গৌরনদীতে ব্যালট উদ্ধারের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন গৌরনদীতে ব্যালট উদ্ধারের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন - ajkerparibartan.com
গৌরনদীতে ব্যালট উদ্ধারের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন

2:46 pm , September 13, 2021

 

শেখ রুপা খানম, গৌরনদী ॥ গৌরনদী উপজেলায় অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের আড়াই মাস পরে স্কুল আলমারিতে কিছু ব্যালট পেপার ও দুই শত ভ্যালটের মুড়ি পাওয়ার ঘটনায় গতকাল সোমবার তিন সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করেছে উপজেলা প্রশাসন। কমিটিকে আগামি ৭ কার্য দিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
গৌরনদী উপজেলার বার্থী ইউনিয়নের বাঘমারা বড় দুলালী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল লতিফ খান জানান, সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ি রোববার স্কুলে পাঠদান শুরু করা হয়। দুপুরে বিশেষ প্রয়োজন কিছু কাগজপত্র খুঁজতে গিয়ে বিদ্যালয়ের ষ্টিল আলমিরা খোলা হয়। এ সময় আমলমিরার ভিতরে ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনের কিছু ব্যালট পেপার ও ২শ শত ব্যালটের মুড়ি পাওয়া যায়। তিনি বলেন, সদ্য সমাপ্ত বার্থী ইউনিয়ন পরিষ নির্বাচনে এ স্কুলে কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহৃত হয়। নির্বাচনে প্রিজাইডিং অফিসারের দায়িত্ব পালনকারী কর্মকর্তাকে নির্বাচনের আগের দিন আলমারির চাবি বুঝিয়ে দেয়া হয়েছিল। প্রিজাংডিং অফিসার ভোট গ্রহন সম্পন্ন করে চাবি হস্তান্তর করে যান কিন্তু করোনার কারণে স্কুল বন্ধ থাকায় এতদিন আলমিরা খোলা হয়নি। স্কুল খোলার পরে এ সব ব্যালট ও ব্যালটের মুড়ি পাওয়া গেছে। বিষয়টি তাৎক্ষনিকভাবে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি, উপজেলা শিক্ষা অফিসার ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বিপিন চন্দ্র বিশ্বাসকে জানানো হয়েছে।
বার্থী ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের পরাজিত ইউপি সদস্য প্রার্থী খায়রুল আহসান অভিযোগ করে বলেন, বিগত নির্বাচনে ব্যাপক দূর্নীতির করে আমাকে পরাজিত করার অভিযোগ করেছিলাম কিন্তু প্রশাসন তা আমলে নেয়নি। এখন স্কুলের আলমিরা থেকে ব্যালট পেপার ও পেপারের মুড়ি পাওয়ায় নির্বাচনে অনিয়ম ও দূর্নীতির বিষয়টি পরিস্কার হলো। তিনি আরও বলেন, কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রিসাইডিং অফিসারের যোগসাজসে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে ওই দুইশ’ ব্যালটের ভোট কারচুপি করে গোপনে বাক্সে ঢুকিয়ে আমার প্রতিপক্ষ সোবাহান হাওলাদারকে বিজয়ী করা হয়। একই অভিযোগ করে পরাজিত সংরক্ষিত সদস্য প্রার্থী শিপ্রা রানী বলেন, অনিয়ম ও দূর্নীতি করে আমার প্রতিদ্বন্ধী প্রার্থী শাহানাজ বেগমকে নির্বাচিত করা হয়েছে । তারা বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের দাবি করেছেন। ওই কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার ও হোসনাবাদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মতিউল ইসলাম অভিযোগ অস্বীকার করেন।
গৌরনদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বিপিন চন্দ্র বিশ্বাস জানান, করোনার দীর্ঘ দিনের স্কুল বন্ধ থাকার পরে রোববার স্কুল চালু হলে স্কুলের প্রধান শিক্ষক ষ্টিল আলমিরা খুলে তাতে সদ্য সমাপ্ত প্রথম ধাপের ইউপি নির্বাচনের কিছু ব্যালট পেপার ও দুই শত ভ্যালটের মুড়ি পাওয়া নিয়ে প্রথম আলো পত্রিকায় প্রতিবেদন প্রকাশের পরে সোমবার তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। গৌরনদী উপজেলা নির্বাচন অফিসার মোঃ মিজানুর রহমান তালুকদারকে আহবায়ক, গৌরনদী উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুল জলিলকে সদস্য সচিব ও গৌরনদী উপজেলা মৎস্য অফিসারকে সদস্য করা হয়েছে। কমিটিকে আগামি ৭ কার্য দিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়ার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিপিন চন্দ্র বিশ্বাস বলেন, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের আড়াই মাস পরে স্কুল আলমারিতে কিছু ব্যালট পেপার ও দুই শত ভ্যালটের মুড়ি পাওয়ার বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে দেখা হচ্ছে। এ বিষয় উর্ধতন প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও নির্বাচন কমিশনের উর্ধতন কর্তৃপক্ষের পরামর্শ অনুযায়ি পদক্ষেপ গ্রহন করা হচ্ছে এবং ঘটনার রহস্য উদঘাটনসহ দোষীদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তদন্ত কমিটির আহবায়ক ও গৌরনদী উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোঃ মিজানুর রহমান তালুকদারের কাছে এ বিষয়ে জানতে একাধিকবার ফেঅন দিলে তিনি তা রিসিপ করেননি। সদস্য সচিব ও উপজেলামাধ্রমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুল জলিল বলেন, তদন্ত কমিটির সদস্য সচিবের দায়িত্ব পাওয়ার কথা শুনেছি কিন্তু এখনো কোন চিঠি পাইনি। চিঠি পেলে প্রাথমিকভাবে খোজ খবর নিয়ে এ বিষয়ে কথা বলবো।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT