আমতলীর এলজিইডির হিসাব রক্ষক বরখাস্ত আমতলীর এলজিইডির হিসাব রক্ষক বরখাস্ত - ajkerparibartan.com
আমতলীর এলজিইডির হিসাব রক্ষক বরখাস্ত

2:46 pm , August 29, 2021

আমতলী প্রতিবেদক ॥ আমতলী উপজেলার স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের (এলজিইডি) হিসাব রক্ষক মো. হুমায়ুর কবিরসহ বরগুনার এক কর্মকর্তাকে চাকরিচ্যুত এবং দুজনকে বরখাস্তকরা হয়েছে। এ সময় বরখাস্ত হওয়া দুই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলাও করা হয়েছে।রোববার বিকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বরগুনার এলজিইডির সিনিয়র সহকারী প্রকৌশলী মোহম্মদ হোসেন আলী মীর। চাকরিচ্যুত হওয়া কর্মকর্তারা হলেন বরগুনার এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলীর কার্যালয়ের ফোরম্যান মো. জিয়াউর রহমান। বরখাস্ত হওয়া দুই কর্মকর্তা হলেন এলজিইডির সদর উপজেলা প্রকৌশলীর কার্যালয়ের উপসহকারী প্রকৌশলী মো. মিজানুর রহমান এবং আমতলী উপজেলা প্রকৌশলীর কার্যালয়ের হিসাবরক্ষক মো. হুমায়ুন কবির।
জানা যায়, দুদিন আগে চাকরিচ্যুত এবং বরখাস্ত হওয়া এই তিন কর্মকর্তার ঘুস গ্রহণের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ হয়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঘুষ গ্রহনের বিষয় প্রকাশের জেরে ওই তিন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে এ ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়।
এ বিষয়ে এলজিইডি বরগুনা কার্যালয়ের সিনিয়র সহকারী প্রকৌশলী মো. হোসেন আলী মীর বলেন, ঘুস গ্রহণের অভিযোগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ হওয়ায় অভিযুক্ত ওই তিন কর্মকর্তার মধ্যে একজনকে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে এবং দুজনকে বরখাস্ত করা হয়েছে। এ ছাড়া বরখাস্ত হওয়া দুই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা করা হয়েছে। বিভাগীয় মামলার রায় অনুযায়ী বরখাস্ত হওয়া কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
আমতলী উপজেলার স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের (এলজিইডি) হিসাব রক্ষক মো. হুমায়ুর কবির দাবি করছেন টাকা নেওয়ার বিষয়ট সত্য নয়, ষড়যন্ত্র করে তাকে ফাঁসানো হয়েছে ।
বরগুনা সদর উপজেলা প্রকৌশলীর কার্যালয় কর্মরত উপসহকারী প্রকৌশলী মিজানুর রহমান দাবি করেন, ভিডিওতে যেটি টাকা নিতে দেখা গেছে তার ঈদের বেতন ও বোনাসের টাকা।

এই বিভাগের আরও খবর

বসুন্ধরা বিটুমিন

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT