অবৈধ যানবাহন আর সরু রাস্তায় নগরীতে অসহনীয় যানজট অবৈধ যানবাহন আর সরু রাস্তায় নগরীতে অসহনীয় যানজট - ajkerparibartan.com
অবৈধ যানবাহন আর সরু রাস্তায় নগরীতে অসহনীয় যানজট

3:24 pm , October 13, 2021

হেলাল উদ্দিন ॥ সাম্প্রতিক সময়ে নগরীর সড়কে সড়কে তীব্র যানজট দেখা দিয়েছে। সকাল থেকে দুপুর আবার বিকেল থেকে রাতে যানবাহনের চাপে সাধারনের পথ চলতে দুর্ভোগে পড়তে হচ্ছে। মহানগর পুলিশের (বিএমপি) ট্রাফিক বিভাগী দাবী করেছে, নগরীর কমপক্ষে ২০টি স্পটে অধিক মাত্রায় যানজট সৃষ্টি হচ্ছে। আর এর প্রধান কারন হিসাবে ৩ টি বিষয়কে শনাক্ত করেছে ট্রাফিক বিভাগ। এগুলো হচ্ছে অধিক মাত্রায় অবৈধ যানবাহন, সরু রাস্তা আর ট্রাফিক সদস্যের সংকট। সরেজমিনে অফিসকালীন সকাল ১০টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত নগরীর বটতলা, সদররোড, গীর্জামহল্লা, ফলপট্টি, কাকলীর মোড়, জেলখানার মোড়, নতুন বাজার, নথুল্লাবাদ, সাগরদী, রুপাতলীতে তীব্র যানজট দেখা দেয়। একই চিত্র বিকেল থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত। একই স্থানে দেখা দেয় অসহনীয় যানজট । এতে চরম ভোগান্তিতে পড়েন চাকুরীজীবীরা। এ বিষয়ে মহানগর পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের পরিদর্শক (টিআই) আ: রহিম বলেন, যানজট নিয়ন্ত্রন করতে হলে রাস্তায় গাড়ি কমাতে হবে। সোমবার থেকে তারা কড়াকড়ি শুরু করেছেন। প্রায় ৩০টি অবৈধ থ্রি হুইলার আটক করেছেন। পরিদর্শক রহিম বলেন, জেলার মাহিন্দ্রা, সিএনজি নগরীতে ঢুকছে। হলুদ অটো সর্বোচ্চ ৫ হাজার চলতে পারে। সেখানে আছে ১২ হাজারের উপর। তাছাড়া গাড়ি বেশি, রাস্তা সরু। আমতলা থেকে রুপাতলী পর্যন্ত রাস্তা বাড়ানো দরকার। তিনি বলেন, পূজার ছুটির কারনে কয়েকদিন ধরে তাদের ফোর্স কমপক্ষে ৫০ জন কম। তিনি দাবী করেন, করোনার পর লকডাউন শিথিল করায় যানবাহন বেড়েছে। তাই যানজটও বেড়েছে। সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন বরিশাল জেলা সাধারন সম্পাদক কাজী এনায়েত হোসেন শিবলু বলেন, নগরীতে এত যানজট ছিল না। হঠাৎ করে কেন এতো দুর্ভোগ বাড়লো তা ট্রাফিক বিভাগকে খতিয়ে দেখতে হবে। বিশেষ করে অফিস সময়কালীন সময়ে ছোট্ট এ নগরীতে দীর্ঘসময় অপেক্ষা করে থাকা কষ্টকর। তিনি অভিযোগ করেন, অনেক স্পটে ট্রাফিক পুলিশ খুজে পাওয়া যায় না। বাধ্য হয়ে সাধারন মানুষ রাস্তায় নেমে পড়ে যানজট নিয়ন্ত্রনে। এইসব সংকট কাটাতে এখন থেকেই সিটি করপোরেশন এবং ট্রাফিক বিভাগকে উদ্যোগী না হলে যানজটের নগরীতে পরিনত হবে নগরী।
মহানগর পুলিশের উপ পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক) তানভির আরাফাত বলেন বলেন, যেভাবে অবৈধ গাড়িগুলো নগরীতে চলছে সেক্ষেত্রে জট নিয়ন্ত্রন কঠিন। যানজট রোধে গত ২ দিন ধরে তারা অভিযান পরিচালনা করে অনেকগুলো অবৈধ যানবাহন আটক করেছেন। এই অবৈধ যানগুলো নগরীর রাজনৈতিক নেতা, সাংবাদিক এমনকি পুলিশেরও রয়েছে। এগুলো নগরী থেকে সরানোর উদ্যোগ শুরু হয়ে গেছে। তিনি আরো বলেন নগরীর সাগরদী, নথুল্লাবাদের মত সরু সড়কের কারনে যানজট ঠেকানো কঠিন। এখানে কোন পাইপাস নেই। রুপাতলীতেও যত্রতত্র বাস ফেলে রাখছে। তিনি আক্ষেপ করে বলেন, নগরীর মধ্যে নথুল্লাবাদ বাস টার্মিনালে নেই একটি ট্রাক স্ট্যান্ড। আর নগরের প্রান কেন্দ্র গীর্জামহল্লা, ফলপট্টিতে গাড়ি পার্কিং এর ব্যবস্থা নেই। এটি করার দায়িত্ব সিটি করপোরেশনের। তিনি বলেন, নগরীর ১৬ থেকে ২০টি স্পটে এখন যানবাহনের চাপ বেশি। কিন্তু নগরীতে স্পট রয়েছে ৪০টি।
যানজট নিরসনে সিটি করপোরেশনের কোন পদক্ষেপ বা পরিকল্পনা আছে কিনা জানতে চাইলে প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সৈয়দ গোলাম ফারুক বলেন, স্থায়ী ভাবে যানজট নিরসন করতে হলে দীর্ঘ মেয়াদী পরিকল্পনার প্রয়োজন। আর তাৎক্ষনিক ব্যবস্থা হিসাবে ফুটপাত দখল হচ্ছে কিনা, কেউ রাস্তা দখল করে কিছু নির্মান করছে কিনা, সে দিকে নজর রাখছি। তিনি বলেন, কোন স্থান থেকে এ বিষয়ে কোন ধরনের অভিযোগ এলে তাৎক্ষনিক ব্যবস্থা নিচ্ছি।

এই বিভাগের আরও খবর

বসুন্ধরা বিটুমিন

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT