পেশাদার প্রতারক গ্রেপ্তার পেশাদার প্রতারক গ্রেপ্তার - ajkerparibartan.com
পেশাদার প্রতারক গ্রেপ্তার

2:57 pm , October 3, 2021

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ নগরীর এক নারীর সাথে প্রতারনা করে বিয়ে ও অর্থ-স্বর্নালংকার হাতিয়ে লাপাত্তা হওয়া প্রতারককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এছাড়াও প্রতারনা করে হাতিয়ে নেয়া দুই লাখ টাকা ও কিছু স্বর্নালংকারও উদ্ধার করা হয়েছে। মোবাইল ফোনে নানা প্রলোভনে ফাঁদে ফেলে বহু বিয়ে করা ওই প্রতারক হলো  রুপচাঁদ সরদার (৩৫)। সে পাবনার  বেড়া উপজেলার কাপাসকান্দা গ্রামের ছবেদ সরদারের ছেলে। গত ১ সেপ্টেম্বর প্রতারনার শিকার নারী মহানগর পুলিশের এয়ারপোর্ট থানায় ওই প্রতারকের বিরুদ্ধে মামলা করে। মহানগরের উপ-পুলিশ কমিশনার (উত্তর) মো. জাকির হোসেন মজুমদারের দিক-নির্দেশনায় সারাদেশে প্রতারনা ও বহু বিয়ে করা প্রতারক রুপচাঁদকে গ্রেপ্তার করেছে এসআই সাইদুল হক ও এসআই রায়হানুর রহমানের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল। এ নিয়ে গতকাল রোববার এয়ারপোর্ট থানায় সংবাদ সম্মেলন করেছেন উপ-পুলিশ কমিশনার (উত্তর) মো. জাকির হোসেন মজুমদার। সংবাদ সম্মেলনে উপ-পুলিশ কমিশনার জানিয়েছেন, কাশিপুর চহঠা এলাকার বাসিন্দা নারীকে প্রতারনামূলক ভাবে বিয়ের অভিনয়  করে বিভিন্ন সময় ধর্ষন করে রুপচাঁদ। পরে চাকুরীর প্রলোভন দেখিয়ে নগদ ৮ লাখ টাকা ও সাড়ে ৪ লাখ টাকার স্বর্ণালংকার নিয়ে পালিয়ে যায়। এ বিষয়ে গত ১ অক্টোবর এয়ারপোর্ট থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের হয়। পরে পেশাদার বহু বিয়ে করা প্রতারক রুপচাঁদকে কাপাসকান্দা গ্রাম থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ সময় তার কাছ থেকে প্রতারনার মাধ্যমে নেয়া নগদ আট লাখ টাকার মধ্যে থেকে নগদ ২ লাখ টাকা, ২ টি স্বর্নের চেইন,১ টি স্বর্নের আংটি, ১ জোড়া কানবালা উদ্ধার করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদে রুপচাঁদ আরও ১০/১২ জনকে বিয়ে তথ্য দিয়েছে।  সে নারীদের টার্গেট করে বিভিন্ন নম্বরে ফোন করে। পরে তাদেরকে চাকুরী সহ নানা প্রলোভন দিয়ে প্রতারনা করে। কোন নারী তার প্রতারনার ফাঁদে পড়লে তখন তাকে ভুয়া নাম ঠিকানা ব্যবহার করে বিয়ে করে। পরে টাকা পয়সা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে লাপাত্তা হয়। দেশের বিভিন্ন জেলায় ভুয়া বিয়ে করে টাকা ও স্বর্ণালংকার হাতিয়েছে সে।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT