করোনা ও উপসর্গে ৯ জনের মৃত্যু করোনা ও উপসর্গে ৯ জনের মৃত্যু - ajkerparibartan.com
করোনা ও উপসর্গে ৯ জনের মৃত্যু

2:49 pm , July 3, 2021

 

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ গত ২৪ ঘণ্টায় বরিশাল শের ই বাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয় (শেবাচিম) হাসাপাতালের করোনার আইসোলেশন ওয়ার্ডে উপসর্গ নিয়ে ৭ জনের এবং বিভাগের মধ্যে বরিশাল ও ঝালকাঠি জেলায় দুজন করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন। এ নিয়ে বরিশাল বিভাগে করোনায় মোট মৃত্যুর সংখ্যা ৩১৪ জনে দাঁড়িয়েছে বলে জানিয়েছেন বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক।বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. বাসুদেব কুমার দাস জানান, মোট আক্রান্ত ১৮ হাজার ২৯৪ জনের মধ্যে এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৫ হাজার ১৩৬ জন।আক্রান্ত সংখ্যায় বরিশাল জেলায় নতুন শনাক্ত ৮৫ জন নিয়ে মোট ৮ হাজার ৭৪ জন, পটুয়াখালী জেলায় নতুন ১০ জন নিয়ে মোট ২৫১৩ জন, ভোলা জেলায় নতুন চারজনসহ মোট ২০৭২ জন, পিরোজপুর জেলায় নতুন ৩ জন নিয়ে মোট ২৩৩৪ জন, বরগুনা জেলায় নতুন ৫ জন নিয়ে মোট আক্রান্ত ১৪৭০ জন এবং ঝালকাঠি জেলায় নতুন ৫৩ জন শনাক্ত নিয়ে মোট সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৮৩১ জন।এদিকে শের ই বাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয় (শেবাচিম) হাসপাতালের পরিচালকের দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় শুধুমাত্র শেবাচিম হাসপাতালের করোনার আইসোলেশন ওয়ার্ডে উপসর্গ নিয়ে সাতজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে শুধুমাত্র শেবাচিম হাসপাতালেই করোনায় আক্রান্ত হয়ে ২০৮ জন এবং আইসোলেশন ওয়ার্ডে উপসর্গ নিয়ে ৫৪৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুবরণ করা ৫৪৬ জনের মধ্যে ৫০ জনের কোভিড টেস্টের রিপোর্ট এখনও হাতে পাওয়া যায়নি।
শেবাচিম হাসপাতাল পরিচালকের তথ্য সংরক্ষক জাকারিয়া খান স্বপন জানিয়েছেন, শনিবার সকালের আগে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার আইসোলেশন ওয়ার্ডে ৩৯ জন ও করোনা ওয়ার্ডে একজন ভর্তি হয়েছেন। উপসর্গ নিয়ে আইসোলেশনে ভর্তি সাতজন মৃত্যুবরণ করেন। করোনা ও আইসোলেশন ওয়ার্ডে এখন ১৮২ জন রোগী চিকিৎসাধীন। যাদের মধ্যে ৩৪ জনের করোনা পজিটিভ এবং ১৪৮ জন আইসোলেশনে রয়েছেন। আরটি পিসিআর ল্যাবে মোট ১৯০ জন করোনা পরীক্ষা করান। এর মধ্যে ৫৪ দশমিক ৭৩ শতাংশ পজিটিভ শনাক্তের হার।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT