‘ইয়াশ’ বাংলাদেশে আঘাত হানার সম্ভাবনা কম হলেও প্রস্তুতি সম্পন্ন ‘ইয়াশ’ বাংলাদেশে আঘাত হানার সম্ভাবনা কম হলেও প্রস্তুতি সম্পন্ন - ajkerparibartan.com
‘ইয়াশ’ বাংলাদেশে আঘাত হানার সম্ভাবনা কম হলেও প্রস্তুতি সম্পন্ন

3:30 pm , May 24, 2021

 

বিশেষ প্রতিবেদক ॥ পূর্বÑমধ্য বঙ্গোপসাগর ও সংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় ‘ইয়াস’ বরিশালÑখুলনা উপকুলে সরাসরি আঘাত হানার সম্ভাবনা খুব কম হলেও দক্ষিণ উপকুলে যেকোন পরিস্থিতি মোকাবেলায় সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। আবহাওয়া বিভাগের সর্বশেষ বুলেটিনে ইয়াশ পায়রা বন্দর থেকে ৬০৫ কিলোমিটার দক্ষিনে অবস্থানের কথা জানিয়ে অনুকুল পরিস্থিতির করণে তা আরো ঘণীভুত হয়ে উত্তরÑউত্তর পশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে বুধবার ভোরে ভারতের উত্তর উড়িষ্যাÑপশ্চিমবঙ্গÑখুলনা উপকুল অতিক্রমের কথা বলা হয়েছে। তবে আবহাওয়া বিভাগের ‘ঘূর্ণিঝড়ের সম্ভাব্য গতিপথ’এর মানচিত্র অনুযায়ী ইয়াশ-এর বাংলাদেশ উপকুলে অঘাতের সম্ভাবনা কম। দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রীও সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে এমন কথাই বলেছেন। তবে পায়রা সমুদ্র বন্দরকে ২ নং দুরবর্তী সতর্ক সংকেত ও বরিশাল সহ দক্ষিণাঞ্চলের সব নদী বন্দরগুলোকে ১ নং সতর্ক সংকেতের আওতায় রাখা হয়েছে।
এদিকে দক্ষিণাঞ্চলে বিভাগীয়, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটিগুলো ইতোমধ্যে পরিস্থিতির মূল্যায়ন সহ প্রাক-প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে। রেডক্রিসেন্ট-এর ‘ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচী-সিপিপি’র প্রায় ৭৫ হাজার স্বেচ্ছাসেবককে যেকোন পরিস্থিতি মোকাবেলা সহ উদ্ধার তৎপরতার জন্য প্রস্তুত রাখা হয়েছে। তবে সোমবারও বরিশাল সহ সমগ্র দক্ষিণ উপকুলে ছিল কাঠফাটা রোদ। বরিশালে সোমবারও তাপমাত্রার পারদ ছিল ৩৬.২ ডিগ্রী সেলসিয়াসে। আগেরদিন মৌসুমের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩৮.৩ ডিগ্রী সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড কর হয়। চলতি মসে স্বাভাবিক ১৭৫ মিলিমিটারের স্থলে ২৪ দিনে বরিশালে সর্বমোট বৃষ্টি হয়েছে ২১.৬ মিলিমিটার।
বরিশালের বিভাগীয় কমিশনার, অতিরিক্ত সচিব মোঃ সাইফুল আহসান বাদল সোমবার তার সচিবালয় থেকে বিভাগীয় দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির ভার্চুয়াল সভায় যোগদিয়ে বিভিন্ন নির্দেশনা প্রদান করেন। সভায় কমিটির সদস্য ডিআইজি, মহানগর পুলিশ কমিশনার, সব জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার সহ বিভিন্ন পর্যায়ের সরকারী কর্মকর্তাগন যোগ দেন। সভায় উপকুলের ঝুকিপূর্ণ এলাকার মানুষকে আশ্রয় কেন্দ্রে নিয়ে আসা সহ সম্ভাব্য প্রাকÑপ্রস্তুতি ছাড়াও যেকোন দূর্যোগ পরবর্তি ত্রান ও উদ্ধার তৎপরতা নিয়ে আলোচনা ও দিকনির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।
এদিকে সিপিপি’র ৭৫ হাজার স্বেচ্ছাসেবকদের সাইরেন, মেগাফোন ও বিপদ সংকেত সূচক পতাকা নিয়ে প্রস্তুত রাখা হয়েছে। ‘ইয়াশ’ বাংলাদেশ উপকুলে আঘাত হানার মত পরিস্থিতি সৃষ্টি হলে সাথে সাথেই এসব স্বেচ্ছাসেবক সরোজমিনে সতর্কতা জারী করে উদ্ধার তৎপরতায় অংশ নেবেন।
উপকুলের ১৩টি জেলার ৪১টি উপজেলার ৩ হাজার ৭০১টি ইউনিটের ৭৪ হাজার ২০জন স্বেচ্ছাসেবকের সাথে রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির ৭টি আঞ্চলিক কেন্দ্র ছাড়াও ঢাকার সদর দপ্তর থেকে নিজস্ব বেতার ব্যবস্থায় সার্বক্ষনিক যোগাযোগ রাখা হচ্ছে। প্রতিটি ইউনিটকে মেগাফোন ও সাইরেন বাজিয়ে সতর্কতা জারী করার প্রস্তুতি ছাড়াও ৪ নং সতর্ক সংকেত জারী হলে লালের মাঝে কালো রঙের প্রতিক সহ ১টি পতাকা উত্তোলন করতে বলা হয়েছে। একইভাবে ৫ থেকে ৭ নং বিপদ সংকেতের জন্য ২টি এবং ৮ থেকে ১০ নং মহাবিপদ সংকেতের জন্য ৩টি পতাকা উড়িয়ে উপকুলবাসীকে সতর্ক করতেও নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।
অপরদিকে আতংকের চেয়ে সঠিক সময়ে যথাযথ দায়িত্ব পালনের জন্য প্রতিটি জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে দিক নির্দেশনা প্রদান করেছে বিভাগীয় দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটি। দক্ষিণাঞ্চলের প্রায় ২ হাজার ঘূর্ণিঝড় আশ্রয় কেন্দ্র ছাড়াও প্রয়োজনে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমনকি সরকারী স্থাপনাতেও ঝুকিপূর্ণ এলাকার মানুষকে নিরাপদে রাখার সিদ্ধান্ত রয়েছে। তবে বয়স্ক পুরুষ ও নারী ছাড়াও শিশু ও গর্ভবতীদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে নিরাপদ আশ্রয়ে রাখা হবে। প্রতিটি ক্ষেত্রে মাস্ক পরিধান সহ স্বাস্থ্য বিধি মানার উপরও জোর দেয়া হয়েছে।
এদিকে আবহাওয়া অধিদপ্তরের সর্বশেষ পর্যবেক্ষনে পূর্বÑমধ্য বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় ‘ইয়াস’ ১৬.৬ ডিগ্রী উত্তর অক্ষাংশ ও ৮৯.৫ পূর্ব দ্রাঘিমাংশে স্থির থাকার কথা জানিয়ে ঝড়টির অবস্থান সোমবার দুপুরে পায়রা বন্দর থেকে ৬০৫ কিলোমিটার দক্ষিণে নির্নয় করা হয়। উত্তর বঙ্গোপসাগর ও গভীর সাগরে অবস্থনরত সব নৌকা ও ট্রলারসমুহকে অবিলম্বে নিরাপদ আশ্রয়ে ফিরতে বলেছে আবহাওয়া বিভাগ।
আবহাওয়া বিভাগের মতে ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের ৫৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘন্টায় ৬২ কিলোমিটার, যা দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়ার আকারে ৮৮ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। সাগর খুবই উত্তাল রয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT