বিএনপির তথ্য সংগ্রহ ফরম বিতরণ অনুষ্ঠান থেকে অভিমান নিয়ে মঞ্চ ত্যাগ করলেন এবায়দুল হক চাঁন বিএনপির তথ্য সংগ্রহ ফরম বিতরণ অনুষ্ঠান থেকে অভিমান নিয়ে মঞ্চ ত্যাগ করলেন এবায়দুল হক চাঁন - ajkerparibartan.com
বিএনপির তথ্য সংগ্রহ ফরম বিতরণ অনুষ্ঠান থেকে অভিমান নিয়ে মঞ্চ ত্যাগ করলেন এবায়দুল হক চাঁন

4:05 pm , March 20, 2022

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ নগরীতে মহানগর বিএনপির আয়োজিত অনুষ্ঠানে দক্ষিন জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতিকে মঞ্চের পিছনের সারিতে আসন দেয়া হয়েছে। এতে ক্ষোভে মঞ্চসহ অনুষ্ঠান স্থান ত্যাগ করেছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির বর্তমানে নির্বাহী কমিটির সদস্য এবায়দুল হক চাঁন। এ নিয়ে নেতাকর্মীদের মধ্যে দেখা দিয়েছে নানা প্রশ্ন।
এবিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মহানগর বিএনপির একাধিক নেতাকর্মীরা বলেন, নিজেদের মধ্যে বিরোধ থাকার কারনেই মনে হয় এবায়দুল হক চাঁন ভাইর জন্য মঞ্চের পিছনে চেয়ার রাখা হয়েছে। তাই তিনি মনে কষ্ট নিয়ে মঞ্চ থেকে নেমে চলে যান। তারা আরো বলেন, দলের সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব এ্যাড. রুহুল কবির রিজভী মহানগর বিএনপির ৩০টি ওয়ার্ডের কমিটি গঠন করার লক্ষে তথ্য সংগ্রহ ফরম বিতরণ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন। সেখান থেকে কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য এবায়দুল হক চাঁন কাউকে কিছু না বলে চলে যাওয়াটা তো নেতাকর্মীদের মধ্যে প্রশ্ন হয়েই দাড়ায়। তথ্য সংগ্রহ ফরম বিতরন অনুষ্ঠান থেকে চলে যাওয়ার বিষয়টি সম্পর্কে জানতে চাইলে কেন্দ্রীয় বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য এবায়দুল হক চাঁন বলেন, আমার একটা দাওয়াত ছিলো। আমার জন্য মঞ্চের পিছনে আসনও রাখা ছিলো। তবে ব্যক্তিগত কাজ থাকার কারনে মঞ্চ থেকে নেমে চলে আসছি। তবে কোন অভিমান নিয়ে আসিনি। মঞ্চ থেকে কাউকে কিছু না বলে এবায়দুল হক চাঁন চলে আসছেন কেন জানতে চাইলে মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব মীর জাহিদুল কবির জাহিদ বলেন, কেন তিনি চলে গেছেন তা আমার জানা নেই। তবে এক নেতার কাছ থেকে জানতে পারলাম তার নাকি জরুরি কাজ রয়েছে। তাই তিনি মঞ্চ থেকে চলে গেছেন। বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য মেজবাহ উদ্দিন ফরহাদ সাথে কথা হলে তিনি বলেন, তথ্য সংগ্রহ ফরম বিতরণ কার্যক্রম অনুষ্ঠানে এবায়দুল হক চাঁন আসছিলেন। তবে তাকে পিছনে বসতে দেওয়ার কারনে তিনি মঞ্চ থেকে নেমে চলে যায়। বিষয়টি আমার কাছেও খারাপ লেগেছে। মহানগর বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক আলতাফ মাহামুদ সিকদার বলেন, আমি লক্ষ করেছি মঞ্চে চাঁন ভাই থাকাকালীন তার মন ভালো ছিলো না। তবে কি কারনে তিনি চলে গিয়েছেন তা বলতে পারি না। বিষয়টি সম্পর্কে জানতে চাইলে কেন্দ্রীয় বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাড. বিলকিস জাহান শিরিন বলেন, আমি আসলে এ ব্যাপারটা জানি না। তবে চাঁন ভাই আসছিলেন। কি কারনে চলে গেছেন তা আমার জানা নেই। তবে কোন ব্যক্তিগত অথবা পরিবারিক কাজ থাকতে পারে সেজন্য মনে হয় চলে গেছে। তবে তাকে পিছনে চেয়ার দেওয়ার কারনে যে চলে গেছে তা আমি জানি না।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT