বিয়ের প্রলোভনে গৃহবধুকে ধর্ষণ বিয়ের প্রলোভনে গৃহবধুকে ধর্ষণ - ajkerparibartan.com
বিয়ের প্রলোভনে গৃহবধুকে ধর্ষণ

2:56 pm , June 30, 2021

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ হিজলায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক গৃহবধুকে ধর্ষনের অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলায় গুয়াবাড়িয়া ইউনিয়নের মাউলতলা গ্রামের আলমগীর তালুকদারের ছেলে সোহেল তালুকদার নামে এক যুবককে আসামী করা হয়েছে। সোহেল ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শাহজাহান তালুকদারের ভাতিজা। বুধবার (৩০ জুন) সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করে হিজলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অসিম কুমার সিকদার জানান,মুলত ভিকটিমকে শেকল দিয়ে ঘরের খাটের সাথে বেধে রাখা হয়েছে এমন খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে যাই। তবে সেখানে যাওয়ার আগে শেকল খুলে ফেলা হয়। পরে জানতে পারি, ভিকটিমকে তার ভাই শেকল দিয়ে বেধে রেখেছিলো। তিনি জানান, শেকল দিয়ে বেধে রাখার বিষয়ে কোন অভিযোগ নেই ভিকটিমের। তবে সে সোহেল তালুকদার নামে এক যুবকের নামে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষনের অভিযোগে থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৯/১ ধারায় মামলা করেছেন। ভিকটিমের গ্রামে ভিজিডি কার্ডের তালিকা করার জন্য ইতিপূর্বে সোহেল গিয়েছিলো এবং সেসময়েই ভিকটিমের সাথে তার যোগাযোগ হয় বলে জানাগেছে বলে জানান ওসি। তিনি আরো জানান, মামলা দায়েরের পর ভিকটিমকে মেডিক্যাল পরীক্ষার জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। পাশাপাশি অভিযুক্ত আইনের আওতায় আনার কার্যক্রম চলমান রাখা হয়েছে। ভিকটিমের পরিবার ও অভিযোগ সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার গুয়াবাড়িযা ইউনিয়নের ঘোষেরচর গ্রামে স্থানীয় চেয়ারম্যান শাহজাহান তালুকদারের ভাতিজা সোহেল তালুকদার ইতিপূর্বে গিয়েছিলো। তখন সোহেলের সাথে একাধিক সন্তানের জননী ওই ভিকটিমের পরিচয় হয়।পরিচয়ের সুবাদে তাদের দুজনের মধ্যে সম্পর্ক হয় এবং বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে সোহেল ভিকটিমকে একাধিক বার ধর্ষন করে। কিছুদিন আগে ভিকটিমকে বিয়ের জন্য চাপ প্রয়োগ করলে সোহেল সবকিছু অস্কীকার করে। পরে গত ২৭ জুন ভিকটিম বিয়ের দাবিতে সোহেলের বাড়িতে গেলে, সে পালিয়ে যায়।ওই সময় সোহেলের পরিবার মারধর করে এবং ভয়ভীতি দেখিয়ে ভিকটিমকে ভাইয়ের কাছে দিয়ে দেয়। ভিকটিমের ভাই স্থানীয় সাংবাদিকদের জানান, সোহেলের চাচা চেয়ারম্যান হওয়ায় এবং তার পরিবার এলাকার প্রভাবশালী হওয়ায় ভয়ে কিছু করার সাহস পাননি। আর উপায় না পেয়ে তিনি বোনকে ঘরের মধ্যে শেকল দিয়ে আটকে রাখি। তবে এ বিষয়ে ভিকটিমের স্বামী অবগত নন বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন। উল্লেখ্য সোহলে তালুকদারের বিরুদ্ধে ভিজিডি ও রেশন কার্ড দেয়ার নামে সুবিধাভোগীদের কাছ থেকে নগদ অর্থ নেয়ার অভিযোগ রয়েছে। তবে সে অর্থ নিয়েও সবাইকে ভিজিডি ও রেশন কার্ড দিতে পারেনি।

এই বিভাগের আরও খবর

বসুন্ধরা বিটুমিন

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT