চেয়ারম্যান পদে আলোচনায় স্বতন্ত্র মনিরুজ্জামান ও নৌকার বাবু চেয়ারম্যান পদে আলোচনায় স্বতন্ত্র মনিরুজ্জামান ও নৌকার বাবু - ajkerparibartan.com
চেয়ারম্যান পদে আলোচনায় স্বতন্ত্র মনিরুজ্জামান ও নৌকার বাবু

3:26 pm , November 5, 2021

রায়পাশা-কড়াপুর ইউপির ভোটের হালচিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ আর মাত্র ৪ দিন। এর পর ভোট গ্রহন হবে সদরের ৬ ইউপিতে। ভোটযুদ্ধে জিততে এখন চলছে জম-জমাট প্রচারনা। গতকাল বৃহস্পতিবার সদর উপজেলার রায়পাশা-কড়াপুর ইউনিয়নে গিয়ে দেখা গেছে প্রার্থী ও তাদের কর্মী সমর্থকদের রমরমা প্রচার-প্রচারনা। ইউপির চেয়ারম্যান নির্বাচিত হতে লড়াইয়ে অংশ নিতে ৮ প্রার্থী মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছে। তাদের মধ্য ৎথেকে কয়েকজন নিজেদের প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। ভোটযুদ্ধের প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন আওয়ামী লীগ, জাপা ও ইসলামী আন্দোলনের মনোনীতসহ স্বতন্ত্র দুই প্রার্থী। প্রচার-প্রচারনা ও ভোটারদের মতে ভোট যুদ্ধের মাঠ দখলে রয়েছে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থী। এরা হলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী আলহাজ্ব মনিরুজ্জামান এবং আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আহম্মদ শাহরিয়ার বাবু।
ইউনিয়নের সাধারন ভোটারদের সাথে আলাপে জানা গেছে, চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার দৌড়ে একজন ক্ষমতাসীন দলের হয়ে আলোচনায়, তবে অন্যজন রয়েছেন জনগনের ভালবাসায়। এরা দুজনেই সকাল থেকে রাত পর্যন্ত অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন জনগনের আস্থা অর্জনে। এই দুই প্রার্থীর সামনে এবার ফিকে হয়ে গেছে বর্তমান চেয়ারম্যানসহ অন্য সকল প্রার্থীর প্রচারনা। জনপ্রিয়তায়ও এদের ধারে কাছে নেই অন্য কেউ। প্রথমবার নির্বাচনে অংশ নিলেও ২৮ হাজার ৬৭০ ভোটারের বড় এই ইউনিয়নে সকল প্রার্থীদের ইতিমধ্যেই প্রচার-প্রচারণায় এগিয়ে রয়েছেন স্বতন্ত্র চশমা প্রতীকের প্রার্থী মনিরুজ্জামান। তিনি ইউনিয়নের দুইবারের নির্বাচিত ও সফল চেয়ারম্যান খ্যাত আলহাজ্ব নুরুল আমিন এর ছোট ভাই।
সাধারন ভোটারদের দাবি জনসেবায় বড় ভাইয়ের মত তিনিও কম নয়। সকলের কাছে আলহাজ্ব মনিরুজ্জামান শিক্ষিত, ভদ্র ও ন¤্র। সরকার ঘোষিত সকল নির্বাচনী নিয়মনীতি অক্ষরে অক্ষরে পালন করেই তিনি এবং তার সমর্থকরা জমজমাট প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছেন। নির্বাচিত হওয়ার আগেই সাধ্য মত সমাধান করে চলেছেন সাধারন ভোটারদের ব্যক্তিগত ও অন্যান্য সমস্যা। তিনি অল্প সময়ে ভোটারদের মনের মধ্যে স্থান করে নিয়েছেন বলে মন্তব্য করেছে ইউনিয়নের একাধিক সাধারন ভোটার। তাদের মন্তব্য, আলহাজ্ব মনিরুজ্জামান নির্বাচিত হলে ইউনিয়নের সর্বোচ্চ উন্নয়ন হবে।
অন্যদিকে নৌকার মাঝি আহম্মদ শাহরিয়ার বাবু গত ১০ বছর ধরে এলাকায় ব্যাপক উন্নয়ন ও মানুষের সাথে ওঠা বসার কারণে তারও বেশ সমর্থন রয়েছে ইউনিয়নে। অনুসারী ও ভোটারদের পছন্দের তালিকাও তার বেশ চওড়া। পুরো ইউনিয়ন এর আওয়ামীলীগ একাট্রা হয়ে আহম্মদ শাহরিয়ার বাবুর নির্বাচনী প্রচার প্রচারনা চালাচ্ছেন। ভোটারদের মন জয় করে আবেগের স্থানে যেতে না পারলেও এই প্রার্থীও আগামী নির্বাচনে সফলতা পেতে পারেন। ইতি মধ্যে প্রচার প্রচারণায় এই ইউনিয়নে রয়েছেন শক্ত অবস্থানে।
প্রচার প্রচারন ও নির্বাচনী পরিবেশ সহ নানা বিষয়ে আলাপ করা হয়েছে রায়পাশা কড়াপুর এর জনপ্রিয় এই দুই প্রার্থীর সাথেই। আলাপে স্বতন্ত্র চশমা প্রতীকের প্রার্থী আলহাজ্ব মনিরুজ্জামান বলেন, ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে ভোট চাইছেন। ইউনিয়নে চলছে দুপুর থেকে রাত ৮ টা পর্যন্ত মাইকিং। সাধারন ভোটারদের জড়ো করে সমাবেশের মাধ্যমে ভোট প্রার্থনা করছেন না নির্বাচনী নিয়মনীতির কারনে। প্রচারনার অংশ হিসেবে নেই উঠান বৈঠকের মতো কার্যক্রমও। তার মতে তিনি জনগনের সেবক হতে ভোটে প্রার্থী হয়েছেন। জনগন তার কাছে কেন আসবে প্রশ্ন রেখে তিনি বলেন, নির্বাচনের ভোটের জন্য এখন যেমন প্রত্যেক ভোটারের দ্বারে দ্বারে যাচ্ছেন। নির্বাচনে জিতলেও দ্বারে দ্বারে যাবেন। তিনি আরো জানান, তার সমর্থকরাও ইউনিয়নের ঘরে ঘরে গিয়ে ভোট চাইছেন। অঙ্গিকার করছেন না, তবে সাধ্য মত ভোটারদের যে কোন সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করবেন। এতেই জনগনের ব্যাপক ভালবাসা পাচ্ছেন বলে মন্তব্য করেন আলহাজ্ব মনিরুজ্জামান।
সুষ্ঠু পরিবেশে ভোট হলে তিনি শতকরা ৮০ ভাগ ভোট পেয়ে জয়ী হওয়ার আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
তবে বেশ কিছু অভিযোগ করে তিনি বলেন, নৌকার প্রার্থী ও তার সমর্থকরা তার জনপ্রিয়তায় আতংকিত হয়ে নির্বাচনী পরিবেশ নষ্ট করার পায়তারা করছে। প্রকাশ্যে ভোটে কেন্দ্র দখল করে জাল ভোট দিয়ে হলেও নির্বাচিত হওয়ার হুমকি দিচ্ছে ক্ষমতাসীন দল মনোনীত প্রার্থী। অভিযোগ অস্বীকার করে নৌকার মাঝি আহম্মদ শাহরিয়ার বাবু বলেন, মাইকিং পথসভা করে চলছে প্রচারনা। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত তিনি ও তার সমর্থকরা জনগনের দ্বারে দ্বারে ভোট চাইছেন। শতভাগ জয়ী হওয়ার আশাবাদ ব্যক্ত করেন এই প্রার্থী। তিনি বলেন, গত ১০ বছর ধরে এলাকার জনগণের সাথে ওঠা বসা করেছি। সাধ্যমত তাদের সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করেছি। তাদের পাশে থেকে সব ধরনের সাহায্য সহযোগিতা করার কারণে আজ তারা আমার পক্ষে নেমেছে। নৌকার পক্ষে গনজোয়ার দেখে আমার বিপক্ষের প্রার্থীরা আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা ও ভিত্তিহীন অভিযোগ চালিয়ে যাচ্ছে। তিনি বলেন, ভোট সুষ্ঠু হবে এবং তিনি বিপুল ভোটে জয়লাভ করবেন।
রিটানিং অফিসার আব্দুল মান্নান জানান, আগামী ১১ নভেম্বর এর নির্বাচন সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে সম্পন্নের যাবতীয় প্রস্তুতি গ্রহন করা হয়েছে। কেউ চাইলেই কেন্দ্র দখল করে বা ভোটের পরিবেশ নস্ট করতে পারবেনা। প্রশাসনের সদস্যরা এমন অবস্থা দেখলেই কঠোর অবস্থানে থাকবেন। জনগন তাদের ভোট নির্বিঘেœ এবং শান্তিপূর্ন পরিবেশ দিতে পারবে বলে জানান তিনি।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT