ভোলায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর গাড়ীতে গুলি, ভাংচুর, সংঘর্ষে আহত-৩৫ ভোলায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর গাড়ীতে গুলি, ভাংচুর, সংঘর্ষে আহত-৩৫ - ajkerparibartan.com
ভোলায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর গাড়ীতে গুলি, ভাংচুর, সংঘর্ষে আহত-৩৫

3:25 pm , December 30, 2021

 

মো: আফজাল হোসেন, ভোলা ॥ পঞ্চম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে ঘিরে ভোলায় বাড়ছে ব্যাপক সহিংসতা। সদর উপজেলার পূর্ব ইলিশা, দক্ষিন দিঘলদী ও চর সামাইয়া এবং আলী নগর ইউনিয়নে গুলি, হামলা, সংঘর্ষ ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। এসব ঘটনায় অন্তত ৩৫ জন আহত হয়েছে। আহতদের ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ভোলা সদরের পূর্ব ইলিশায় বুধবার সন্ধ্যার আগ মুহুর্তে ইলিশা পুলিশ ফাঁড়ির সামনে প্রকাশ্যে নৌকার সমর্থকরা স্বতন্ত্র প্রার্থী আনোয়ার হোসেন ছোটনের নির্বাচনী প্রচারণার গাড়িতে গুলির ঘটনা ঘটে। পরে দ্রুত পাশেই পুলিশ ফাঁড়িতে আশ্রয় নিয়ে রক্ষা পায়। মটরসাইকেলে বসা হেলমেট পড়া ব্যক্তির ছোড়া গুলিতে অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে গেছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী আনোয়ার হোসেন ছোটন। তবে ব্যবহৃত মাইক্রোর পিছনের গ্লাস ভেঙ্গে যায়। বেশ কয়েক রাউন্ড গুলি ছোড়ার শব্দ পাওয়া যায়। স্বতন্ত্র প্রার্থী আনোয়ার হোসেন ছোটন দাবী করেন, নৌকা প্রতীকের ভাড়াটে গুন্ডারা এই হামলা চালায়। প্রশাসনের দ্বারা ৫ দিন প্রচারনা বন্ধ রাখার পর বের হয়েই গুলি ও হামলার শিকার হয়েছেন। প্রতিদিন গুলি, বোমা হামলা, প্রচারনায় বাঁধা, মাইক ভাংচুর করছে নৌকা মার্কা প্রার্থীর বহিরাগত সন্ত্রাসীরা বলে তিনি অভিযোগ করেন। তিনি বলেন, দ্রুত সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করে নির্বাচনী পরিবেশ ফিরিয়ে আনাসহ তার জীবনের নিরাপত্তার দাবী করেন। নৌকা প্রতীকের প্রার্থী সোহরাওয়াদ্দীকে না পেলে তার ছেলে আল নোমান বলেন, স্বতন্ত্র প্রার্থীর ছোটনসহ সন্ত্রাসীরা ইলিশ পুলিশ ফাঁড়িতে আশ্রয় নিয়ে অস্ত্র বের করে তাদের দিকে তাক করে। এছাড়া তাদের বাড়ির সামনে বোমা হামলাসহ তাদের নির্বাচনী কার্যলয় ভাংচুর করেছে। এসব ঘটনায় বর্তমানে ইলিশায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।
এদিকে রাতে দক্ষিন দিঘলদী ইউনিয়নের বটতলা নামক স্থানে সতন্ত্র প্রার্থী নওশাদ হোসেন এর সমর্থকক কাওসার নামের এক বৃদ্ধাকে ঘর থেকে তুলে এনে মারধোরের ঘটনা ঘটেছে। এছাড়া চরসামাইয়া ইউনিয়নে বিএনপি বাজার এলাকায় মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে হেলাল উদ্দিন,রিপন,সাইফুল,ইসমাঈল,মুন্না,আবিদসহ অন্তত ১৫জন আহত হয়।আহতদের রাতে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
এছাড়া বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় র্নিবাচনী প্রচারনাকে কেন্দ্র করে ভোলার আলী নগরে সকাল ৯টায় দুই মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকদের মাঝে ব্যাপত সংঘর্ষ হয়েছে। এতে উভয় পক্ষের অন্তত ২০জন আহত হয়েছে। আহতদের ভোলা সদর হাসপাতালেভর্তী রাহয়েছে।
আহতরা জানান, সকালে ৯টায় ভোলা সদর উপজেলার আলী নগর ইউনিয়নের ডাক্তার বাড়ির সামনে তালা র্মাকার প্রার্থী আবু ফরাজী প্রচারনায় গেলে মোরগ র্মাকার প্রার্থীর সাথে কথা কাটাকাটির এক পর্যায় সংঘর্ষ শরু হয়। এতে তালা মার্কার প্রার্থী আবু ফরাজীসহ উভয় পক্ষের অন্তত ২০জন আহত হয়। আহতদের স্থানীয়রা উদ্ধার করে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এসব বিষয় ভোলা সদর মডেল থানার ওসি মো: এনায়েত হোসেন বলেন,নির্বাচন নিয়ে কোন সমস্যা নেই। দক্ষিন দিঘলদী,চরসামাইয়া ও আলী নগরের ঘটনা ঘটার সাথে সাথে পুলিশ গিয়েছে। পরিস্থতি নিয়ন্ত্রন করেছে। আমরা সব বিষয় নজর রাখছি। তবে বিশেষ করে পূর্ব ইলিশার বিষয়টি নিয়ে একটি বেশি সতর্ক অবস্থানে রয়েছি। ভিডিও ফুটেজ হাতে পেলে প্রয়োচনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। এক পক্ষ থেকে লিকিত অভিযোগ পেয়েছি।

এই বিভাগের আরও খবর

বসুন্ধরা বিটুমিন

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT