নারীর পাশে পুলিশ আছে -এআইজি সহেলী নারীর পাশে পুলিশ আছে -এআইজি সহেলী - ajkerparibartan.com
নারীর পাশে পুলিশ আছে -এআইজি সহেলী

3:08 pm , October 17, 2020

নারী নির্যাতন প্রতিরোধে জিরো টলারেন্স -পুলিশ কমিশনার

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ কমিউনিটি ও বিট পুলিশিং শাখার এআইজি সহেলী ফেরদৌস বলেছেন, সারাদেশে বিট পুলিশিং এর আওতায় ৬ হাজার ৯১২ টি বিট রয়েছে। আজ আমরা একসাথে, একই দিনে, একইসময় সারা দেশে নারী ধর্ষন ও নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ করেছি। কারণ বাংলাদেশ পুলিশ আপনার সাথে আছে এই ম্যাসেজটি দেয়া। যে কোনো জায়গায়, যে কোনো ঘটনা আপনারা শুনতে পান, দেখতে পান অথবা জানতে পারেন তাহলে সাথে সাথে আমাদের জানাবেন। যদি থানা পর্যন্ত যেতে না চান বা যেতে না পারেন তাহলে আপনার বিট অফিসারকে মোবাইলে ফোন দিয়ে জানান আপনার সমস্যার কথা। বাংলাদেশ পুলিশ আপনার সাথে থাকবে। বিটের মাধ্যমে এলাকাগুলোকে ছোট ছোট ভাগ করার কারণ যাতে আমাদের অফিসার আপনাদের কাছে যেতে পারে। আর বিট অফিসারের নাম্বারও আপনারা রাখবেন। গতকাল শনিবার দুপুরে নগরীর অশ্বিনী কুমার হলে নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশে অতিথির বক্তব্যে তিনি এই কথা বলেন।
এসময় এআইজি আরো বলেন, নারীর পাশে আমরা অর্থাৎ পুলিশ আছি। নিজেকে কখনো মনে মনে দুর্বল ভাববেন না। সবাই মিলে সোচ্চার হোন। সবাই মিলে নারী ধর্ষণ ও নির্যাতনের প্রতিকার, প্রতিরোধ গড়ে তুলবো।
পুরুষ অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে তিনি অনুরোধ জানিয়ে বলেন, পুরুষ ভাইয়েরা যারা আছেন, এই নারীদের রক্ষক হিসেবে কিংবা পালনকর্তা-গৃহকর্তার দায়িত্বে। তাদের অনেক বড় দায়িত্ব রয়েছে। আপনাদের কাছে সমাজের একটা ডিমান্ড রয়েছে। আপনার ঘরের শিশু কন্যাটি যেন নিরাপদে বেড়ে ওঠে, সে যেন অন্যের ছায়ায় না থাকে, সে যেন নিশ্চিন্তে তার কাজ শেষ করে ঘরে ফিরে আসতে পারে এই নিশ্চয়তা সবাইকে মিলে দিতে হবে।
বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষের অংশগ্রহনে সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন মহানগর পুলিশ কমিশনার মোঃ শাহাবুদ্দিন খান। তিনি বলেছেন, মহানগর পুলিশ সদস্যরা নারী নির্যাতনে প্রতিরোধে জিরো টলারেন্স হয়ে কাজ করছে। জন সাধারনের সুবিধার জন্য বিট পুলিশের ফোন নম্বর ঘরে ঘরে পৌছছে দেয়া হবে। পুলিশকে স্মরন করার সাথে সাথে তারা হাজির হবে। আমি প্রতিটি এলাকাবাসীর সাথে পুলিশের কোন সমন্বয়হীনতা রাখতে চাই না। আপনার এলাকায় যে ঘটনাই হোক পুলিশকে জানাবেন, কোন ঘটনার তথ্য এড়িয়ে যাবেন না। তিনি আরো বলেন, কোন অপরাধীকে আশ্রয়-প্রশ্রয় দেব না। খাদ্য, বস্ত্র, চিকিৎসা বাসস্থান ও শিক্ষা যেমন মৌলিক অধিকার রয়েছে। তেমনি আজ থেকে চলাফেরা বাসস্থানের নিরাপত্তার মৌলিক চাহিদা পুরন করার জন্য জনতা-পুলিশ একসাথে মিলে মিশে কাজ করবে। এতে সুন্দরভাবে বাংলাদেশটাকে গড়ে তোলা সম্ভব হবে। পুলিশ কমিশনার শাহাবুদ্দিন খান আরো বলেন, একটি পরিবার ও ঘর হয়েছে আদর্শের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এখান থেকে ছেলে-মেয়েদের সঠিকভাবে গড়ে তুলতে হবে। তাহলে সমাজ এত কলংকিত হবে না। এক্ষেত্রে পারবারের সদস্যদের একটু সচেতন হওয়ার জন্য তিনি আহবান জানান।
এছাড়া বিশেষ অতিথি ছিলেন বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট এ কে এম জাহাঙ্গীর, বিএম কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. গোলাম কিবরিয়া, সাংবাদিক ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব অ্যাডভোকেট এস এম ইকবাল, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ক্যামেলিয়া খান প্রমূখ। অনুষ্ঠান সঞ্চলনা করেন কোতয়ালী মডেল থানার ওসি নুরুল ইসলাম (পিপিএমবার)।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  




মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT