মামলা ও এসআই প্রত্যাহারের দাবীতে চিকিৎসকদের ৪৮ ঘন্টার আল্টিমেটাম মামলা ও এসআই প্রত্যাহারের দাবীতে চিকিৎসকদের ৪৮ ঘন্টার আল্টিমেটাম - ajkerparibartan.com
মামলা ও এসআই প্রত্যাহারের দাবীতে চিকিৎসকদের ৪৮ ঘন্টার আল্টিমেটাম

3:30 pm , December 29, 2020

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বাংলাদেশ মেডিক্যাল এসোসিয়েশনের (বিএমএ) বরিশালের সভাপতি’র সাথে কোতয়ালী মডেল থানার এসআই’র অসদাচারন ও ক্ষমতার অপব্যবহারে ক্ষুব্ধ চিকিৎসকরা আন্দোলনে ঘোষনা দিয়েছেন। বিএমসএ’র সভাপতি ডা. ইশতিয়াক হোসেনের বিরুদ্ধে মামলা ও এসআইকে প্রত্যাহারে ৪৮ ঘন্টার আল্টিমেটাম দেয়া হয়েছে। গতকাল মঙ্গবার বিএমএর জরুরী সভা শেষে ওই আল্টিমেটাম দেয়া হয়। ঘোষনা অনুযায়ী চিকিৎসকরা মানব বন্ধন ও প্রাইভেট চেম্বার বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এরপরেও তাদের দাবী পুরন না হলে আরো কঠোর কর্মসুচী পালনের হুশিয়ারী দিয়েছেন চিকিৎসকরা। বিএমএর সাধারন সম্পাদক ডা. মো. মনিরুজ্জামান শাহিন বলেন, জরুরী সভায় সিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্রাথমিক ভাবে এসআই রিয়াজুলকে কোতয়ালী থানা থেকে প্রত্যাহার, সভাপতি’র বিরুদ্ধে করা হয়রানী মুলক মামলা প্রত্যাহার এবং আগামীতে যে কোন চিকিৎসককে এভাবে হয়রানী না করা হয় তার দাবী জানানো হয়। আগামী ৪৮ ঘন্টার মধ্যে পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের দাবী পুরণের জন্য আল্টিমেটাম দেয়া হয়েছে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে দাবী পুরণ না করা হলে চিকিৎসকরা মানববন্ধন করবে। এছাড়াও চিকিৎসকদের প্রাইভেট চেম্বার বন্ধ রাখা হবে। পর্যায় ক্রমে আরো কঠোর কর্মসূচী নেয়া হবে বলে জানান মানিরুজ্জামান শাহিন। এর আগে বেলা ১২টা বিএমএ’র সভাপতি ডাঃ মোঃ ইসতিয়াক হোসেন’র সভাপতিত্বে শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ কনফারেন্স কক্ষে এ জরুরী সভা অনুষ্টিত হয়। সভায় কলেজ অধ্যক্ষ ডাঃ এস এম সরওয়ার, সাবেক অধ্যক্ষ ডাঃ রনিজৎ খা, সহ-সভাপতি ও সাবেক অধ্যক্ষ ডাঃ সৈয়দ মাকসুমুল হক, সাধারণ সম্পদাক প্রফেসর ডাঃ মোঃ মনিরুজ্জামান শাহিন, প্রফেসর ডাঃ জহিরুল হক মানিক, ডাঃ হাওয়া আক্তার জাহান, ডাঃ ইমরুল কায়েস, ডাঃ নাজিমুল হক, শেবাচিমের আউটডোর ডক্টরস এসোসিয়েশনের সভাপতি ডাঃ সৌরভ সুতার, সাধারণ সম্পাদক নূরুন্নবি তুহিন, বিএমএ’র সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক ভিপি ডাঃ মাসরেফুল ইসলাম সৈকত, অন্তঃবিভাগ চিকিৎসক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ডাঃ আসিক দত্ত, ডাঃ সিরিন সাবিহা তন্নি বক্তব্য রাখেন।
বিএমএ নেতৃবৃন্দ জানিয়েছেন, নগরীর ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালের কনসালটেন্ট হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন ডা. এমএস রহমান সুমন। গত ১৬ ডিসেম্বর ওই চিকিৎসক মানিক কারিকর নামের এক রোগীর অস্ত্রপচার করে। পরে রোগীর অস্ত্রপচারে জটিলতা দেখা দেয়। রোগী বিষয়টি ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. মো. ইসতিয়াক হোসেনকে অবহিত করেন। মানবিক দিক বিবেচনা করে পরবর্তি চিকিৎসার বিষয়ে সকল ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দেন ডা. ইশতিয়াক। তবুও রোগী কতিপয় ব্যক্তির প্ররোচনায় কোতয়ালী মডেল থানায় অভিযোগ দেয়। গত ২২ ডিসেম্বর রাত ৯টার দিকে অভিযোগ তদন্তে ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালে যায় কোতয়ালী মডেল থানার এসআই রিয়াজুল। এ সময় মোবাইল ফোনে হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ও বিএমএ’র সভাপতি ডা. মো. ইসতিয়াক হোসেনের সাথে ঔদ্ধত্যপূর্ন ও অসৌজন্যমূলক আচরন করে এসআই রিয়াজুল। এছাড়াও তাকে ২নং আসামী করে মামলা নেয়ার হুমকি দেয়। পরে রোগী মামলা প্রত্যাহার করতে গেলে থানা থেকে গড়িমসি করা হয়। যার পরিপ্রেক্ষিতে রোগী গত ২৪ ডিসেম্বার এফিডেভিটের মাধ্যমে মামলা প্রত্যাহারের আবেদন করেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮  
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT