২১৯ দিন পর কারামুক্ত সাবেক মেয়র কামাল ২১৯ দিন পর কারামুক্ত সাবেক মেয়র কামাল - ajkerparibartan.com
২১৯ দিন পর কারামুক্ত সাবেক মেয়র কামাল

3:11 pm , June 16, 2021

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ ২১৯ দিন পর জামিনে মুক্ত হয়েছেন দুর্নীতির মামলায় দন্ডপ্রাপ্ত বরিশাল সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র আহসান হাবিব কামাল। গতকাল বুধবার সন্ধ্যা সোয়া ৬ টার দিকে বরিশাল কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে জামিনে মুক্ত হয়েছেন তিনি। বরিশাল কারাগারের জেল সুপার প্রশান্ত কুমার বনিক বলেন, মঙ্গলবার উচ্চাদালত থেকে জামিন পাওয়ার একদিন পর প্রয়োজনীয় কাগজপত্র এসে পৌছালে যাচাই বাছাই শেষে সন্ধ্যা সোয়া ৬ টার দিকে তাকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে। আহসান হাবিব কামালের ছেলে কামরুল আহসান রূপন বলেন, বাবা শারিরিকভাবে সম্পূর্ন সুস্থ আছেন। আপাতত তার চিকিৎসার কোন প্রয়োজন নেই। তিনি বাসায় থাকবেন। তার চিকিৎসার প্রয়োজন হলে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। প্রসঙ্গত, দুর্নীতি দমন কমিশনের দায়ের করা একটি মামলায় সাত বছর সশ্রম কারাদন্ড ও ১ কোটি টাকা জরিমানার দন্ডে দন্ডিত হয়ে আহসান হাবিব কামাল গত বছর ৯ নভেম্বর থেকে বরিশাল কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দী ছিলেন। একই মামলায় বরিশাল সিটি করপোরেশনের সাবেক তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী খান মো. নুরুল ইসলাম, তৎকালীন পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী মো. ইসাহাক, উপ-সহকারী প্রকৌশলী আব্দুস সাত্তার ও ঠিকাদার জাকির হোসেন একই দন্ডে দন্ডিত হয়ে কারান্তরীন হন।
১৯৯৫-৯৬ সালে তৎকালীন বরিশাল পৌর এলাকায় সড়ক খননে টেলিফোন শিল্প সংস্থা পৌরসভাকে ৩৯ লাখ ৫০ হাজার ক্ষতিপুরন প্রদান করে। কিন্ত সড়ক সংস্কারের বাবদ প্রাপ্ত ১১ লাখ ১৯ হাজার ৩৭১ টাকা খরচ করে অবশিষ্ট ২৭ লাখ ৬০ হাজার ৬৩৯ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে মামলা দায়ের করে দুদক।
২০১১ সালের ১১ জুলাই আদালতে অভিযোগপত্র দেয় বরিশাল দুদক। ২০২০ সালের ৯ নভেম্বর আহসান হাবিবক কামাল সহ ৫ জনকে ৭ বছর করে কারাদন্ড এবং ১ কোটি টাকা জরিমানা করে রায় দেন বরিশাল বিশেষ আদালতের বিচারক মহসিনুল হক। আহসান হাবিব কামাল ২০১৩ সাল থেকে ২০১৮ সালের এপ্রিল পর্যন্ত বরিশাল সিটি করপোরেশনের নির্বাচিত মেয়র ছিলেন। তিনি বিএনপির সাবেক কেন্দ্রীয় মৎস্যজীবী বিষয়ক সম্পাদক ও বরিশাল জেলা বিএনপি’র সভাপতিও ছিলেন।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT