এবার সাগর দস্যুমুক্ত করার অভিযানে র‌্যাব এবার সাগর দস্যুমুক্ত করার অভিযানে র‌্যাব - ajkerparibartan.com
এবার সাগর দস্যুমুক্ত করার অভিযানে র‌্যাব

2:42 pm , December 3, 2021

অস্ত্রসহ ৫ দস্যু আটক

বিশেষ প্রতিবেদক ॥ র‌্যাবের ব্যাপক অভিযানে দস্যুমুক্ত সুন্দরবন এখন পর্যটকদের নিয়মিত উপভোগ্য এলাকায় পরিনত হয়েছে। র‌্যাবের একের পর এক অভিযানে সুন্দরবনে টিকতে না পেরে জলসদ্যুরা এখন সাগরে অবস্থান নিয়েছে। আর তাই এবার সাগর দস্যুদের ধরতে মাঠে নেমেছে র‌্যার। সাগর দস্যুদের কয়েকটি বাহিনী গড়ে উঠেছে। গড়ে উঠেছে ৮ থেকে ১০ জনের কয়েকটি উপদল। এই উপদলগুলোর কয়েকটিতে রয়েছে ২ থেকে ৩ সদস্যের। এরা সাগরে জেলে নৌকা বা ট্রলারে হামলা চালিয়ে লুট চালায় এবং প্রতিটি নৌকা বা ট্রলার থেকে একজন করে জেলেকে জিম্মি করে নিয়ে যায় মুক্তিপনের জন্য। অপহৃতদের রাখা হয় সাগর দস্যুদের ট্রলারের পাটাতনের নিচে। মুক্তিপন আদায়ের পর অথবা র‌্যাবের অভিযানে টিকতে না পেরে অপহৃতদের অন্য একটি নৌকায় করে ছেড়ে দেয়া হয়। ছেড়ে দেয়ার সময় অপহৃতদেরকেই জলদস্যু বলে স্থানীয়দের ক্ষেপিয়ে তোলা হয়। এরই ধারাবাহিকতায়গতকাল শুক্রবার ভোরে গলাচিপা এলাকা থেকে ৫ সাগর দস্যুকে আটক করেছে র‌্যাব। উদ্ধার করেছে অস্ত্র ও গুলি। এ কাজে সার্বক্ষনিক অভিযান করছে র‌্যাব ৮। গতকাল দুপুরে নগরীর রুপাতলীতে র‌্যাব -৮ সদর দপ্তরে এক প্রেস কনফারেন্সে লিগ্যাল এ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন জানান, গত ২০ নভেম্বর পাথরঘাটা, বরগুনা ও পটুয়াখালীর উপকূল সংলগ্ন সমুদ্রে মাছ ধরতে যায় স্থানীয় জেলেরা। এ সময় সাগর দস্যুরা হানা দিয়ে মাছ ও মালামাল লুট করে এবং ৭ জেলেকে অপহরন করে। অপহৃতদের স্বজনদের কাছ থেকে মুক্তিপন হিসেবে টাকা আদায় করে। এর পর অন্য একটি ট্রলারে করে অপহৃতদের অন্য স্থানে ছেড়ে দিয়ে নিজেরা পালিয়ে যায়। অপহৃতদের কাছ থেকে তথ্য নিয়ে র‌্যাবের পক্ষ থেকে দস্যুদের ধরতে স্থল জল ও আকাশ পথে ব্যাপক অভিযান চালানো হয়। এরই অংশ হিসেবে গলাচিপা উপজেলার একটি পরিত্যক্ত বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ৫ সাগর দস্যুকে আটক করা হয়েছে। এরা হলো খলিল জমাদ্দার, মাহাতাব প্যাদা, জামাল আকন্দ, মনসুর খলিফা ও মিনাজ খান। এদের বাড়ি গলাচিপা ও কলাপাড়া এলাকায়। তাদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে, একনলা একটি বন্ধুক, দুটি ওয়ান শুটার গানসহ তিনটি আগ্নেয়াস্ত্র, ৮ রাউন্ড গুলি, চারটি দেশীয় ধারলো অস্ত্র, দুটি লোহার রড, বেশ কয়েকটি মোবাইল ফোন সেট, নগদ টাকা ও গামছাসহ ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত মালামাল। এদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে। র‌্যাবের লিগ্যাল আন্ড মিডিয়া উইংসের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন আরো জানান, যে কোন মূল্যে সাগরকেও সুন্দরবনের মতো নির্মল ও দস্যুমুক্ত করতে র‌্যাবের অভিযান চলছে অবিরত। ইতিমধ্যেই র‌্যাবের হাতে আটক হয়েছে সাগরদস্যু নেতা ইলিয়াস। তার কাছ থেকে মুক্তিপনের ৫ লাখ ২৬ হাজাত টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। লুট করা মাছ এরা অল্প দামে যেসব ব্যবসায়ীদের কাছে বিক্রি করতো তাদের তালিকাও এখন র‌্যাবের হাতে। শীঘ্রই তাদের গ্রেপ্তারেও অভিযান চালানো হবে বলে জানান তিনি।

এই বিভাগের আরও খবর

বসুন্ধরা বিটুমিন

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT