বাকেরগঞ্জ মৃৎশিল্পদের সাহায্য করবেন পুনাক সভানেত্রী বাকেরগঞ্জ মৃৎশিল্পদের সাহায্য করবেন পুনাক সভানেত্রী - ajkerparibartan.com
বাকেরগঞ্জ মৃৎশিল্পদের সাহায্য করবেন পুনাক সভানেত্রী

3:43 pm , May 29, 2021

 

বাকেরগঞ্জ প্রতিবেদক ॥ করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) বৈশ্বিক দুর্যোগে বাংলাদেশ সহ বিশ্বকে শক্তিহীন করে খেটে খাওয়া বিভিন্ন পেশার মানুষজনকে অকেজো করে দিয়েছে। বিশেষ করে বাংলাদেশের ঐতিহ্য মৃৎশিল্পীদের করেছে কোনঠাসা। করোনা ভাইরাসের কারণে এবার বাংলাদেশের বড় উৎসব চৈত্র সংক্রান্তির (চরক পূজা) ও বাংলা নববর্ষ পালিত হয়নি। বসেনি কোন মেলা বা প্রর্দশনী। হাটবাজার চলছে স্বাস্থ্য বিধি ও সীমাবন্ধ সময়ের মধ্যে। বর্তমান এমন পরিস্থিতিতে আর্থিক সংকটে পড়েছেন বাকেরগঞ্জ সহ বিভিন্ন স্থানের পাল পাড়ার মৃৎশিল্পীরা। ফলে মৃৎ শিল্পীদের পথে বসার উপক্রম হয়েছে। সংশ্লিষ্টরা জানান, এ সম্প্রদায়ের লোকজন বেঁচে থাকে বাংলা নববর্ষের মেলা এবং প্রদর্শনীর আয়োজন ঘিরে। করোনার কারণে এ বছর সব কিছু থমকে গেছে।
করোনা ভাইরাসের এক মাস আগে নববর্ষের বৈশাখী মেলা ঘিরে মৃৎশিল্পদের চলছিল প্রস্তুতি। আগেই বায়না দিয়ে রাখা ব্যবসায়ীরাও শেষ মুহূর্তে অর্ডার বাতিল করে বসে। ফলে জিনিসপত্র নিয়ে বিপাকে পরে পালপাড়ার কুমাররা। করোনার জন্য সব ধরনের ব্যবসা-বাণিজ্য বন্ধ রয়েছে। অনাহারে অর্ধাহারে চলছে তাদের জীবন। ভালো নেই তারা। তৈরী করা বহু মাটির পন্য অবিক্রিত অবস্থায় পড়ে রয়েছে। করোনা পরিস্থিতে হাট বাজার সময়সীমার মধ্যে পরিচালিত হওয়ায় ঠিকমতো ব্যবসা চলছেনা। নববর্ষ বা বৈশাখে যে আয় রোজগার করা হতো সেই আয় দিয়ে বছর চলে যেতো। করোনা ভাইরাস আমাদের পথে বসিয়ে দিয়েছে। চরম সমস্যায় পড়েছি আমরা। তিনি বলেন, এবার মৃৎশিল্পের ব্যবসার চিত্র ভিন্ন। মাটির তৈরি হাজার হাজার তৈজসপত্র রয়েছে মৃৎশিল্পীদের কারখানায়। এই সম্প্রদায়ের মানুষের রুজি রোজগার প্রায় বন্ধের পথে। বিভিন্ন পেশার মানুষজন সরকারের প্রনোদনা পাচ্ছে। কিন্তু তাদের দিকে কেউ মুখ ফিরে চেয়ে দেখেনা। তাদের সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে আশ্বস্ত করলেন বরিশাল জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মারুফ হোসেন এর সহধর্মিনী বরিশাল পুনাক সভানেত্রী সৈয়দা তৌফিকা মারুফ। গতকাল শনিবার সকাল ১১ টায় বাকেরগঞ্জ উপজেলার নিয়ামতি ইউনিয়নের মহেশপুর বাজারে তিনশত মৃৎশিল্পী পরিবার নিয়ে একটি আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়, উক্ত আলোচনা সভার সভাপতিত্ব করেন বাকেরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ আলাউদ্দিন মিলন। আলোচনা শেষে মৃৎশিল্পীদের সাথে তাদের গ্রাম পরিদর্শন করে দুঃখ দূরদর্শার কথা শুনে তাদেরকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে বরিশাল জেলা পুলিশের তত্ত্বাবধানে সার্বিক সহযোগিতার আশ্বস্ত করলেন তারা। এসময় পুনাক সভানেত্রী বলেন, মরণ ভাইরাস করোনা সতর্কতায় লকডাউনের দিন গুলিতে কেমন আছেন মৃৎ শিল্পীরা? তা দেখতেই এসেছি নিয়ামতি ইউনিয়নের মহেশপুর এলাকায় মৃৎশিল্পদের কাছে। এখানকার মৃৎশিল্পীরা মাটির হাঁড়ি, কলসি তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন ধরণের প্রদীপ, ধূনাচুর, সরা, টপ ইত্যাদি তৈরি করে জীবিকা নির্বাহ করেন। দিনে দিনে এই মৃৎশিল্প গুলো হারিয়ে যাচ্ছে, তাই তাদের দুঃখ দূরদর্শার কথা ভেবে সরকারি তহবিল থেকে যতটা সম্ভব আমরা বরিশাল জেলা পুলিশের পক্ষ তাদের মধ্যে সাহায্য সহযোগিতা হাত বাড়িয়ে দিবো। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বাকেরগঞ্জ সার্কেল সুদীপ্ত সরকার বলেন, বেশি সংখ্যক নি¤œবিত্ত হিন্দু পরিবার মৃৎশিল্পের উপরই তাদের জীবিকা নির্বাহ করে। বর্তমানে আধুনিকতার ছোঁয়ায় মৃৎশিল্প প্রায় নিঃশেষের পথে। কিছু কিছু পরিবার তাদের বংশানুক্রমে পরম্পরায় মৃৎশিল্পের উপরে নির্ভর করে তারা বেঁচে আছে।কিন্তু বর্তমানের যে অবস্থা আর হয়তোবা বেশিদিন তারা এই শিল্পের মাঝে থাকতে পারবে না। তাই আমার বিশেষ অনুরোধ থাকবে সকলে সহযোগিতা হাত বাড়িয়ে বিলুপ্তির পথ থেকে মৃৎশিল্পকে রক্ষা করতে হবে। এসময় উপস্থিত ছিলেন, সদস্য-সচিব পুনাক সহকারি পুলিশ সুপার অনন্য চক্রবর্তী।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT