স্ত্রী-শিশু কন্যার হত্যার স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি প্রদান ঘাতক স্বামী শাহীনের স্ত্রী-শিশু কন্যার হত্যার স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি প্রদান ঘাতক স্বামী শাহীনের - ajkerparibartan.com
স্ত্রী-শিশু কন্যার হত্যার স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি প্রদান ঘাতক স্বামী শাহীনের

3:14 pm , July 14, 2021

পাথরঘাটা প্রতিবেদক ॥ পাথরঘাটায় চাঞ্চল্যকর স্ত্রী-কন্যা সন্তানকে নির্মমভাবে হত্যা করে ৬ হাত মাটির গর্ভে পুতে রাখা সেই ঘাতক স্বামী শাহিন মুন্সি (২১) হত্যার দায় স্বীকার করেছে। বুধবার পাথরঘাটা সিনিযর জুডিশিযাল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক সুব্রত মল্লিক ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি শেষে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। এর আগে সোমবার বিকেলে চট্টগ্রামের বন্দর ছোনখোলা এলাকার একটি মোটর গ্যারেজ থেকে গ্রেফতার করে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। ঘটনার পর থেকেই ঘাতক শাহিন পলাতক ছিল। সিআইডির প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে চাঞ্চল্যকর এ ঘটনার অভিযুক্ত ঘাতক স্বামী শাহিন ১৬১ ধারায় স্ত্রী-সন্তানকে হত্যা করে মাটি চাপা দেয়ার বিষয়টি স্বীকার করেছে। সে জানিয়েছে, তাদের দাম্পত্য জীবন ভালো যাচ্ছিল না। কলহের জের ধরেই স্ত্রীকে ও পরে মেয়েকে হত্যা করে সে। গতকাল বুধবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে চাঞ্চল্যকর ঘটনার ঘাতক স্বামী শাহীন মুন্সিকে আদালতে সোপর্দ করে সিআইডি। এ সময় পাথরঘাটা সিনিযর জুডিশিযাল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক সুব্রত মল্লিক দীর্ঘ তিন ঘন্টা তার খাস কামরায় ১৬৪ এর জবানবন্দি গ্রহণ করেন। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে সিআইডির ওই কর্মকর্তা জানান, শাহিন মুন্সী সুমাইয়ার সাথে প্রেম করে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে। সুমাইয়াকে বিয়ে করতে অস্বীকার করলে তার বিরুদ্ধে আদালতে ধর্ষনের অভিযোগে মামলা করে। মামলার আসামী হিসেবে শাহিন মুন্সি ৩ মাস কারাভোগ করে। পরে বিয়ের শর্তে জামিনে বের হয় সে। জেল থেকে বেরিয়ে সুমাইয়াকে বিয়ে। বিবাহের পরে তাদের মধ্য পারিবারিক কলহ চলতে থাকে। এই পারিবারিক বিরোধের জের ধরে সুমাইয়া ও তার শিশু কন্যা সামিরা আক্তার জুঁইকে হত্যা করা হয়। সেলিম সরদার আরও বলেন, এজাহারভুক্ত পলাতক আসামি লিমনকে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত আছে। খুব তাড়াতাড়ি গ্রেফতার করতে সক্ষম হবো।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT