মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ইয়াবা-গাঁজা ব্যবসা করতে বাধ্য করার অভিযোগে নারীর সংবাদ সম্মেলন মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ইয়াবা-গাঁজা ব্যবসা করতে বাধ্য করার অভিযোগে নারীর সংবাদ সম্মেলন - ajkerparibartan.com
মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ইয়াবা-গাঁজা ব্যবসা করতে বাধ্য করার অভিযোগে নারীর সংবাদ সম্মেলন

3:23 pm , May 24, 2021

কলাপাড়া প্রতিবেদক ॥ ইয়াবা ব্যবসা করতে বাধ্য না হওয়ায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের উপ-পরিদক কর্তৃক স্বামীসহ একাধিক মামলার আসামী হয়ে প্রতিকার চেয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করেছে মোসাঃ রুনা বেগম নামের এক নারী। সে পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার টিয়াখালী ইউনিয়নের পশ্চিম বাদুরতলী গ্রামের আমির হোসেনের স্ত্রী। স্বামী, এক নাবালক পুত্র এবং নিজে হয়রানী থেকে রক্ষার জন্য সোমবার দুপুরে প্রেসক্লাবে কলাপাড়া মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের উপ-পরিদর্শক রুহুল আমিন, জহিরুল ইসলামসহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে সাংবাদিক সম্মেলনে এ অভিযোগ উত্থাপন করেন।
মোসাঃ রুনা বেগম সাংবাদিক সম্মেলনে উল্লেখ করেন, ‘হয় ইয়াবার ব্যবসা করবি, নয় মামলা খাবি। আমি ভাল অইতে চাই, ক্যামনে ভাল অমু।’ ইয়াবা-গাঁজাসহ মাদকের ব্যবসা না করলে একের পর এক মাদকের মামলা দেয়া হচ্ছে। এ পর্যন্ত ছয়টি মামলা দেয়া হয়েছে। প্রয়োজনে এক লাখ টাকা নে। ইয়াবার ব্যবসা করবি। প্রত্যেক মাসে দুইডা আসামি ধরাইয়া দিবি। এসব কাজে রাজি না হওয়ায় একের পর এক মাদক মামলায় আসামি করা হচ্ছে বলে সংবাদ সম্মেলনে দাবি করেন মোসাঃ রুনা বেগম।
রুনা বেগম আরো বলেন, প্রথমে অভাবের তাড়নায় মাদকের ব্যবসা করতে গিয়ে ১০ মাস জেল খেটেছি। এরপর সব ছেড়ে ভাল হওয়ার চেষ্টা করছি। কিন্তু মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর একের পর এক মিথ্যা মামলা দিয়ে যাচ্ছে। সবশেষ ২২ মে বাসায় ঢুকে তার স্বামী আমির হোসেনকে ধরে নিয়ে গ্রেফতারি পরোয়ানার কথা বলে ইয়াবা ও গাঁজার আরও একটি মামলা দেয়। বাসায় ঘুম থেকে জাগিয়ে সবাইকে মারধর করা হয়েছে। রুনা বেগম বলেন, মাদকের ব্যবসা থেকে ফিরে আসতে চাইলেও এখন মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের কর্মকর্তাদের কারনে পারছেন না। শ্রমজীবী স্বামীকে বার বার ধরা হয়। নিজেকেসহ মোট ছয়টি মামলায় আসামি করা হয়েছে। এখন অগ্রিম টাকা দিয়ে ব্যবসা করার চাপ দিচ্ছে এবং প্রত্যেক মাসে দুইজন করে আসামি ধরিয়ে দেয়ার জন্য এভাবে হামলা পর্যন্ত চালানো হয়েছে। এমনকি চুলের মুঠি ধরে বাসায় ঢুকে মারধরের অভিযোগ করা হয়েছে। নিরীহ ছেলেকে মারধর করা হয়েছে। এই মহিলা নিজের পরিবারকে মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর কলাপাড়ার কর্মকর্তাদের কবল থেকে রক্ষার দাবি জানান।
এব্যাপারে কথা বলতে কলাপাড়া মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের পরিদর্শক মোঃ ফরহাদ হোসেনের সঙ্গে মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT