চরবাড়িয়া ইউনিয়নের উলাল বাটনা গ্রামের রাস্তায় বিদেশীনী বধু চরবাড়িয়া ইউনিয়নের উলাল বাটনা গ্রামের রাস্তায় বিদেশীনী বধু - ajkerparibartan.com
চরবাড়িয়া ইউনিয়নের উলাল বাটনা গ্রামের রাস্তায় বিদেশীনী বধু

3:28 pm , March 9, 2022

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ কবির এই কবিতার স্বাদ নিয়েই বুঝি ঘরছাড়া, তারপর দেশছাড়া একজন বাঙালি ও জার্মানি প্রেমিক-প্রমিকা রাকিব ও আলিসা থেওডোরা পিত্তা।
জার্মানির এই দম্পতি দেশ ছেড়ে প্রেমের টানে ছুটে এসেছেন বাংলাদেশের ধান-নদী-খালের বরিশালে। সদর উপজেলার চরবাড়িয়া ইউনিয়নের ইতালি শহিদের ছেলে রাকিব হোসেন শুভকে জার্মানিতে বসেই বিয়ে করেছেন আলিসা। হয়েছেন ধর্মান্তরিত। ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে পিত্তা গত ৪ মার্চ বিকালে স্বামী রাকিবকে নিয়ে বাংলাদেশের হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আসেন। ইচ্ছে তাদের ২য় বিবাহবার্ষিকী স্বামীর আত্মীয়স্বজনের সাথে উদযাপন করা। গত ৫ মার্চ সকালে হেলিকপ্টারযোগে বরিশালে আসেন এই নবদম্পতি। ঘটনাটি ব্যতিক্রমী! তাই বিদেশি বধূ নিয়ে আসার খবর পেয়ে দলবেঁধে তাদের দেখতে এসেছে গ্রামবাসীসহ আশেপাশের এলাকার উৎসাহী জনতা। এসেছেন সাংবাদিকরাও। ইউটিউবের জনপ্রিয়তা বাড়াতে টেলিভিশন চ্যানেলগুলোও বাদ পরেনি এই নবদম্পতিকে ধারণ ও প্রচারণার সুযোগ থেকে। গ্রামে পৌঁছতেই নববধূকে ফুল দিয়ে বরণ করেন রাকিব ওরফে শুভ এর বাবা-মা ও স্বজনরা।
শুভর সাথে কথা বলে জানা গেল, প্রেমের সম্পর্কের সূত্র ধরে জার্মানির তরুণী আলিসাকে বিয়ে করেছেন শুভ। তবে সেখানে গত দুবছরেও বিয়ের অনুষ্ঠান করা হয়নি। এজন্য বিবাহবার্ষিকী পালন উপলক্ষ্যে গ্রামের বাড়িতে এসেছেন। এখানে ৯ মার্চ থেকে ১৫ মার্চ পর্যন্ত গায়ে হলুদ, বউভাতসহ সবজাতীয় অনুষ্ঠানের আয়োজন করবেন তারা। সে অনুযায়ী ৯ মার্চ গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানে ভিড় করে সাংবাদিকসহ আশেপাশের এলাকার সাধারণ মানুষ।
শুভ বরিশালের চরবাড়িয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলামের ছেলে। রেলওয়ে ডিপ্লোমা পাস করে ২০১১ সালে জার্মানিতে পাড়ি জমান। সেখানে সিটি রেলওয়ে সার্ভিসের সুপারভাইজার হিসেবে কাজ নেন। একপর্যায়ে স্থানীয় বেইলি ফিল্ড ডায়ালন্ড্রোভ এলাকার বাসিন্দা আলিসা থেওডোরা পিত্তার সঙ্গে পরিচয় হয়। আলিসা পেশায় নার্স। তার বাবা ও মা সেখানের চাকরিজীবী। শুভ বলেন, গত বছরের ৫ মার্চ আলিসা ইসলাম ধর্মগ্রহণ করে আলিসা বেগম হিসেবে আমার সঙ্গে বিয়ে-বন্ধনে আবদ্ধ হন। গত ৫ মার্চ শনিবার ছিল আমাদের বিবাহবার্ষিকী। তাই জার্মানি থেকে রওনা হয়ে বাংলাদেশে আসি। বাবা-মা ও আত্মীয়দের সাথে আলিসার পিত্তার পরিচয় করিয়ে দেয়ার পাশাপাশি নিজ জন্মস্থানটি দেখানো। আলিসার সঙ্গে এসেছে তার বান্ধবী লেইসা। শুভ বলেন, আমরা বিয়ে করেছি বিদেশে। সেখানে আমাদের সমাজের যে রীতিনীতি ও উৎসব তা পালন করতে পারিনি। আমাদের দেশের বিয়েতে যতটা উৎসব হয়, তাও হয়নি। রাকিব হাসান শুভ এর বাবা শহীদুল ইসলাম চরবাড়িয়া ইউনিয়নের উলাল বাটনা গ্রামের বাসিন্দা। তিনি দীর্ঘ সময় ইতালীতে বাস করার কারণে এলাকাবাসী তাকে ইতালি শহীদ নামেই জানেন। বাবা শহীদ তার সন্তানের এই বিয়ে ও বিদেশী বউ নিয়ে গ্রামে আসায় খুবই খুশী। তিনি জানান, জার্মানির ডুসলড্রপের বেলিফিল্ডের রেলওয়েতে কাজ পেলে ছেলে জার্মানি চলে যায়। সেখানে এক বৃদ্ধ দম্পতির সাথে থাকতো ছেলে রাকিব হাসান। পরে ঐ বৃদ্ধ দম্পতি রাকিবের সাথে আনুষ্ঠানিক ভাবে মিত্তার বিয়ে ঠিক করে। আমাদের শর্ত ছিলো মেয়ে জার্মানির স্থানীয় এবং মুসলিম হতে হবে। মেয়ের পরিবার সে শর্ত মেনে নিয়ে মেয়েকে মুসলিম হতে সাহায্য করেছে। এজন্য আল্লাহর কাছে হাজার শুকরিয়া জানান শহীদুল ইসলাম। তিনি আরো বলেন, সেইমতে ২০২০ সালের ১৫ মার্চ ওদের বিয়ে হয়েছে। ওদের ঘরে একটি সন্তানও এসেছে। আমরা ওর নাম রেখেছি ইলিয়াস হাসান। আমার নাতির বয়স মাত্র ছয়মাস এখন।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT