একজন হ্যাকারকে গ্রেফতার করে পুলিশ। সে ১৬৪ ধারায় জবাববন্দি প্রদান করে। আদালতে তার বিরুদ্ধে ২০২১ সালের পহেলা আগস্ট অভিযোগপত্র দেয়া হয়। ১১ জনের সাক্ষ্যগ্রহন শেষে বিচারক ওই রায় দেন। ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার প্রতিবাদে ২০১৯ সালের ২০ অক্টোবর বোরহানউদ্দিন ঈদগাহ মাঠে তৌহিদি জনতার ব্যানারে বিক্ষোভ হয়। সে সময়ে পুলিশের সাথে সংঘর্ষে হয়। গুলিতে ৪ জন নিহত হন। ওই ঘটনায় বোরহানউদ্দিন থানায় আরও দুটি পৃথক মামলা দায়ের হয়। যা এখনো আদালতে বিচারাধীন।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT