মঠবাড়িয়ায় জীবণের ঝুঁকি নিয়ে জরাজীর্ণ ব্রিজ দিয়ে পারাপার মঠবাড়িয়ায় জীবণের ঝুঁকি নিয়ে জরাজীর্ণ ব্রিজ দিয়ে পারাপার - ajkerparibartan.com
মঠবাড়িয়ায় জীবণের ঝুঁকি নিয়ে জরাজীর্ণ ব্রিজ দিয়ে পারাপার

3:13 pm , July 25, 2021

 

শাকিল আহমেদ, মঠবাড়িয়া ॥ মঠবাড়িয়ার হাজীগঞ্জ বাজারের জরাজীর্ণ ব্রিজটি ১২ বছরেও সংস্কার হয়নি। ব্রিজটি দিয়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে প্রতিদিন পারাপার হচ্ছে শত শত মানুষ। বর্তমানে ব্রিজটি মরণ ফাঁদে পরিনত হয়েছে। ব্রিজটি দিয়ে যানবাহন চলাচলতো ভালো কোন রকম পায়ে হেটে পরাপারই কষ্টসাধ্য হয়ে দাঁড়িয়েছে। স্থানীয়দের অভিযোগ জনপ্রতিনিধিসহ রাজনৈতিক নেতাদের বার বার বলা সত্বেও ব্রিজটি মেরামতের কোন উদ্যোগ নিতেছেনা। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার হাজীগঞ্জ বাজার ও চরকগাছিয়া গ্রামের মানুষের সুবিধার্থে প্রায় দুই যুগ আগে হাজীগঞ্জ খালের উপর নির্মিত হয় লোহার ব্রিজটি। কিন্তু গত ১২ বছর ধরে ব্রিজটি জরাজীর্ণ হয়ে পড়েছে। ব্রিজটি দিয়ে উপজেলার চরকাগাছিয়া, কচুবাড়িয়া, খেতাছিড়া ও বলেশ^র হাটের মানুষ প্রতিনিয়ত চলাচল করেন। ব্রিজের পাটাগুলো অনেক আগেই নষ্ট হয়ে ধসে পড়ে গেছে। তাছাড়া লোহার এ্যাঙ্গেলগুলোতে মরিচা ধরে নষ্ট হয়ে গেছে। ব্রিজটি দিয়ে চার গ্রামের মানুষ ছাড়াও ছাদিনীয়া ইবতেদায়ী মাদ্রাসা, হাজীগঞ্জ মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কচুবাড়িয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, পূর্ব খেতাছিড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রায় সহা¯্রাধিক শিক্ষার্থী জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করেন। এছাড়া একটি কমিউনিটি ক্লিনিকও রয়েছে।
স্থানীয় বাসিন্দা হালিম চৌকিদার জানান, গত ১২ বছর ধরে ব্রিজটি অকেজো অবস্থায় আছে। কিন্তু মেরামতের জন্য কেউ কোন উদ্যোগ নিতেছেনা। আমরা প্রতিনিয়ত জীবনের ঝুঁকি নিয়ে এ ব্রিজ দিয়ে চলাচল করছি।
বাবুরহাট বাজারের ব্যবসায়ী ছগির মিয়া জানান, ব্রিজটি সংস্কারের জন্য বহুবার জনপ্রতিনিধিদের বলা হয়েছে কিন্তু তারা কোন কর্ণপাত করেন না।
ইউ,পি সদস্য আফজাল হোসেন ব্রিজটি অকেজো হওয়ায় জনদুর্ভোগ চরম আকারে ধারণের কথা স্বীকার করে বলেন, ব্রিজটি দ্রুত সংস্কারের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে।
উপজেলা প্রকৌশলী কাজী আবু সাইদ মোঃ জসিম জানান, বরাদ্দ পেলে ব্রিজটি দ্রুত সংস্কার করা হবে।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT