জোয়ারের পানিতে ভেসে গেছে আনসার কমান্ডার সুমনের দুই পুকুরের মাছ জোয়ারের পানিতে ভেসে গেছে আনসার কমান্ডার সুমনের দুই পুকুরের মাছ - ajkerparibartan.com
জোয়ারের পানিতে ভেসে গেছে আনসার কমান্ডার সুমনের দুই পুকুরের মাছ

3:28 pm , May 27, 2021

 

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ ঘূর্ণিঝড় ইয়াস মোকাবেলায় জনসাধারণকে সতর্ক করার দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে নিজের পুকুরের মাছ রক্ষায় ব্যর্থ হয়েছে আনসার সদস্য মো. সুমন। নিজের দুইটি পুকুরের ৩/৪ লাখ টাকার মাছ ভেসে গেছে বলে দাবি করেছে সে। সুমন রাজাপুর উপজেলার ইউনিয়ন আনসার প্লাটুন কমান্ডার। সুমন জানায়, গত মঙ্গলবার থেকে তার নেতৃত্বে ২০ জন আনসার ও ভিডিপি সদস্য বিষখালী নদীর পাড় ও তীরবর্তী অধিক ঝুঁকিপূর্ন এলাকা থেকে পানিবন্দি প্রায় ৫ হাজারের অধিক লোকজন সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী যথাযথ ভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে নিরাপদে বিভিন্ন আশ্রয়কেন্দ্র ও সাইক্লোন সেল্টারে নিয়ে যান । তিনি নিজ অর্থায়নে শুকনো খাবার, বিশুদ্ধ পানি, ম্যাচ, মোমবাতি দিয়ে বন্যার্তদের সহায়তা দেন। এছাড়াও বন্যার্তদের গৃহপালিত গবাদিপশু, হাঁস মুরগী ও ব্যবহৃত প্রয়োজনীয় মালামালও নিরাপদে আশ্রয় কেন্দ্রে পৌঁছে দিতে সহায়তা দিয়েছেন। এ সময় রাজাপুর সদর উপজেলার উপজেলা (সহকারী) আনসার কোম্পানি কমান্ডার মোঃ শুক্কুর হাওলাদার,
ইউনিয়ন দলনেতা মোঃ মজিবর রহমান, ভিডিপি সদস্য মোঃ সামিম হাওলাদার, ভিডিপি সদস্য মোঃ মেহেদী হাসান, ভিডিপি সদস্য মোঃ রফিক হাওলাদার, মোঃ সামীম মৃধা, মোঃ ইছা হাওলাদার, মোঃ শাহীন এবং মহিলা ইউনিয়ন দলনেত্রী আয়েশা বেগম, ভিডিপি সদস্যা রেহেনা, ভিডিপি সদস্যা মরিয়ম আক্তার লাখি, ভিডিপি সদস্যা ফাতিমা আক্তার উপস্থিত ছিলেন।
সুমন আরো জানায়, ইয়াসের প্রভাবে তার নিজ এলাকায় ৩/৬ ফুট পানি উঠেছে। দায়িত্ব পালনের জন্য নিজের দুইটি পুকুর ও ঘেরের দিকে নজর দিতে পারেনি। পুকুর ও ঘেরে রুই, কাতলা, মৃর্গেল,
তেলাপিয়া, পাঙ্গাশ, চিংড়ি, মিনার কার্প, সিলভার কার্প, গ্রাস কার্প চাষ করেছিল। তিন বছর পূর্বে চাষ করা এসব মাছ বন্যার পানিতে ভেসে গেছে। এসে প্রায় তিন থেকে চার লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT