মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের কমিটি গঠন নিয়ে হট্টগোল মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের কমিটি গঠন নিয়ে হট্টগোল - ajkerparibartan.com
মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের কমিটি গঠন নিয়ে হট্টগোল

3:11 pm , March 3, 2021

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের নতুন কমিটি গঠন নিয়ে হট্টগোল ও মারমুখী পরিস্থিতি হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে নগরীর সদর রোড আর্য্য লক্ষ্মী ভবনে সংগঠনের সাধারন সভায় এ ঘটনা ঘটেছে। অভিযোগ উঠেছে সিটি মেয়রের নাম ভাঙিয়ে গঠনতন্ত্র পরপন্থী কমিটি গঠনের দাবীর প্রেক্ষিতে ওই পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে।
জানা গেছে, সংগঠনের সভাপতি নারায়ণ চন্দ্র দে নারু’র সভাপতিত্বে ওই সভা হয়। সভায় গঠনতন্ত্র অনুযায়ী নতুন কমিটি গঠনের উদ্দেশ্যে নির্বাচনী কমিটি গঠনের উদ্যোগ নেয় কার্য নির্বাহী পরিষদ। গঠনতন্ত্র অনুযায়ী সহসভাপতি বৃন্দ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকবৃন্দ, সাংগঠনিক ও অর্থ সম্পাদকসহ আরো বেশ কিছু পদধারী নেতারা নির্বাচনী পরিষদের সদস্য হয়। গঠনতন্ত্রের এই নিয়ম ঘোষনা দেয়ার সময় মহাশ্মশান রক্ষা কমিটির সাধারণ সম্পাদক তমাল মালাকার হট্টগোল শুরু করেন।
সভায় উপস্থিত সদস্যরা জানায়, তমালের সাথে সিটি কর্পোরেশনের সংরক্ষিত ওয়ার্ডের কাউন্সিলর গায়েত্রী সরকার পাখি কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্যদের উপর চড়াও হয়ে ওঠেন। তমাল ও গায়েত্রী দাবী করেন, “গঠনতন্ত্র দিয়ে সব কিছু হয় না। পূজা পরিষদের কমিটি গঠনে গঠনতন্ত্রের এখন আর দরকার পড়বে না। তাদের দাবি নির্বাচনী/সাবজেক্ট কমিটি গঠন না করে পূজা পরিষদের কমিটি করা হবে। কারন তমাল সভাপতি ও গায়েত্রী সাধারন সম্পাদক প্রার্থী। তাই সম্মেলনে যার পক্ষে বেশি হাত তুলবেন তারাই সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক হবেন বলে দাবি করেন তমাল ও গায়েত্রী।
এই দাবী অযৌক্তিক জানিয়ে সভার অন্য সদস্যরা প্রতিবাদ করেন। এ সময় বিশ্বজিৎ ঘোষ বিশু বলেন, সংগঠনের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী কমিটি গঠন করতে হবে। তাতে ক্ষুব্ধ হয়ে বিশুর দিকে তেড়ে যান তমাল মালাকার। এ ঘটনায় মহানগর ও জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের নেতাদের মধ্যে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।
পূজা পরিষদের আইন বিষয়ক সম্পাদক এ্যাড সুভাষ চন্দ্র দাস নিতাই জানান, ধর্মীয় সংগঠন একটা অনুভুতির জায়গা । এটি কোন রাজনৈতিক সংগঠন নয়। সামাজিক ও ধর্মীয় সংগঠন চর দখল করার মতও নয়। নেতৃত্ব পেতে কেউ যদি অগঠনতান্ত্রিক অযৌক্তিক কিছু করে সেটা মেনে নেয়া যায় না।
এ বিষয়ে জানতে বরিশাল মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারন সম্পাদক সুরঞ্জিৎ দত্ত লিটু হট্টগোলের বিষয়টি স্বীকার করে জানান, একটি বড় সংগঠনে এমন ছোটখাটো ঘটনা ঘটে। তাছাড়া যা কিছু হয়েছে তা সিনিয়ররা সমাধান করেছেন।
পূজা পরিষদের মহানগরের সভাপতি নারায়ণ চন্দ্র দে নারু জানান, সব সংগঠনেই একটা গঠনতন্ত্র থাকে, পূজা পরিষদেও আছে। সভার সিদ্ধান্ত এবং গঠনতন্ত্র অনুয়ায়ীই তার পরিষদ নতুন কমিটি উপহার দিয়ে দায়িত্ব হস্তান্তর করবেন। ঘটনার বিষয়ে তমাল মালাকার দাবী করেন, তার বিরুদ্ধে মিথ্যা রটানো হচ্ছে। সংরক্ষিত ওয়ার্ডের কাউন্সিলর গায়েত্রী সরকার পাখি বলেন, অভিযোগটা সম্পূর্ন মিথ্যা। আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করা হচ্ছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  




মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT