চরফ্যাশনে আওয়ামীলীগ নেতার ছেলের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা ॥ ধর্ষিতা অন্তঃস্বত্বা চরফ্যাশনে আওয়ামীলীগ নেতার ছেলের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা ॥ ধর্ষিতা অন্তঃস্বত্বা - ajkerparibartan.com
চরফ্যাশনে আওয়ামীলীগ নেতার ছেলের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা ॥ ধর্ষিতা অন্তঃস্বত্বা

2:21 pm , July 1, 2021

চরফ্যাশন প্রতিবেদক ॥ চরফ্যাশনের কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে কলেজছাত্র শাকিলকে আসামী করে দক্ষিণ আইচা থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। ধর্ষিতার বাবা বাদি হয়ে গত ২৭ জুন দক্ষিণ আইচা থানায় মামলাটি দায়ের করেছেন ।ধর্ষিতা ২ মাসের অন্তঃস্বত্বা বলে মামলার বিষয় নিশ্চিত করেছেন দক্ষিণ থানার ওসি হারুন-অর-রশিদ। ধর্ষক শশীভূষণ থানার রহিমা ইসলাম কলেজর দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র এবং ধর্ষিতা একই কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী। ধর্ষক শাকিলের বাবা ইব্রাহীম কাজি রসূলপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি। পুলিশ ও ধর্ষিতার পরিবার সূত্রে জানাযায়, ধর্ষক শাকিল এবং ধর্ষিতার বাড়ি দক্ষিণ আইচা থানার দক্ষিণ চর মানিকা গ্রামে এবং তারা পরস্পরের প্রতিবেশী। এছাড়া শশীভূষণ থানার রসূলপুর গ্রামেও শাকিলের বাবা ইব্রাহীম কাজির বাড়ি আছে। সে সূত্রে ইব্রাহী কাজি রসূলপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি। পারিবারিক ক্ষমতার প্রভাব খাটিয়ে শাকিল দীর্ঘদিন ধরে কলেজপড়–য়া ওই ছাত্রীর সাথে প্রেম এবং অনৈতিক দৈহিক সম্পর্ক বজায় রেখেছেন। যার ধারাবাহিকতায় গত ১৬ জুন দক্ষিণ আইচা থানার চর মানিকা ইউনিয়নের আকন ব্রিকস ফিন্ডের একটি নির্জন স্থানে নিয়ে কলেজছাত্রীকে ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে শাকিল। দু’জনের ধারাবাহিক অনৈতিক দৈহিক সম্পর্কের জেরে ধর্ষিতা এখন দুই মাসের অন্তঃস্বত্বা। ধর্ষিতা অন্তঃস্বত্বা হওয়ার পর শাকিল কেটে পড়ার চেষ্টা করলে বিষয়টি থানা পুলিশ পর্যন্ত গড়ায়। ধর্ষিতার দুই মাসের অন্তঃস্বত্বার বিষয়্িট নিশ্চিত করেছেন দক্ষিণ আইচা থানার ওসি হারুন-অর-রশিদ। ওসি জানান, ভিক্টিমকে ডাকতারি পরীক্ষার জন্য ভোলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ধর্ষক শাকিলকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। এদিকে শাকিলের বাবা রসূলপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি ইব্রাহীম কাজি জানান, ভিক্টিম পরিবারের সাথে তার জমিজমার বিরোধ আছে। এই বিরোধকে কেন্দ্র করে আমার ছেলেকে ফাঁসাতে ধর্ষণ মামলা দেয়া হয়েছে। এখন আমরা মিলেমিশে গেছি। দুই দিন আগে (মঙ্গলবার) ছেলে শাকিলের সাথে ওই ভিক্টিমের বিয়ে হয়েছে। রসূলপুর ইউনিয়নের নিকাহ রেজিস্ট্রার মো. শাহীনের অফিসে ৪ লাখ টাকা দেনমোহর ধার্য করে এই বিবাহ সম্পন্ন হয়েছে। তবে বারবার চেষ্টা করে নিকাহ রেজিস্ট্রার মো. শাহীন বলেন,কোন বিয়েই পড়ানো হয়নি।

এই বিভাগের আরও খবর

বসুন্ধরা বিটুমিন

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT