বাবুগঞ্জে ভূমিহীন-গৃহহীনদের ঘর নির্মাণকাজ পরিদর্শন করেন এডিসি বাবুগঞ্জে ভূমিহীন-গৃহহীনদের ঘর নির্মাণকাজ পরিদর্শন করেন এডিসি - ajkerparibartan.com
বাবুগঞ্জে ভূমিহীন-গৃহহীনদের ঘর নির্মাণকাজ পরিদর্শন করেন এডিসি

2:26 pm , June 11, 2021

বাবুগঞ্জ প্রতিবেদক ॥ মুজিববর্ষে বাবুগঞ্জ উপজেলায় ভূমিহীন ও গৃহহীনদের জন্য ঘর নির্মাণকাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে। শুক্রবার বিকাল ৪ টায় বাবুগঞ্জ উপজেলার দেহেরগতি ও মাধবপাশা ইউনিয়নের গৃহ নির্মাণকাজ পরিদর্শনে বাবুগঞ্জে যান বরিশালেরর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোঃ রাজিব আহমেদ। এ সময় তিনি বাবুগঞ্জের গৃহহীনদের জন্য উপযোগী ও টেকসই ঘর নির্মাণকাজের অগ্রগতিতে সন্তোষ প্রকাশ করেন। মুজিব বর্ষ উপলক্ষে ভূমিহীন-গৃহহীনদের জন্য বাবুগঞ্জে প্রথম পর্যায়ে ১১০ টি ঘরের নির্মাণ কাজ শেষের পথে বলে জানান প্রকল্পের সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আমীনুল ইসলাম। বরিশাল জেলা প্রশাসনের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোঃ রাজিব আহমেদ’র তত্ত্বাবধানে নির্মাণকাজ পরিদর্শনকালে বাবুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আমীনুল ইসলাম,উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভূমি)মোঃ মিজানুর রহমান, দেহেরগতি ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ মশিউর রহমান, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ নাসির উদ্দিন ও উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা,জনপ্রতিনিধি ও গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। প্রসঙ্গত সারা দেশে গৃহ ও ভূমিহীন ৮ লাখ ৮২ হাজার ৩৩ পরিবারকে পাকা বাড়ি নির্মাণ করে দিচ্ছে সরকার। ‘মুজিববর্ষে বাংলাদেশে কোনো মানুষ গৃহহীন থাকবে না’ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এমন নির্দেশের পর এ উদ্যোগ নেয়া হয়। প্রতিটি বাড়ি নির্মাণে সম্ভাব্য ব্যয় ধরা হয়েছে এক লাখ ৭১ হাজার টাকা। সে হিসেবে এ কর্মসূচিতে মোট ব্যয় হবে ১৫ হাজার ৮২ কোটি টাকা। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের আশ্রয়ণ-২ প্রকল্প, ভূমি মন্ত্রণালয়ের গুচ্ছগ্রাম ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের দুর্যোগ সহনীয় বাড়ি প্রকল্পের সুবিধাভোগীদের নিয়ে এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হবে।

এই বিভাগের আরও খবর

বসুন্ধরা বিটুমিন

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT