৭২ ঘন্টায় দখিনে আক্রান্ত ৭০ জন ॥ নগরীতেই ৪৪ ৭২ ঘন্টায় দখিনে আক্রান্ত ৭০ জন ॥ নগরীতেই ৪৪ - ajkerparibartan.com
৭২ ঘন্টায় দখিনে আক্রান্ত ৭০ জন ॥ নগরীতেই ৪৪

2:57 pm , November 19, 2020

বিশেষ প্রতিবেদক ॥ করোনা সংক্রমনে দক্ষিণাঞ্চলে আরো একজনের মৃত্যুর মধ্য দিয়ে মোট সংখ্যাটা ১৮২’তে উন্নীত হল। এতে মৃত্যুহার দশমিক ১ভাগ বেড়ে ১.৯২%-এ উন্নীত হয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় বরগুনার আমলকিতলার পরিখালীতে ৮০ বছরের এক বৃদ্ধ জেলা সদর হাসপাতালে মারা গেছেন। ফলে এ জেলাটিতে ৯৭৭ জন আক্রান্তের মধ্যে মৃত্যুর সংখ্যা ২১ জনে দাড়াল। এদিকে বৃহস্পতিবার সকালের পূবর্বতি ৭২ ঘন্টায় দক্ষিণাঞ্চলে ৭০ জন কোভিড-১৯’এ আক্রান্তের কথা জানিয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগ। এর পূর্ববর্তী ৭২ ঘন্টায় আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৯২ জন। তবে কোন মৃত্যু সংবাদ ছিল না। বৃহস্পতিবার সকালের পূর্ববর্তি ৭২ ঘন্টায় বরিশাল জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা ৫২ জন। যার ৪৪ জনই নগরীতে। এ নিয়ে বরিশাল জেলায় মোট ৪ হাজার ২০৯ জন আক্রান্তের মধ্যে মহানগরীতেই সংখ্যাটা প্রায় ৩ হাজার ১শর ওপরে। আর দক্ষিণাঞ্চলের ৬ জেলায় বুধবার পর্যন্ত সর্বমোট আক্রান্তের সংখ্যা দাড়িয়েছে ৯ হাজার ৪৯৮ জনে। মারা গেছেন ১৮২ জন। যার মধ্যে বরিশাল জেলায় ৭৫ জনের মধ্যে মহানগরীতেই মারা গেছেন প্রায় ৪০ জন। এ অঞ্চলে মৃত্যুহার ১.৯২%। তবে স্বাস্থ্য বিভাগের অনুমিত হিসেবানুযায়ী গত ৭২ ঘন্টায় এ অঞ্চলে নতুন ৪৫ জন সহ মোট সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৮ হাজার ৬৯২ জন। তবে সুস্থতার হার ইতোপূর্বের ৯৩.৭৫% থেকে ৯১.৫১%-এ হ্রাস পেয়েছে। এদিকে বৃহস্পতিবার সকালের পূর্ববর্তি ২৪ ঘন্টায় শের এ বাংলা মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা আগের দিনের চেয়ে ৩২ জন হ্রাস পেয়ে ২১৬ জনে এসেছে। যেখানে ১৯ জনের দেহে করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে। আগের দিন ২৪৮ জনের মধ্যে শনাক্তের সংখ্যা ছিল ২৮। ভোলাতে বৃহস্পতিবার ৭৫ জনের মধ্যে ৪ জনের পজিটিভ শনাক্ত হয়। আগেরদিন সংখ্যাটা ছিল ৪৭ জনে দুজন। সর্বশেষ হিসেবানুযায়ী গড় শনাক্তের হার ১৬.৮৭%। যা আগের দিন ছিল ১৬.৯১%। দক্ষিণাঞ্চলের ৬ জেলার মধ্যে এখনো বরিশাল মহানগরীর পরিস্থিতি উদ্বেগজনক হলেও তা নিয়ে নগর প্রশাসন ও জেলা প্রশাসনের খুব বেশী হেলদোল লক্ষনীয় নয়। এখনো প্রতিদিন দক্ষিণাঞ্চলে যে পরিমান মানুষ নতুন করে করোনা সংক্রমিত হচ্ছে, তার প্রায় ৭০ ভাগই বরিশাল মহানগরীতে। সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখা ও মাস্ক পরা সহ কোন স্বাস্থ্যবিধি এখন আর কেউ অনুসরন করছে না। তবে গত কয়েকদিন বরিশাল মহানগরীতে ভ্রাম্যমান আদালত কিছু পথচারীকে জরিমানা করেছে। কিন্তু অনেক সরকারী দপ্তরের কর্মচারীরা পর্যন্ত মাস্ক ব্যবহার করছেন না। এসব বিষয়ে স্থানীয় সরকার ও জেলাÑউপজেলা প্রশাসন সহ আইনÑশৃখলা বাহিনীকে আরো কঠোর মনোভাব পোষনের তাগিদ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকগন। এমনকি শীতের শুরুতে দক্ষিণাঞ্চলেও করোনার দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হতে যাচ্ছে বলে সতর্ক করে দিয়ে সাধারন মানুষকে কঠোর বার্তা দেয়ার কথাও বলেছেন চিকিৎসকগন। স্বাস্থ্য বিভাগের দায়িত্বশীল মহলও বিষয়টি নিয়ে খুব স্বস্তিতে নেই বলে জানা গেছে। গত ৭২ ঘন্টায় পটুয়াখালীতে নতুন একজন সহ মোট আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ১ হাজার ৫৬৭। মঙ্গলবার ও বৃহস্পতিবার এ জেলায় কোন আক্রান্ত ছিলনা। জেলাটিতে এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৩৮ জনের। দ্বীপজেলা ভোলাতে গত ৭২ ঘন্টায় ৮ জনসহ মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাড়িয়েছে ৮৬৪ জনে। ভোলাতে গত ১৫ দিনে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে চলেছে। জেলাটিতে মারা গেছেন ৮ জন। পিরোজপুরে এ সময়ে নতুন আক্রান্তের সংখ্যা একজন। জেলাটিতে আগের দু দিন কোন আক্রান্ত না থাকলেও গতকাল একজন শনাক্তের কথা বলেছে স্বাস্থ্য বিভাগ। জেলাটিতে এ পর্যন্ত ১ হাজার ১২২ জন আক্রান্তের মধ্যে মারা গেছেন ২৪ জন। বরগুনাতে গত ৭২ ঘন্টায় আরো দুজন সহ মোট আক্রান্ত ৯৭৬। জেলাটিতে মঙ্গলবারে কোন আক্রান্ত না থাকলেও গত দুদিন একজনের দেহে করোনা পজিটিভ সনাক্ত হয়। পাশাপাশি একজনের মৃত্যুও হয়েছে। জেলাটিতে এ পর্যন্ত মারা গেছেন ২০ জন। এছাড়া ঝালকাঠিতে এ সময়ে আরো ৫ জন সহ মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৭৫৮। ছোট এ জেলাটিতে এ পর্যন্ত মারা গেছেন ১৬ জন। বরিশাল শের এ বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে বুধবার সকালে ২৩ জন রোগী চিকিৎসাধীন ছিলেন। এ সময়ে হাসপাতালটির আইসোলেশনে ৩৮ জন ছাড়াও আইসিইউ’তে ৬ জন রোগী চিকিৎসাধীন ছিলেন। গত মাসের একই দিনে এ হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে ৮ জন, আইসোলেশনে ১৩ জন ও আইসইউ’তে ৭ জন রোগী চিকিৎসাধীন ছিলেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT