ছয় মাস বৃষ্টিহীন বরিশাল ! ক্ষেতেই পুড়ছে ফসল !! ছয় মাস বৃষ্টিহীন বরিশাল ! ক্ষেতেই পুড়ছে ফসল !! - ajkerparibartan.com
ছয় মাস বৃষ্টিহীন বরিশাল ! ক্ষেতেই পুড়ছে ফসল !!

3:32 pm , April 29, 2021

মুরাদ আহমেদ, অতিথি প্রতিবেদক ॥ গত ৬ মাস থেকে বরিশালে বৃস্টি না থাকায় অধিকাংশ স্থানেই গ্রীস্মকালীন ফসল মাঠে মারা পড়ার উপক্রম হয়েছে। সেচ দিয়ে বোরো রক্ষা করা গেলেও সবজি বাঁচানো যাচ্ছে না। ফসল বাঁচাতে পরামর্শ দেয়া ছাড়া আর কিছুই করছে না কৃষি বিভাগ। বরিশালে সর্বশেষ বৃস্টি হয়েছে গত বছরের ৩১ অক্টোবর। ৪ দশমিক ৮ মিলিমিটার। এর পর থেকে কখনো কখনো আকাশে মেঘ দেখা গেলেও বৃস্টির দেখা মেলেনি। গত ১২ বছরের ইতিহাসে বরিশালে এমন টানা ৬ মাস বৃস্টি না হবার রেকর্ড নেই। গত বছর এপ্রিল মাসে যেখানে ১৭৮ মিলিমিটার বৃস্টি রেকর্ড করা হয়। সেখানে এ বছর এপ্রিল মাসে আজ পর্যন্ত এক ফোটাও বৃস্টি রেকর্ড করা হয়নি এই বরিশালে। ২০১৫ সালের জুন মাসে মোট ২০ দিন বৃস্টি হয়েছে এবং জুলাই মাসে ২৮ দিন বৃস্টি হয়েছে। ঐ বছর জুলাই মাসে কেবল ৩, ১৩ ও ১৪ তারিখ বৃস্টি হয়নি। এ দুমাসে বৃস্টি হয়েছে ১ হজার ৪৮৫ মিলিমিটার । ২০১৬ সালের ২১ আগস্ট ৪৯ বছরের রেকর্ড ভেঙ্গে ২৪ ঘন্টায় বৃস্টি হয়েছে ২৭৪ দশমিক ৪ মিলিমিটার । এর আগে ১৯৬৮ সালে ২৬৮ মিলি বৃস্টি হয়েছিলো। এছাড়া ২০১৯ সালের ১০ তারিখ ২৪ ঘন্টায় ২৬১ দশমিক ৮ মিলিমিটার বৃস্টি হয়েছে। এদিকে গত ৭ বছরের মধ্যে বরিশালে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৮ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে গত ২৫ এপ্রিল। এর আগে ২০১৪ সালের এপ্রিল মাসে সর্বোচ্চ ৩৮ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় বরিশালে। এ অবস্থায় বরিশালের ক্ষেতগুলোতে থাকা গ্রীস্ম সবজির উল্লেখযোগ্য অংশ রোদে পুড়ে ছাই হয়েছে। এখন পর্যন্ত ক্ষতিগ্রস্থ ফসলের মধ্যে রয়েছে ঢেরস, চিনা বাদাম, মিস্টি আলু, মরিচ, ভুট্টা সয়াবিন সূর্য্যমূখী, মুগ, ফেলন ইত্যাদি। কৃষক এসব ক্ষতিগ্রস্থ ফসল নিয়ে এখন চিন্তিত। এসব চাষাবাদের মুলধন ফেরত পাবার আশা চেড়ে দিয়েছেন অনেকেই। অনেক কৃষকের অভিযোগ কৃষি কর্তারা সময় মতো মাঠে এলে ফসল বাচানো যেতো। বরিশাল জেলায় এবারে এক লাখ এক হাজার টন গ্রীস্মকালীন সবজি উদপাদনের লক্ষমারা নিয়ে ৪১৫০ হেক্টর জমিতে চাষাবাদ করেছিলো কৃষক। বৃস্টি হলে কৃষক লাভবান হতো অনেক বেশি। কিন্তু টানা বৃস্টিহীনতায় ইতিমধ্যেই ২৫ ভাগ জমির ফসল মার পড়েছে। কৃষি বিভাগ দিচ্ছে ফসল বাচানোর পরামর্শ। তবে কৃষি বিভাগের মতে ঘরে দাঁড়াবে কৃষক। তারা গ্রীস্মের চাষাবাদে কৌশল পরিবর্তনের চিন্তাও করছেন বলে জানিয়েছেন। প্রকৃতিগত পরিবর্তনের শিকার বরিশালের ফসল রক্ষায় চাষাবাদ কৌশল পরিবর্তনের উপর জোর দিয়েছেন স্থানীয় সচেতন সমাজ। পাশাপাশি বৃস্টির ধারাবাহিকতা রক্ষায়ও ব্যাবস্থা নেয়ার দাবি এদের।

এই বিভাগের আরও খবর

বসুন্ধরা বিটুমিন

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT