বাকেরগঞ্জ আধুনিকায়নের রুপকার মেয়র লোকমান বাকেরগঞ্জ আধুনিকায়নের রুপকার মেয়র লোকমান - ajkerparibartan.com
বাকেরগঞ্জ আধুনিকায়নের রুপকার মেয়র লোকমান

2:47 pm , September 5, 2021

মোঃ পলাশ হাওলাদার, বাকেরগঞ্জ ॥ বাকেরগঞ্জ আধুনিক পৌরসভা গড়া ও মাদক নির্মূলের চ্যালেঞ্জ দিয়েছেন চতুর্থবারের মতো নির্বাচিত মেয়র লোকমান হোসেন ডাকুয়া। আগামী পাঁচ বছরে নাগরিক সেবা নিশ্চিত করাসহ মাদক, সন্ত্রাস ও চাঁদাবাজ নির্মূলে কাজ করার প্রতিশ্রুতিও দেন এই মেয়র। একান্ত আলাপচারিতায় আজকের পরিবর্তন পত্রিকার প্রতিনিধির কাছে পৌরবাসীর সুযোগ সুবিধা ও নানা উন্নয়ন পরিকল্পনার বিষয় তুলে ধরেন মেয়র লোকমান হোসেন ডাকুয়া।

মেয়র লোকমান বলেন, দীর্ঘদিন বাকেরগঞ্জ পৌরবাসীর সেবা করেছি। পৌরবাসী ভালবেসে বারবার নির্বাচনে আমাকে নির্বাচিত করেছেন। বাকেরগঞ্জ পৌরবাসীর ভোটে আমি চারবার মেয়র নির্বাচিত হয়ে দায়িত্ব পালন করছি। পৌরবাসীর প্রতি আমি কৃতজ্ঞ। বাকেরগঞ্জ পৌরবাসী সহ উপজেলার সকলের সেবাই আমার একমাত্র ব্রত। এসময় পৌরসভার ভৌত অবকাঠামো উন্নয়ন ও নাগরিক সেবা নিশ্চিত করতে আগামী পাঁচ বছর পৌরপরিষদ ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধি নিয়ে কাজ করার আশা ব্যক্ত করেন তিনি।
বাকেরগঞ্জ উপজেলার ভৌগলিক অবস্থান সম্পর্কে মেয়র লোকমান বলেন, বাকেরগঞ্জ ১৪ টি ইউনিয়ন নিয়ে একটি উপজেলা। যেখানে নদীর একপাড়ে পৌরসভা সহ ৪টি ইউনিয়ন এবং ওপারে ১০টি ইউনিয়ন অবস্থিত। যার ফলে এই পৌরসভা ও ইউনিয়ন গুলোর সুষম উন্নয়ন করা অনেকটা কষ্ট সাধ্য। তারপরও দুই প্রান্তে সমানভাবে নাগরিক সেবা নিশ্চিত করতে কাজ করে যাচ্ছি।
বাকেরগঞ্জ পৌরসভা এলাকায় মাদক ক্রয়-বিক্রয় ও সেবনের বিষয়ে মেয়র মোঃ লোকমান হোসেন ডাকুয়া করে বলেন, আমি সকল কাউন্সিলরদের সাথে কথা বলেছি। পুলিশ প্রশাসন ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে বাকেরগঞ্জ পৌরসভা এলাকাকে মাদকমুক্ত করব ইনশাআল্লাহ।
আগামী পাঁচ বছরের পরিকল্পনার বিষয়ে মেয়র বলেন, বাকেরগঞ্জ পৌরসভায় অনেক কাজ হয়েছে। এর পাশাপাশি উন্নত ড্রেনেজ ব্যবস্থা, পৌরশহরের রাস্তাঘাট ও সুপেয় পানি সরবরাহের ক্ষেত্রে নানা পরিকল্পনা রয়েছে।
মেয়র আরও বলেন, ১৯৯৮ সালে পৌরসভা সৃষ্টি হওয়ার পরে ২০০৪ সাল পর্যন্ত পৌরসভার রাস্তাঘাট ও প্রয়োজনীয় অবকাঠামো খুবই নাজুক ছিল। জীর্ণশীর্ণ অবস্থা ছিল এই পৌরসভার। এখন অনেক ভালো অবস্থায় আছে প্রাণের বাকেরগঞ্জ পৌরসভা। আমি নির্বাচিত হয়ে এসব উন্নয়ন করেছি যার মধ্যে পৌরসভাকে তৃতীয় শ্রেনী থেকে প্রথম শ্রেণীতে উন্নীত, মুসলিম ও হিন্দু সম্প্রদায়ের জন্য গোরস্থান ও শশানের জন্য নির্দিষ্ট স্থান উন্মুক্ত করে দিয়েছি। বাকেরগঞ্জ বাসস্ট্যান্ড ছিল জনবিচ্ছিন্ন এলাকা সেখানে পরিত্যক্ত অবস্থায় থাকা পুকুরটি ভরাট করে আধুনিক সুসজ্জিত মার্কেট নির্মাণ করেছি। শ্রীমন্ত নদীর উপর কয়েকটি আয়রন ব্রিজ নির্মাণ করে আগাবাকের এলাকার সাথে সদর রোডের সংযোগ করে দিয়েছি এবং নদীর দু’পাশে বেরিবাঁধ দিয়ে চলা চলের উপযোগী করেছি।এখন প্রক্রিয়াধিন কাজ চলছে শিশু দের বিনোদন কেন্দ্র শিশু পার্ক।ও ডায়বেটিস পার্ক সাথে সং রাস্তাঘাট নির্মাণ, পোল-কালভার্ট তৈরিসহ মোরেলগঞ্জ পৌরসভার ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। পাশাপাশি নাগরিক সুবিধাও বৃদ্ধি পেয়েছে। ভবিষ্যতে এই ধারা অব্যাহত থাকবে। এটি এখন প্রথম শ্রেণীর পৌরসভায় রূপান্তরিত হয়েছে। পৌরসভার নাগরিকরা প্রথম শ্রেণির সেবা পাবে বলে প্রতিশ্রুতি দেন তিনি।
করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে ব্যাপক ভূমিকা রেখেছেন বাকেরগঞ্জের পৌর মেয়র লোকমান হোসেন ডাকুয়া। তার এই ভূমিকা ইতিমধ্যে আলোচনার ঝড় উঠেছে বিভিন্ন মহলে। নিজের জীবনের মায়া না করে দিন রাত ছুটে চলেছে করোনার সাথে যুদ্ধ করে। মানুষকে সচেতন, সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখা, বাকেরগঞ্জ এলাকায় ইউনিয়নসহ বিভিন্ন বাজারে ঘুরে ঘুরে পরিদর্শন করা, আইন শৃংখলা বজায় রাখা, গোপনে অসহায় মানুষের বাড়ীতে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া সহ নানা কাজ করে যাচ্ছেন তিনি। মেয়র লোকমান হোসেন ডাকুয়ার নির্দেশে দলের নেতা কর্মীরা সর্বস্তরে ছড়িয়ে থেকে মানুষকে সেবা দিয়ে যাচ্ছেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT