পুলিশ সদস্যর বিরুদ্ধে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ পুলিশ সদস্যর বিরুদ্ধে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ - ajkerparibartan.com
পুলিশ সদস্যর বিরুদ্ধে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ

3:40 pm , February 27, 2022

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন) এক পুলিশ কনস্টেবলের বিরুদ্ধে গৃহবধূকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযুক্ত কমলেশ রায় (৩৪) নামের ওই কনস্টেবল বর্তমানে বরিশাল ১০ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নে কর্মরত রয়েছেন। সে উজিরপুর উপজেলার জল্লা ইউনিয়নের কারফা গ্রামের বাসিন্টদা। শনিবার রাতে লিখিত অভিযোগ প্রাপ্তির সত্যতা স্বীকার করে উজিরপুর মডেল থানার ওসি আলী আরশাদ বলেন, শুক্রবার দিবাগত রাতের ঘটনায় ভুক্তভোগী গৃহবধূ (৩২) বাদী হয়ে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে কমলেশ রায়ের বিরুদ্ধে শনিবার বিকেলে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।
অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, জল্লা ইউপির ভাউধর গ্রামের ওই গৃহবধূ স্থানীয় এক দিনমজুরের স্ত্রী ও দুই সন্তানের জননী। অভিযুক্ত পুলিশ সদস্য কমলেশ একই ইউনিয়নের কারফা গ্রামের কৃষ্ণ কান্ত রায়ের ছেলে এবং ভুক্তভোগী গৃহবধূর প্রতিবেশী ভক্ত রায়ের মেয়ে জামাতা। সে সুবাধে দীর্ঘদিন থেকে কমলেশ ওই গৃহবধূকে কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিলেন। তার (কমলেশ) প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় গৃহবধূর স্বামীকে মাদক মামলা দিয়ে হয়রানির হুমকি দেয়া হয়।
সূত্রে আরও জানা গেছে, গত শুক্রবার দিবাগত রাত আটটার দিকে ওই গৃহবধূর স্বামী ও সন্তানরা বাড়িতে না থাকার সুযোগে কমলেশ গৃহবধূর বসতঘরে প্রবেশ করে বিভিন্নধরনের ভয়ভীতি প্রদর্শন করে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। এ সময় গৃহবধূর ডাক-চিৎকারে তার ভাসুর (স্বামীর বড় ভাই) অবসরপ্রাপ্ত কলেজ শিক্ষক রমেশ বাড়ৈ ঘটনাস্থলে ছুটে এসে গৃহবধূকে রক্ষার চেষ্টা করেন। এতে অভিযুক্ত কমলেশ রায় ক্ষিপ্ত হয়ে রমেশ বাড়ৈকে মারধর করে। বর্তমানে তিনি (রমেশ) উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
অভিযোগের বিষয়ে কমলেশ রায়ের সাথে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি। তবে তার শ্যালক সুবাস রায় বলেন, তার বোন জামাতার বিরুদ্ধে মিথ্যে অপপ্রচার করা হচ্ছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT