বাড়ছে ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা হিমশিম খাচ্ছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বাড়ছে ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা হিমশিম খাচ্ছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ - ajkerparibartan.com
বাড়ছে ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা হিমশিম খাচ্ছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ

3:31 pm , April 17, 2021

 

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ ॥ বরিশালে হু হু করে বাড়ছে ডায়েরিয়ায় আক্রান্তের সংখ্যা। ফলে তা সামাল দিতে হিমশিম খাচ্ছে বরিশাল জেনারেল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। হাসপাতালের ডায়রিয়া ওয়ার্ডে জনবল ও স্থান সংকট, আইভি স্যালাইনের অপর্যাপ্ততায় মারাত্মক বেগ পেতে হচ্ছে কর্মরতদের। প্রত্যেকদিন দ্রুতগতিতে রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় হাসপাতাল কম্পাউন্ড, মেঝে ও সিঁড়িতেও স্থান সংকুলান হচ্ছে না। তাই বাইরে প্যান্ডেল করে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হচ্ছে। ডায়রিয়ার প্রকোপ এভাবে বাড়তে থাকলে অস্থায়ী প্যান্ডেলেও স্থান সংকুলান হবে না। এছাড়া ডায়রিয়ায় আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে করোনা ভাইরাসের উপসর্গ পাওয়া যাচ্ছে। তাদের আলাদা করে চিকিৎসা দেওয়া হলেও স্বাস্থ্যঝুঁকিতে রয়েছেন হাসপাতালের চিকিৎসক-সেবিকাসহ কর্মরতরা।
জানা গেছে, চলতি মাসে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে বরিশাল জেনারেল হাসপাতালের ডায়রিয়া ওয়ার্ডে চিকিৎসা নিয়েছেন ৭০৯ জন। প্রতিদিন ৫০-৬০ জন রোগী ভর্তি হওয়ায় এর সংখ্যা দ্রুতগতিতে বাড়ছে। শনিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত হাসপাতাল কম্পাউন্ড ও অস্থায়ী প্যান্ডেল ৫০ জন রোগী ভর্তি ছিলেন। রোগীর সংখ্যা এভাবে বাড়তে থাকলে কয়েকদিনের মধ্যেই প্যান্ডেলেও স্থান সংকট দেখা দেবে। এছাড়া ডায়রিয়া রোগীর চিকিৎসায় সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ আইভি স্যালাইনের অপর্যাপ্ততা রয়েছে। ফলে রোগীদের তা আনুপাতিক হারে দেওয়া হচ্ছে। এছাড়া নিয়োগ কার্যক্রম বন্ধ থাকায় কম জনবল নিয়ে চলছে বরিশাল জেনারেল হাসপাতালের ডায়রিয়া ওয়ার্ড। ফলে সেবা প্রদানে মারাত্মক বেগ পেতে হচ্ছে কর্মরতদের।
বরিশাল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মলয় কৃষ্ণ বড়াল জানান, পর্যাপ্ত আইভি স্যালাইনসহ অন্যান্য ওষুধ চেয়ে আবেদন করা হয়েছে। যা আগামী শুক্রবার হাসপাতালে পৌঁছাবে। জনবল সংকট দূরিকরণে উর্ধ্বতনরা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। এছাড়া করোনার উপসর্গ প্রকাশ পাওয়া রোগীদের আলাদা করে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। রমজান ও লকডাউন চলামান থাকায় সামাজিক অনুষ্ঠান কমেছে। ফলে ডায়রিয়া আক্রান্তের সংখ্যা কমার সম্ভাবনা রয়েছে।
ডায়রিয়া প্রতিরোধে করণীয় সম্পর্কে তিনি বলেন, মার্চ-এপ্রিলে এই রোগের প্রকোপ বৃদ্ধি পায়। তাই ডায়রিয়া থেকে বাঁচতে মলত্যাগে স্যানিটারি ল্যাট্রিন ব্যবহার করতে হবে। পায়খানা করার পর ও খাওয়ার আগে ভালোভাবে হাত ধুয়ে নিতে হবে। এছাড়াও খাবার তৈরি করা ও পরিবেশন করার পূর্বে অবশ্যই সাবান দিয়ে হাত পরিষ্কার করা উচিত। ব্যবহার্য থালা-বাসন, চামচ-বাটি ইত্যাদিও ভালো করে ধুয়ে নিন। এসব কাজে নিরাপদ পানি ব্যবহার করুন। বাসি-পঁচা খাবার, মাছি বসা খাবার এবং বাইরের খোলা খাবার, শরবত বা ফলের রস খাওয়া থেকে বিরত থাকুন। পরিষ্কার পাত্রে রাখা টিউবওয়েলের নিরাপদ পানি কিংবা ফোটানো পানি ঠান্ডা করে পান করুন।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  




মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT