এখনো চাল পায়নি বাবুগঞ্জের জেলেরা এখনো চাল পায়নি বাবুগঞ্জের জেলেরা - ajkerparibartan.com
এখনো চাল পায়নি বাবুগঞ্জের জেলেরা

3:10 pm , October 13, 2020

বাবুগঞ্জ প্রতিবেদক ॥ সারাদেশে মঙ্গলবার মধ্য রাত থেকে ইলিশ আহরন, বিপনন, পরিবহন বন্ধ থাকবে। আগামী ২২ দিনের জন্য এ নির্দেশনা চলাকালী সময়ে অসহায় ও কর্মহীন জেলেদের সরকার কর্তৃক ভিজিএফ কর্মসূচির আওতায় ২০ কেজি করে চাল দেওয়ার নির্দেশনা রয়েছে। অথচ বাবুগঞ্জ উপজেলায় ৩ হাজার ২শত ৭২ জন নিবন্ধিত জেলেদের মধ্যে ১ হাজার ৯ শত ৩৮ জন জেলের পরিবার চাল সহায়তা পাবার কথা। বরিশাল জেলা প্রশাসনের নির্দেশনা অনুযায়ী নিষেধাজ্ঞা শুরুর আগেই নিবন্ধিত জেলে পরিবারের মাঝে এ চাল বিতরণের কথা থাকলেও এখনো চাল পাননি এ উপজেলার জেলেরা। এ নিয়ে অসহায় জেলেরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। চলতি মাসের শুরুতেই বরিশাল জেলার বাবুগঞ্জ উপজেলায় বরাদ্দ আসলেও কেন বিতরণ করা হয়নি এ বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তার দাবি, ২/১ দিনের মধ্যে জেলেদের মাঝে চাল বিতরণ করা হবে। এছাড়া বরাদ্দ আসার পর ধাপে ধাপে বিভিন্ন কাজ শেষ হতে সময় ব্যয় হয়। সরকার মৌসুম শুরুর আগে বরাদ্দ পাঠালে জেলেরা উৎসাহ পেয়ে নদীতে ‘মা’ ইলিশ ধরা থেকে বিরত থাকতেন বলে জানান একাধিক ইউপি চেয়ারম্যান। বাবুগঞ্জের ছয়টি ইউনিয়নে মোট ৩৮ দশমিক ৭৭ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ দেয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়। স্থানীয় জেলেরা জানান, এবার নদীতে ইলিশ অনেক বেশি। তাই জাল ফেললেই মাছ আর মাছ। তবে লোভী ও অসাধু অনেক জেলেই আইন অমান্য করে ‘মা’ ইলিশ শিকার করছেন। জেলেরা কখনো অলস বসে থাকতে পারে না। ২২ দিন বিকল্প কোনো কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা না থাকায় ধার-দেনা করে পরিবারগুলো চলছে। প্রজনন মৌসুমে শুরুর আগে বরাদ্দ পেলে জেলেরা উৎসাহ পেতো। বাবুগঞ্জ সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. সাইদুজ্জামান বলেন, বরাদ্দের কাগজ হাতে পাওয়া গেছে। উপজেলায় এবার জেলেদের চাল বিতরণের জন্য ২০ কেজি করে ১৯৩৮ জনের বিপরীতে বরাদ্দ এসেছে। আশাকরি বুধবারের (১৫ অক্টোবর) মধ্যেই জেলেরা চাল পাবেন। জেলেরা মূলত নানা অজুহাত দেখিয়ে মাছ শিকার করেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী মিরাজ মাহমুদ
 
বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়ঃ কুশলা হাউজ, ১৩৮ বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক,
সদর রোড (শহীদ মিনারের বিপরীতে), বরিশাল-৮২০০।
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed by NEXTZEN-IT