শোকের মাসকে ঘিরে নগরময় শোকের ব্যানার ফেষ্টুন তোড়ন শোকের মাসকে ঘিরে নগরময় শোকের ব্যানার ফেষ্টুন তোড়ন - ajkerparibartan.com
শোকের মাসকে ঘিরে নগরময় শোকের ব্যানার ফেষ্টুন তোড়ন

3:38 pm , August 13, 2021

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ শোকের মাস আগস্ট। কাল ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদাত বার্ষিকী। এ দিনে বিপদগামী কতিপয় সেনাদের হাতে শহীদ হয় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবসহ পরিবারের সদস্য, তার ভগ্নিপতি শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাতসহ ২৬ জন। সরকার দিনটিকে জাতীয় শোক দিবস হিসেবে ঘোষনা করেছে। এ উপলক্ষে নগরীর বিভিন্ন স্থানে শোভা পাচ্ছে শত শত পোস্টার, ব্যানার, ফেস্টুন ও বিলবোর্ড। কোনো কোনো সড়ক অথবা ফুটপাতে দেখা যাচ্ছে বিশাল বিশাল তোরণ। হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে ক্ষমতাসীন দলসহ অঙ্গ সংগঠনের নেতা কর্মীদের উদ্যোগে পোষ্টার, ব্যানার, বিলবোর্ড ও তোড়ন করা হচ্ছে। এর মধ্যে বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের প্রবেশ ফটকে লাল কালো রঙের ব্যবহারে টানানো হয়েছে শহীদদের চিত্র। জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর বিশালাকৃতির ছবির পাশে রয়েছে সিটি মেয়র সেরনিয়াবাদ সাদিক আবদুল্লাহর দাদা শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাতের চিত্র। এরপর একে একে সকল শহীদদের মুখায়ব। জেলা পরিষদের প্রবেশ পথে করা হয়েছে শোকের তোড়ন। তোড়নে রয়েছে সকল শহীদদের মুখায়ব। নগরীর নাজিরের পোল এলাকায় বঙ্গবন্ধুর ধানমন্ডির ৩২ নম্বর সড়কের বাড়িটির অবয়ব ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। প্রতি বছরের মতো এবারও নানা শৈল্পিক কারুকাজে ফুটিয়ে তুলেছেন নগরীর ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারন সম্পাদক এ্যাড. রফিকুল ইসলাম খোকন। এছাড়াও নগরীর গুরুত্বপূর্ন সড়কে বিভিন্ন নেতৃবৃন্দ বিশাল তোড়ন নির্মান করেছেন। কালো রঙের এসব তোড়ন, ব্যানার ও ফেষ্টুনে রক্তের লাল রঙ দিয়ে নানা লেখা নিয়ে শোক প্রকাশ করা হয়েছে। নগরময় টানানো ব্যানার, পোষ্টার ও তোড়নে নতুন প্রজন্মের কাছে নৃংশস ও ভয়ংকর দিনটির কথা জানান দিয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT