এগিয়ে সাবেক কাউন্সিলরের ভাই হুমায়ুন এগিয়ে সাবেক কাউন্সিলরের ভাই হুমায়ুন - ajkerparibartan.com
এগিয়ে সাবেক কাউন্সিলরের ভাই হুমায়ুন

3:01 pm , September 15, 2021

২৮ নং ওয়ার্ডের উপ-নির্বাচনে

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বিএনপি প্রার্থী নির্বাচন থেকে ছিটকে পড়ায় নগরীর ২৮ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে উপ-নির্বাচনে প্রার্থী সাবেক কাউন্সিলর এর ভাই মো. হুমায়ুন কবির জনপ্রিয়তায় এগিয়ে রয়েছেন। আনুষ্ঠানিক প্রচার প্রচারনা শুরু হতে আরও ৫ দিন বাকি থাকলেও ওয়ার্ডের ভোটারদের মুখে মুখে রয়েছেন তিনি। ওয়ার্ডের বিশিষ্ট সমাজ সেবক হিসেবে পরিচিত হুমায়ুন কবির সুষ্ঠ নির্বাচনে বিপুল ভোটে জয়ী হবেন বলেও আশাবাদ সাধারন ভোটারদের। প্রতিনিধি না হওয়া সত্বেও হুমাযুন কবির তার সর্বস্ব দিয়ে ওয়ার্ডের সকলের পাশে দাড়িয়েছেন সব সময়। তাই তার নিরঙ্কুশ জয়ের
আশাবাদী ওয়ার্ডের ভোটাররা। আগামী দেড় বছরের জন্য প্রতিনিধি নির্বাচনের এই ভোটে বর্তমানে ৩ জন প্রতিদ্বন্দি¦তা করছেন। হুমায়ুন কবিরের পাশাপাশি নির্বাচনি মাঠ বেশ জমিয়ে তুলেছেন বাকি দুই প্রার্থী সাবেক মেম্বর সৈয়দ গোলাম কবির মামুন এবং মো: জাহিদ হোসেন (রুবেল)। মোট ৬ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহের পর দুজন তা জমা না দিয়ে নির্বাচন থেকে সরে দাড়ায়। এর পরে ১৩ সেপ্টেম্বর মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিনে হুমায়ুন কবির সহ মোট ৪ জন মনোনয়ন পত্র জমা দেয়। এদের মধ্যে থেকে পরের দিন বিএনপির কাউন্সিলর প্রার্থী মো. হুমায়ুন কবিরের মনোনয়ন পত্রটি বাতিল হয়ে যায়। মো: হুমায়ুন কবিরের মনোনয়নপত্র বাতিল করে নির্বাচন কমিশন।
সিনিয়র জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা নুরুল আলম এ বিষয়টি নিশ্চিত করে জানায়, ঋন খেলাপির অভিযোগে তার মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে। জনতা ব্যাংক কর্পোরেট শাখায় বিএনপির প্রার্থী হুমায়ুন কবিরের ৩ কোটি ৮৬ লাখ টাকা ঋন খেলাপির বিষয়টি ব্যাংক কর্মকর্তা তৌহিদুল ইসলাম নির্বাচন কমিশনে অবগত করেন। এছাড়াও কৃষি ব্যাংকে ঋন খেলাপির বিষয়টি অবগত হয়ে তার মনোনয়ন বাদ দেয়া হয়। এছাড়া তার দেয়া স্থায়ী ঠিকানার তথ্য ও সঠিক ছিলনা বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন। তিনি বাদ হবার পরে নির্বাচনে রয়েছে তিনজন প্রার্থী। এরা হলেন সাবেক কাউন্সিলর মরহুম জাহাঙ্গীর কবিরের ছোট ভাই মো: হুমায়ুন কবির, সাবেক মেম্বর সৈয়দ গোলাম কবির মামুন এবং মো: জাহিদ হোসেন (রুবেল)। তবে এদর মধ্যে নির্বাচনি মাঠে ভোটারদের ভরসার স্থানে রয়েছে মো: হুমায়ুন কবিরের। বর্তমানে কাশিপুর বাজার কমিটির সভাপতি হুমায়ুন কবির ওয়ার্ডে একজন সজ্জন ব্যক্তি হিসেবে সুপরিচিত। তার ভাই সাবেক কাউন্সিলর মরহুম জাহাঙ্গীর কবিরের ন্যায় তিনিও সর্বদাই নিজেকে ওয়ার্ডবাসীর সেবায় নিয়োজিত রেখেছেন। গতকাল ২৮ নং ওয়ার্ডের একাধিক ভোটারের সাথে আলাপ করা হয়েছে বর্তমান প্রার্থীদের বিষয়ে। এতে অধিকাংশের ভরসার স্থল মো. হুমায়ুন কবির। বিশেষ করে প্রবীনদের পছন্দের তালিকায় তিনি রয়েছেন প্রথম স্থানে। আলাপে ওয়ার্ডের বাসিন্দা কাশিপুর বাজার এলাকার বাসিন্দা এনায়েত মীরা বলেন, শুধু জনপ্রতিনিধি নয়, ব্যক্তি হিসেবে হুমায়ুন কবির এর তুলনা হয়না। কঠিন কোন প্রয়োজনে তার কাছ থেকে কেউ খালি হাতে ফেরেনি। বাজার কমিটির সভাপতি হিসেবে তার দায়িত্বকালীন সময়ে বাজারটি খুব সুন্দর ভাবে পরিচালিত হচ্ছে। তার ভাই সাবেক মরহুম কাউন্সিলর জাহাঙ্গীর কবিরের ন্যায় তিনিও ওয়ার্ডের প্রতিটি সমস্যা সমাধানে সর্বদা সামনের সারিতে থাকছেন এবং থেকেছেন। এই ওয়ার্ডকে তার থেকে ভাল করে আর কোন প্রার্থী চেনে না। তিনি নির্বাচিত হলে ওয়ার্ডের সকল সমস্যার খুব দ্রুত সমাধান হবে। স্বচ্ছ ইমেজের মানুষ হিসেবেও তিনি সুপরিচিত। আগামী ৭ অক্টোবর ভোটে ওয়ার্ডের সকলে তাকে প্রতিনিধি হিসেবে এককভাবে নির্বাচিত করবে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন এই ভোটার। এমন আরও বিষয়গুলো তুলে ধরেন ওয়ার্ডের ভোটার আরিফ হোসেন, মেহেদী সরদার সহ আরও অনেকে।
এ বিষয়ে মো. হুমায়ুন কবিরের সাথে আলাপকালে তিনি বলেন, প্রথমত তিনি ওয়ার্ডের বাসিন্দাদের ভালোবাসায় আবদ্ধ। প্রতিনিধি নির্বাচিত না হলেও আজীবন ওয়ার্ডের সকল সমস্যায় সাধারনের পাশে থাকবেন। নির্বাচিত হলে প্রথমেই পূর্ন করবেন ভাই এর অসমাপ্ত কাজগুলো। এর পরে একটি একটি করে নাগরিক সমস্যা চিহ্নিত করে সমাধান করবেন। এই ওয়ার্ডের সকল সমস্যা সম্পর্কে তিনি ওয়াকিবহাল আছেন জানিয়ে আরও বলেন, রাস্তাঘাট এর সংস্কারকরন ও ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়ন এবং মাদক ও ইভটিজিং এর বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে থাকবেন সর্বদা। এলাকার গন্যমান্যদের সাথে পরামর্শ করে করবেন সকল সমস্যাগুলোর সঠিক সমাধান। নির্বাচনে জয়ী হতে নয়, জনগনের সেবার উদ্দেশ্য নিয়ে এসেছেন তিনি। বর্তমানে তার নির্বাচনে ওয়ার্ডের সকল বাসিন্দাদের স্বতস্ফুর্ত অংগ্রহন রয়েছে। আগামী ২০ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু করবেন আনুষ্ঠানিক প্রচারনা। তিনি বলেন, ওয়ার্ডের সকল সমস্যা ধরে ধরে সমাধান করতে যদি তাকে তার সব কিছু বিলীন ও করতে হয় তাতে রাজি তিনি। সেবা ও ভাইয়ের অসমাপ্ত কাজ পুরনই তার মূল লক্ষ্য। আর এই লক্ষ্য তিনি পুরন করতে চান সাধারন ভোটারদের ভালোবাসা ও বিশ্বাসকে অবলম্বন করে। প্রতিনিধি হোক আর সমাজ সেবকই হোক ওয়ার্ডবাসীর পাশে থাকতে চান আজীবন।
অন্যদিকে নির্বাচনি প্রচার প্রচারনায় একাংশ ভোটারদের কাছে এগিয়েছে অন্য দুই প্রার্থী সাবেক মেম্বর সৈয়দ গোলাম কবির মামুন এবং মো: জাহিদ হোসেন (রুবেল)। তারা উভয় জানান, আগামী ৭ অক্টোবর এর নির্বাচনে জমিয়ে প্রচারনা চলছে। ভোটাররা তাদের ওপর আস্থাশীল। নির্বাচিত হতে পাড়লে ওয়ার্ডের একেকটি সমস্যা সমাধান করবেন। সর্বদা পাশে থাকবেন সাধারন ভোটারদের। ওয়ার্ডের প্রবিনসহ সকল স্থরের ভোটারদের নিয়ে আগামী ২০ তারিখ থেকে আনুষ্ঠানিক প্রচার প্রচারনা শুরু করবেন বলেও যানিয়েছেন তারা।
উল্লেখ্য, ২০২০ সালের ১১ ডিসেম্বর লিভার জনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে ২৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জাহাঙ্গির কবির মৃত্যু বরন করেন। এর পর থেকে ওয়ার্ডটি কাউন্সিলর শূন্য অবস্থায় রয়েছে। আগামী ৭ অক্টোবর উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে এই ওয়ার্ডে । ওয়ার্ডে মোট ভোটার রয়েছে প্রায় ৭ হাজার। তিন কেন্দ্রে ভোট অনুষ্ঠিত হবে।

এই বিভাগের আরও খবর

বসুন্ধরা বিটুমিন

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT