ভোলায় সন্তান বিক্রিতে বাঁধা দেয়ায় স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রী হত্যার অভিযোগ ভোলায় সন্তান বিক্রিতে বাঁধা দেয়ায় স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রী হত্যার অভিযোগ - ajkerparibartan.com
ভোলায় সন্তান বিক্রিতে বাঁধা দেয়ায় স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রী হত্যার অভিযোগ

2:56 pm , October 31, 2020

ভোলা অফিস ॥ ভোলায় পাঁচ মাসের কন্যা সন্তান বিক্রিতে বাঁধা দেয়ায় স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রীকে নির্যাতন করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। পুলিশ বলছে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে। ভোলা সদর উপজেলার আলীনগরে কন্যা সন্তান বিক্রি করতে না দেওয়ায় স্ত্রীকে মারধর ও নির্যাতন করে স্বামী নিরব। তারই ধারাবাহিগতায় শুক্রবার নির্যাতনের শিকার গৃহবধু বিবি মরিয়ম অজ্ঞান হয়ে পড়লে তার মুখে বিষ ঢেলে দেয় নিরব বলে অভিযোগ উঠেছে। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। শুক্রবার আলীনগর ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে। শনিবার দুপুরে ভোলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গৃহবধু মরিয়ম মারা যায়। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানা গেছে। মরিয়মের পরিবার সূত্রে আরো জানা যায়,দেড় বছর আগে সদরের আলীনগর ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা মৃত সুলতান আহমেদের ছেলে মোঃ নিরবের সাথে ২নং ওয়ার্ডের বিবি মরিয়ম (২৫) এর বিবাহ হয়। বিয়ের পর থেকে নিরব যৌতুকের জন্য মরিয়মকে মারধর ও নির্যাতন করতো। স্বামীর নির্যাতনের হাত থেকে বাঁচতে মরিয়ম প্রায় সময় বাপের বাড়ি থেকে যৌতুকের টাকা সাধ্যমত এনে দিতো নিরবের হাতে। স্বামীর অত্যাচার-নির্যাতনের কথা মাকে জানাতো মরিয়ম। মারধর ও নির্যাতনের বিষয়টি স্থানীয় ইউপি সদস্য ও চেয়ারম্যানকে জানালে নিরবকে ডেকে মিলেমিশে থাকার কথা বলেন। নিরব ও মরিয়মের ঘর আলো করে একটি কন্যা সন্তানের জন্য হয়। যার বয়স বর্তমানে ৫মাস।কন্যা সন্তান জন্ম নেওয়ার কিছুদিন পর নিরব সন্তানকে বিক্রি করার সিদ্ধান্ত নেয়। মরিয়ম তাতে রাজি না হয়ে সন্তান বিক্রিতে বাঁধা দেয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে নিরব প্রায় সময় মরিময়কে বেধড়ক মারধর করতো। এরই ধারাবাহিকতায় শুক্রবার নিরব কন্যা সন্তানকে বিক্রি করার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়। এতে বাধা দেয় মরিয়ম। সন্তান বিক্রি করতে বাধা দেওয়ার কারণে বিবি মরিয়মকে স্বামী নিরব এলোপাথারী মারধর করে। মারধরের এক পর্যায়ে মরিয়ম অজ্ঞান হয়ে পড়ে। এ সময় নিরব মরিয়মের মুখে বিষ ঢেলে দিয়ে চলে যায়। মরিয়মের চিৎকার শুনে এলাকাবাসী এগিয়ে এসে তাকে অজ্ঞান অবস্থায় দেখতে পায়। পরে তারা নিরবের মাকে মরিয়মের মুখে কি দিয়েছে জিজ্ঞাস করলে তিনি বলেন কদুর তেল দেওয়া হয়েছে, কিছুই হবে না বলে জানায়। পরে স্থানীয় লোকজন মরিয়মকে অজ্ঞান অবস্থায় উদ্ধার করে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার বিবি মরিময় হাসপাতালে মারা যায়। খবর পেয়ে পুলিশ হাসপাতালে গিয়ে মরিয়মের লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করেছে। এ ব্যাপারের মরিয়মের পরিবারের পক্ষ থেকে মামলার প্রস্ততি চলছে বলে জানা যায়। অভিযুক্ত পাষন্ড স্বামী মোঃ নিরবের সাথে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি। এ ব্যাপারে ভোলা সদর থানার ওসি এনায়েত হোসেন বলেন, মরিয়মের মৃত্যুর খবর শুনেছি। মরিয়মের লাশ মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে মামলা হলে তদন্ত সাপেক্ষে উদঘাটন করা হবে।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT